ফেসবুক টুইটার ইউটিউবের বিরুদ্ধে মামলা

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক, টুইটার এবং ইউটিউবের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে যুক্তরাষ্ট্রের অরল্যান্ড অঙ্গরাজ্যে বন্দুকধারীদের হামলায় নিহত তিনজনের পরিবারের সদস্যরা। ওই তিন পরিবারের সদস্যদের অভিযোগ, সন্ত্রাসবাদী জেনেও আইএসের মতো জঙ্গিগোষ্ঠীগুলোকে ফেসবুক, টুইটার এবং ইউটিউব ব্যবহার করতে দেওয়া হচ্ছে।

তাদের মতে, ফেসবুক, টুইটার এবং গুগলের সহায়তা না পেলে গত কয়েক বছরে আইএসের এই উত্থান সম্ভব ছিল না। অবশ্য ওই ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন ফেসবুকের মুখপাত্র। এক বিবৃতিতে তিনি বলেন,‘মৃতদের পরিবারের প্রতি আমরা সমবেদনা জানাচ্ছি। পাশপাশি আমরা স্পষ্ট করে দিতে চাই ফেসবুক কখনই সন্ত্রাসবাদকে সমর্থন করে না। আমাদের কাছে অভিযোগ আসলেই ফেসবুক থেকে সন্ত্রাসবাদকে সমর্থন করে এরকম জিনিস সরিয়ে দেওয়া হয়।’

মামলার বিষয়ে তিন সংস্থার কেউই কোনো মন্তব্য করেনি। তবে এবারই প্রথম নয়, এর আগেও একাধিকবার এই তিন সংস্থার নামে একই অভিযোগ দায়ের করা হয়েছিল।

এর আগে ফ্রান্সের নিস শহরে হামলার ঘটনায় এক নিহতের বাবাও একই দাবি করে এই তিন কোম্পানির নামে অভিযোগ করেন। এছাড়া চলতি বছরে আরও বেশ কয়েকটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। জঙ্গিরা যেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে ব্যবহার করে তাদের কার্যসিদ্ধি করতে না পারেন সেজন্য খুব শিগগিরই ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে সংস্থাগুলো।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

দেবর-ভাবির পরকীয়ায় খুন হন বড় ভাই

ষ্টাফ রিপোর্টার :: রাজধানীর বাড্ডার সাতারকুল এলাকায় দেবর-ভাবির পরকীয়ায় বলি হন মনিরুজ্জামান ...