ফের অবস্থার অবনতি মহানায়িকার

কলকাতা : সুচিত্রা সেনের শারীরিক অবস্থার ফের কিছুটা অবনতি হয়েছে। বৃহস্পতিবার হাসপাতালের তরফে মেডিক্যাল বুলেটিনে জানানো হয়েছে গতকাল (বুধবার) থেকে খাওয়া দাওয়া করছেন না সুচিত্রা সেন। এদিন সকালেও খাওয়া দাওয়া করতে পারেন নি। এইমুহুর্তে তাঁর ক্যালরি যুক্ত খাবার প্রয়োজন বলেও জানানো হয়েছে। তাঁকে তরল খাওয়ার দেওয়া হয়েছে। কিন্তু মুখে কিছুই তুলতে পারছেন না মহানায়িকা। স্বভাবতই খুব দুর্বল হয়ে পড়েছেন তিনি।

গত দুইদিন ধরে ধীরে ধীরে তাঁর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হলেও গতকাল সন্ধ্যের পর থেকেই তা অবনতি থাকে। চিকিৎসকরা জানান, গতকাল(বুধবার) সন্ধ্যা থেকে ফের তাঁর শ্বাসকষ্ট শুরু হতে থাকে। পরিস্থিতির সামাল দিতে নন ইনভেসিভ ভেন্টিলেশনে দিতে হয় মহানায়িকাকে। পাশাপাশি দেওয়া হয় নেবুলইজেশন। স্বাভাবিক ভাবেই মহানায়িকার শারীরিক অবস্থার অবনতিতে উদ্বিগ্ন চিকিৎসকরাও। তবে মহানায়িকার হৃদস্পনন্দনের গতি, রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণের মধ্যেই রয়েছে। যদিও রক্তে শর্করা এখনও নিয়ন্ত্রণে আসেনি বলে এখনও ইনসুলিন দেওয়া হচ্ছে তাঁকে। ফুসফুসে জমে থাকা কফ বের করার জন্য চলছে ফিজিওথেরাপি। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন আরও দুই-তিন দিন আইটিইউতেই রাখা হবে।

এদিকে হাসপাতাল সূত্রে খবর, সুচিত্রা দেবীর শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নিতে ফোন করেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার দুপুরে সুচিত্রা কন্যা মুনমুন সেনের সঙ্গে মুঠোফোনে কথা হয় শেখ হাসিনার।

উল্লেখ্য ফুসফুসের সংক্রমণ নিয়ে গত ২৪ ডিসেম্বর মধ্য কলকাতার একটি বেসরকারি নার্সিং হোম (বেল ভিউ)-এ ভর্তি হন সুচিত্রা সেন। প্রথমে ছয় তলার সুই্যটে থাকলেও পর অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাঁকে তিন তলার আইটিইউ-তে পাঠানো হয়।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

 'আউটসোর্সিং ও ভালোবাসার গল্প'

 ‘আউটসোর্সিং ও ভালোবাসার গল্প’

স্টাফ রিপোর্টার :: মাহাবুব এক স্বাধীনচেতা যুবক। নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারে বেড়ে ওঠা ছেলেটি ...