ব্রেকিং নিউজ

মুক্তিযুদ্ধে বঙ্গবন্ধু পলিটিক্যাল লিডার আর জিয়া মিলিটারি লিডার

আসাদুজ্জামান সাজু/

বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা সংগ্রামে যাঁদের অবদান অপরিসীম, এমন যে কারো কফিনের ওপর ‘রাজনীতি’ না করা আমাদের উচিত। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং স্বাধীনতার ঘোষক জিয়াউর রহমানকে নিয়ে যারা কটাক্ষ করেন, তারাই প্রকৃত স্বাধীনতা বিরোধী।

আজ দুঃখিত লজ্জিত ব্যথিত মর্মাহত, যখন দেখি দেশের প্রধান দু’টি রাজনৈতিক দল একাত্তরের মূল চেতনা থেকে দূরে সরে গিয়ে ব্যতিব্যস্ত হয়ে পড়েছে প্রতিপক্ষের নেতার চরিত্র হননে। ইতিহাস তার আপন গতিতেই চলেছে এবং আগামীতেও চলবে। ইতিহাস নিয়ে আমাদের হাইকোর্ট দেখিয়ে লাভ নেই। বঙ্গবন্ধু এবং জিয়াউর রহমান দু’জনের যে কাউকে কোনভাবেই খাটো করার ন্যূনতম অবকাশ নেই। যারা এসব করছে তাদের ইতিহাস বিকৃতির অপকর্ম সম্পর্কে সবাইকে সতর্ক থাকা প্রয়োজন এখন দেখা দিয়েছে।

স্বাধীনতার পর বাংলাদেশ সবসময় গণতান্ত্রিক থাকবে এবং কখনোই স্বৈরতন্ত্রের মুখোমুখি হবে না, এই ছিলো একাত্তরে আমাদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনা। দুর্ভাগ্যের বিষয় গত ৪ দশকে হতাশ হয়েছি বারে বারে।

বঙ্গবন্ধুর জন্যই বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে এবং তাঁর ক্যারিশমাটিক লিডারশীপ যুদ্ধের ময়দানে যোদ্ধাদের এনার্জি দিয়েছিল শত্রুর বিরুদ্ধে লড়ার। বঙ্গবন্ধুর শোকাবহ মৃত্যুই ছিলো স্বাধীন বাংলাদেশের জন্য সবচাইতে বড় ট্র্যাজেডি।

জিয়াউর রহমান ছিলেন সেক্টরের কম্যান্ডার-ইন-চিফ। হানাদারদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ পরিচালনায় তাঁর অসীম সাহস আর বীরত্ব-গাঁথা ভূমিকা। তাছাড়া কালুরঘাট থেকে সেদিন জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছিলেন বলেই মুক্তিযোদ্ধারা বুঝতে পেরেছিলাম, যুদ্ধ শুরু হয়েছে এবং হানাদারদের শায়েস্তা করা পর্যন্ত তা চলবে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও স্বাধীনতার ঘোষক জিয়াউর রহমানের প্রতি অন্তর থেকে বিশেষ শ্রদ্ধাশীল। মহান মুক্তিযুদ্ধে বঙ্গবন্ধু ছিলেন পলিটিক্যাল লিডার আর জিয়াউর রহমান ছিলেন মিলিটারি লিডার। যুদ্ধের ময়দানে বঙ্গবন্ধুর অনুপস্থিতি সত্ত্বেও যোদ্ধারা ভাবতেন, বঙ্গবন্ধু নেই তো কি হয়েছে, জিয়াউর রহমান তো আছে আমাদের। লাখো শহীদের রক্তে কেনা বাংলাদেশে আজ যারা নতুন প্রজন্ম তারা মুক্তিযুদ্ধের এই কঠিন সত্য ইতিহাস সবসময় মনে রাখবে এ আশা রাখছি।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

দেবর-ভাবির পরকীয়ায় খুন হন বড় ভাই

ষ্টাফ রিপোর্টার :: রাজধানীর বাড্ডার সাতারকুল এলাকায় দেবর-ভাবির পরকীয়ায় বলি হন মনিরুজ্জামান ...