বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে তারুণ্যের শক্তি বিষয়ক কর্মশালা

বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে তারুণ্যের শক্তি বিষয়ক কর্মশালাবিশেষ প্রতিনিধি :: বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে বরিশাল জেলার বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের যুব সংগঠককদের এক অভিজ্ঞতা বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ‘আর নয় বাল্যবিয়ে, রুখব এবার সবাই মিলে’ এই স্লোগানকে সামনে নিয়ে বৃহস্পতিবার গার্লস নট ব্রাইডস বরিশাল নেটওর্য়াকের আয়োজনে নগরীর আভাস কনফারেন্স রুমে তারুণ্যের শক্তি শীর্ষক বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে যুব সমাজের অভিজ্ঞতা বিনিময় কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

কর্মশালার শুভ উদ্বোধন করেন বরিশাল জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন। কর্মশালায় আরো উপস্থিত ছিলেন বরিশাল সমাজসেবা অধিদপ্তরে উপ-পরিচালক প্রতিনিধি আঞ্চলিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের লেকচারার মোঃ জাহান কবির, চন্দ্রদীপ ডেভেলপমেন্ট সোসাইটির নির্বাহী পরিচালক জাহানারা বেগম স্বপ্না, বরিশাল জেলা ব্রাক প্রতিনিধি রিপন চন্দ্র মন্ডল, দি হাঙ্গার প্রজেক্ট’র আঞ্চলিক সমন্বয়কারী মেহের আফরোজ মিতা, ব্যাকের জেন্ডার জাস্টিজ ও ডাইভারসিটি বিভাগের সেক্টর স্পেসালিস্ট কৌশিক বিশ্বাস, বাংলাদেশ মডেল ইয়ুথ পার্লামেন্টের চেয়ারপার্সন ফিরোজ মোস্তফা প্রমুখ ।

স্বাগত বক্তব্য ও কর্মশালার মূলপ্রবন্ধ করেন গার্লস নট ব্রাইডস বরিশাল নেটওর্য়াকের আহবায়ক রহিমা সুলতানা কাজল। দিনব্যাপি কর্মশালা পরিচলনায় ছিলেন গার্লস নট ব্রাইডসের গ্লোবাল ইয়ুথ অ্যাডভোকেট সোহানুর রহমান।

কর্মশালায় বরিশাল সিটি, বাকেরগঞ্জ, বাবুগঞ্জ ও আগৈলঝাড়া উপজেলার বিভিন্ন যুব সংগঠনের ৪০ জন সেচ্ছাসেবকবৃন্দ অংশ নিয়ে বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে যুব সমাজের অভিজ্ঞতা বিনিময় ও বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে করনীয় বিষয়ে আলোচনা এবং পরিকল্পনা করা হয়। কাজ করতে গিয়ে যেসব বাঁধা ও চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন তারা হচ্ছেন তা চিহ্নিত করে উত্তরণের লক্ষ্যে একসাথে জোটবদ্ধ হয়ে কাজ করার অঙ্গীকার করেন। এসময় গত জুন মাসে মালেশিয়ায় অনুষ্ঠিত ২য় গ্লোবাল মিটিংয়ের অভিজ্ঞতাও বিনিময় হয়।

গার্লস নট ব্রাইডস বরিশাল নেটওর্য়াকের আহবায়ক রহিমা সুলতানা কাজল বলেন, বিভিন্ন গবেষনায় দেখা গেছে বাংলাদেশের দারিদ্র পীড়িত ও উপকুলীয় জেলাগুলোতে বাল্যবিবাহের হার তুলামূলকভাবে বেশি থাকে। ২০১৩ সালের বিবিএস কর্তৃক মাল্টিপল ইন্ডিকেটর ক্লাসটার সার্ভে এর পরিসংখ্যান অনুযায়ী রংপুর বিভাগে ১৮ বছরের আগে বিবাহ সংগঠনের হার ৭৬% যা সবথেকে বেশি। আর বরিশাল বিভাগে এই হার ৭০% যা দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেশি। এমন পরিস্থিতিতে ‘বাল্যবিবাহ’ প্রতিরোধে সমমনা কয়েকটি সংগঠনের যৌথ উদ্যোগে গঠিত গালর্স নট ব্রাইড়স বাংলাদেশ জোটের পক্ষ থেকে বাল্যবিবাহ প্রবণ জেলা রংপুর ও বরিশালে Empowering Girls on SRHR towards Combating Child Marriage নামে একটি প্রকল্প বাস্তবায়নের উদ্যোগ গ্রহন করা হয়। ২ বছর মেয়াদী পকল্পটি শেষ হয় ২০১৮ সালের জুলাই মাসে। এ প্রকল্পটির আওতায় বরিশাল ও রংপুরে গার্লস নট ব্রাইডসের দুটি স্থানীয় নেটওর্য়াক গঠন করা হয়েছে। নেটওর্য়াকের সদস্য সংগঠনের মাধ্যমে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করে গার্লস নট ব্রাইড্স বাংলাদেশ জোটের সচিবালয়ের দায়িত্বপালনকারী সংস্থা ব্র্যাক। প্রকল্পটি একদিকে যেমন কমিউনিটি পর্যায়ে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধের ভূমিকা রেখেছে অন্যদিকে এতে যুবসমাজের অংশগ্রহণ এবং তাদের নেতৃত্বে¡ বাল্যবিবাহ প্রতিরোধের কাজকে অনেক সহজতর করেছে । তবে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে সরকারও বসে নেই। বৈশ্বিক টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে পরিকল্পনা ও সরকারের ৭ম পঞ্চবার্ষিক কর্মপরিকল্পনায় বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে বিশেষ গুরুত্বারোপ করা হয়েছে। বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে সরকারি বেসরকারি নানা ধরনের উদ্যোগ এবং কর্মসূচি বাস্তবায়িত হচ্ছে। এমনকি অনেক্ষেত্রে বাংলাদেশের তরুণরা বিশেষ করে কিশোরীরা বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে প্রশংসনীয় ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে।

গার্লস নট ব্রাইডসের গ্লোবাল ইয়ুথ অ্যাডভোকেট সোহানুর রহমান জানান, যেখানেই বাল্যবিবাহের খবর পাওয়া যাবে, আমরা তরুণরা সেখানেই সামাজিকপ্রতিরোধ গড়ে তুলব। যুব সমাজকে ক্ষমতায়িত ও যুব সংগঠনগুলোকে শক্তিশালী করতে পারলে বাল্যবিবাহমুক্ত বাংলাদেশ শুধু স্বপ্নই থাকবে না, অচিরেই তা বাস্তবে পরিণত হবে।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

কাপেং ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে

কাপেং ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আদিবাসীদের উন্নয়নে জাতীয় নীতিমালার বাস্তবায়ন শীর্ষক প্রশিক্ষণ

রাজশাহী :: কাপেং ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ১৪ ও ১৫ নভেম্বর “আদিবাসী উন্নয়ন সংশ্লিষ্ট জাতীয় ...