Templates by BIGtheme NET
ব্রেকিং নিউজ ❯
{ echo '' ; }
Home / আইন-আদালত / ভূমি মন্ত্রীর ছেলেসহ ১১ জন গ্রেফতার
Print This Post

ভূমি মন্ত্রীর ছেলেসহ ১১ জন গ্রেফতার

ভূমি মন্ত্রীর ছেলেসহ ১১ জন গ্রেফতারকলিট তালুকদার, পাবনা প্রতিনিধি :: পাবনার ঈশ্বরদীতে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জুবায়ের বিশ্বাসের বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগে দায়েরকৃত মামলায় ভূমিমন্ত্রীর ছেলে শিরহাস শরীফ তমালসহ ১১ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

স্থানীয়রা জানান, আধিপত্য বিস্তার নিয়ে পাবনা-৪ আসনের এমপি ও ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ ডিলুর সাথে তার জামাতা ঈশ্বরদীর পৌর মেয়র আবুল কালাম আজাদের অনেকদিন ধরেই বিরোধ চলে আসছে।

এরই জের ধরে গত বৃহস্পতিবার (১৯ মে) বিকেলে ১০/১৫ জনের একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী ঈশ্বরদী পৌর সদরে বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা চালায়। এ সময় মন্ত্রীর জামাতা আবুল কালাম আজাদের মিস্টির দোকান, বেশ কিছু সাধারণ ব্যবসায়ীর দোকান উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জুবায়ের বিশ্বাসের বাড়িতেও ব্যাপক ভাঙচুর চালায়। এসময় বাধা দিতে গেলে তাদের মারধরে ছাত্রলীগ সভাপতির মা হাজেরা বেগম আহত হন।

পুলিশ জানায়, হামলার ঘটনায় ছাত্রলীগ সভাপতি জুবায়ের বিশ্বাসের বাবা মুক্তিযোদ্ধা আতিয়ার বিশ্বাস বাদি হয়ে ঈশ্বরদী থানায় গত রাতে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় ভূমিমন্ত্রীর ছেলে শিরহান শরীফ তমালকে এক নাম্বার ও যুবলীগ নেতা রাজিব সরকারকে দুই নাম্বার আসামী করা হয়।

এরপর রাতেই অভিযানে নামে ঈশ্বরদী ও পাবনা পুলিশের একটি যৌথ টিম। তারা বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে হামলার সাথে জড়িত অভিযোগে ভূমিমন্ত্রীর ছেলে শিরহান শরীফ তমালসহ ১১ জনকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেফতারকৃত অন্যরা হলো মাসুম, সামসুদ্দিন, রনি, জাহাঙ্গীর, মেহেদী, মাহবুব, প্রিন্স, ছবিরুল, জাফর  ও ফাহাদ। এরা সকলেই যুবলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত বলে জানায় সংশ্লিষ্ট সূত্র।

আসামিদের দুপুরের দিকে অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে হাজির করা হলে আদালতের দায়িত্বপ্রাপ্ত বিচারক আবু বাছেদ মো. ভুলু মিয়া আসামিদের কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

ঈশ্বরদী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জুবায়ের বিশ্বাস তার মায়ের ওপর এমন সন্ত্রাসী আক্রমনের বিষয়ে দলীয় প্রধানের দৃষ্টি আকর্ষন করেন।

ঈশ্বরদী পৌর মেয়র ও আওয়ামীলীগ নেতা আবুল কালাম আজাদ মিন্টু বলেন, এ বিষয়ে আমি কিছুই বলতে পারছি না। আমার প্রতিপক্ষরাই এই কাজ করছেন। আমার ব্যাক্তিগত কার্যালয় ও এ্কটি ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানেও হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর করেন। থানায় অভিযোগ করেও কোন লাভ হয় না, তাই অভিযোগ দিব না বলেই জানান তিনি।

এ বিষয়ে উপজেলা যুবলীগের স্থগিত কমিটির সাধারন সম্পাদক ও হামলার ঘটনায় অভিযুক্ত রাজিব বলেন, আমাদের লোকজন পাবনায় আদালতে হাজিরা দিতে গেলে জুবায়ের বিশ্বাসের লোকজন হামলা করে, একারনে কতিপয় ছেলেরা এই কাজ করে। তবে আমাকে এই ঘটনার সাথে জড়ানোর প্রশ্নই আসে না। আমি এই কাজের সাথে জড়িত নয় বলে দাবী করেন। জুবায়ের বিশ্বাসের সাথে পূর্ব বিরোধ থাকায় তারা আমাকে এই ঘটনার সাথে জড়ানোর চেষ্টা করছে বলে দাবি রাজিবের। তিনি বলেন, যতো কিছুই হোক, একজন মায়ের শরীরে হাত দিয়ে তাকে আহত করবো এমনটা চিন্তায় করি না। পুলিশ জানায়, পরিস্থিতি বর্তমানে স্বাভাবিক রয়েছে।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful