মালয়েশিয়ায় মাহাথিরের জয়

মালয়েশিয়ায় মাহাথিরের জয়ডেস্ক নিউজ :: মালয়েশিয়ার সাধারণ নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছেন প্রবীণ রাজনীতিক মাহাথির মোহাম্মদ। তিনি ১২৬ আসনে জয়ী হয়েছেন বলে চূড়ান্ত ফল ঘোষণা করেছে দেশটির নির্বাচন কমিশন।

ফলে আধুনিক মালয়েশিয়ার রূপকারের হাতে ফের উঠছে ক্ষমতার চাবি। ২২ বছর ক্ষমতায় থাকা ৯২ বছর বয়সী মাহাথির এবার নিজ দল ক্ষমতাসীন বারিসান ন্যাশনালের (বিএন) বিরুদ্ধে লড়াই করেছেন।

বুধবারের এ নির্বাচনে তার জয়ের ফলে টানা ৬ দশক ক্ষমতায় থাকা বিএন ক্ষমতার মসনদ থেকে ছিটকে পড়ল। গুরুর হাত ধরেই উত্থান, আর সেই গুরুর হাতেই পতন হল শিষ্য নাজিব রাজাকের।

মালয়েশিয়ার পার্লামেন্টে ২২২টি আসন এবং ১৩টি রাজ্যের মধ্যে ১২টি রাজ্যে ৫০৫টি আসনে বুধবার ভোট গ্রহণ করা হয়েছে। অবশ্য ৫ মে শনিবার ৩ লাখ পুলিশ ও সশস্ত্র বাহিনীর সদস্য আগাম ভোট দিয়েছেন। নির্বাচনে ২ হাজার ৩৩৩ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন।

বুধবার স্থানীয় সময় মধ্যরাত ১টা ১০ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় রাত ১১টা ১০ মিনিট) মালয়েশিয়ার নির্বাচন কমিশন (ইসি) চূড়ান্ত ফল ঘোষণা করে। ইসি প্রধান দাতুক সেরি মোহাম্মদ হাশিম আবদুল্লাহ সাঈদের ঘোষণা অনুসারে, মাহাথিরের পাকাতান হারাপান (পিএইচ) জোট ১২৬ আসন পেয়ে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করেছে।

সরকার গঠনের জন্য ১১২ আসনের প্রয়োজন। ক্ষমতাসীন নাজিব রাজাকের বিএন পেয়েছে ৮৮ আসন। এ প্রতিবেদন লেখার সময় (স্থানীয় সময় ২টা) ইসির ফলাফল ঘোষণা চলছিল। এরপরই বিজয়ী ভাষণ দেয়ার কথা রয়েছে মাহাথিরের।

বুধবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত ৮ হাজার ৮৯৮টি বুথে একযোগে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। ৭৫ শতাংশ ভোট পড়েছে বলে জানায় নির্বাচন কমিশন।

দেড় কোটি ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। ২০১৩ সালের নির্বাচনে ভোটের হার ছিল ৮৫ শতাংশ। ভোট গ্রহণের কয়েক ঘণ্টা পর মাহাথির জয়ী হয়েছেন বলে দাবি করেন। সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘আমাদের আনুষ্ঠানিক ভোট গণনা থেকে আমরা মনে করি বিএন পিছিয়ে রয়েছে। আমরাই সরকার গঠন করতে যাচ্ছি।’ এরপরই রাজধানী কুয়ালালামপুরের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে আনন্দ মিছিল বের করেন পিএইচ সমর্থকরা। তবে সে মিছিল পুলিশ ঠেকিয়ে দেয়।

মালয়েশিয়ার ৩ কোটি ২০ লাখ জনসংখ্যার মধ্যে মালয় জনগোষ্ঠী ৬০ শতাংশ। এদের বেশির ভাগই মুসলিম। তারা নির্বাচনে বড় ভূমিকা পালন করে থাকেন।

মালয়রা নাজিবের জোট বারসিয়ান ন্যাশনালের (বিএন) মূল ভিত্তি। দেশটির আদিবাসী চীনা ও ভারতীয়দের চেয়ে মালয়দের বেশি সুবিধা দেয়াসহ সরকারি চাকরিতে অগ্রাধিকার দিয়ে থাকে বিএন। কিন্তু বিরোধী জোটে মাহাথির মোহাম্মদ যোগ দেয়ায় টানা ২২ বছরের মালয়েশিয়া শাসন করা নাজিবের সমর্থনের ঘাঁটিতে বড়সড় একটা ধাক্কা লেগেছে। কারণ নাজিব রাজাকের আর্থিক কেলেঙ্কারি ও দেশে জিনিসপত্রের দাম বেড়ে যাওয়ায় ক্ষোভ জন্মছে জনগণের মধ্যে।

সাধারণ নির্বাচনে দেশটির সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলমানদের সমর্থন নিয়ে জয়ের প্রত্যাশা করছে বিরোধী দল। এদিকে, মাহাথির মোহাম্মদকে ভোট দিতে ভোটারদের প্রতি আহ্বান জানান তার এক সময়ের শত্রু কারারুদ্ধ আনোয়ার ইব্রাহিম।

সোমবার কুয়ালালামপুরের এক হাসপাতাল থেকে এক বিবৃতিতে আনোয়ার ইব্রাহিম বলেন, পরিবর্তনের জন্য জনগণের আন্দোলনে শামিল হতে আপনাদের আহ্বান জানাচ্ছি। কারারুদ্ধ হলেও কয়েক মাস ধরে হাসপাতালেই আছেন তিনি। সম্প্রতি তার কাঁধে অপারেশন হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

সিলেটের স্বপ্নিল অভিষেকে বাংলাদেশের সিরিজ জয়

স্টাফ রিপোর্টার :: ওয়ানডেতে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের অভিষেকটা হল দারুণ। দেশের ...