বহিস্কৃত ছাত্রীর এখনও জ্ঞান ফেরেনি

বহিস্কৃত ছাত্রীর এখনও জ্ঞান ফেরেনি খোরশেদ আলম বাবুল, শরীয়তপুর প্রতিনিধি :: মাদারীপুরের ছিলারচর শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে বৃহস্পতিবার ইংরেজী দ্বিতীয় পত্র পরীক্ষা চলাকালে নকল করার অপরাধে বহিষ্কার হয়েছিলেন এসএসসি পরীক্ষার্থী মিম আক্তার (১৫)। বহিষ্কারের সময় ভয় পেয়ে চিৎকার দিয়ে জ্ঞান হারায় সে। এরপর বাড়িতে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হলেও সে আর জ্ঞান ফেরেনি।

পরে শুক্রবার সকালে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও দুপুর পর্যন্ত জ্ঞান না ফেরায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে চিকিৎসক। মিম শরীয়তপুর সদর উপজেলার পশ্চিম ভাষানচর গ্রামের বেলায়েত হোসেন খানের মেয়ে। সে মাদারীপুরের খোয়াজপুর টেকেরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী।

মীমের স্কুলের ইংরেজি শিক্ষক মো. আক্তার হোসেন বলেন, মিম আমাদের স্কুলের মেধাবী ছাত্রী। সে নকর করতে পারে তা আমাদের কারোরই বিশ্বাস হয়না। পরীক্ষার শেষ মুহুর্তে মিম তার পরীক্ষা খাতা রিভিশন দিতে ছিল। এ সময় তার বেঞ্চের নিচে একটি কাগজ পড়ে থাকতে দেখে ম্যাজিষ্ট্রেট তাকে পরীক্ষা থেকে বহিষ্কার করে। এ সময় ভয় পেয়ে মিম চিৎকার দিয়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। একনও পর্যন্ত তার জ্ঞান ফেরেনি।

শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. শেখ মোহাম্মাদ এহসান বলেন, মিম মানুষিক ভাবে আঘাত পেয়ে জ্ঞান হারিয়েছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

খুলনা বিএল কলেজ ছাত্রী গৃহবধূ সোনালী

‘যদি মরে যাই তাহলে শুধু রবিনই দায়ী থাকবে’

মহানন্দ অধিকারী মিন্টু, পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি :: খুলনার পাইকগাছায় মৃত্যুর পূর্বে খুলনা বিএল ...