ব্রেকিং নিউজ ❯
Home / রাজনীতি / ফখরুলের গাড়িবহরে হামলা

ফখরুলের গাড়িবহরে হামলা

ফখরুলের গাড়িবহরে হামলাস্টাফ রিপোর্টার :: রাঙামাটিতে পাহাড়ধসে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে যাওয়ার পথে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের গাড়িবহরে হামলা হয়েছে। হামলায় মির্জা ফখরুলসহ দলটির কয়েকজন নেতা আহত হয়েছেন। হামলার পর তারা রাঙামাটি না গিয়ে চট্টগ্রাম শহরে ফিরে যান। হামলার নিন্দা জানিয়ে প্রতিবাদ কর্মসূচি দিয়েছে বিএনপি।

রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলা সদরের ইছাখালী এলাকায় চট্টগ্রাম-কাপ্তাই সড়কে এই হামলা হয় বলে জানান মির্জা ফখরুল।

মির্জা ফখরুলের গাড়িবহরে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মেজর জেনারেল (অব.) রুহুল আমিন, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সদস্য মাহবুবুর রহমান প্রমুখ ছিলেন। তারাও আহত হয়েছেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, প্রায় ২০ থেকে ২৫ জন লোক অতর্কিতে তার গাড়িবহরে লাঠিসোঁটা ও ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা করে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আমার গাড়ির কাচ ভেঙে গেছে। বহরের অন্য গাড়িও তছনছ করা হয়েছে। গাড়ির ভাঙা কাচ আমার শরীরে লেগেছে। আমাদের কয়েকজন নেতা আহত হয়েছেন।’ আমির খসরু বলেন, মির্জা ফখরুল হাতে আঘাত পেয়েছেন। রুহুল আমিন ঘাড়ে ব্যথা পেয়েছেন। মাহবুবুরের আঘাত মাথায়। তার (আমির খসরু) হাত দিয়েও রক্ত বেরিয়েছে।

গণতন্ত্রের শেষ চিহ্নটুকু মুছে ফেলার উদ্যোগ: খালেদা জিয়া

এদিকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের ওপর হামলা গণতন্ত্রের শেষ চিহ্নটুকু মুছে ফেলার উদ্যোগ উল্লেখ করে দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া হামলাকারীদের গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জোর দাবি জানিয়েছেন।

রোববার বিকালে এক বিবৃতিতে বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, রাঙ্গুনিয়ায় আওয়ামী সন্ত্রাসীদের সশস্ত্র হামলায় বিএনপি মহাসচিবসহ বিএনপির সিনিয়র নেতাদের গাড়িবহরে হামলা ও শারীরিকভাবে আক্রমণ করে আহত করার যে নজির সৃষ্টি করা হলো তা গণতন্ত্রের শেষ চিহ্নটুকু মুছে ফেলতে সরকারের একটি দুর্বিনীত উদ্যোগ। এই ঘটনা বর্তমান বিনা ভোটের সরকারের আরেকটি হিংসাশ্রয়ী অসুস্থ রাজনীতিরই বহিঃপ্রকাশ। আওয়ামী লীগ গু-ামীকেই আশ্রয় করেছে টিকে থাকার অবলম্বন হিসেবে। তাই শান্তি, স্বস্তি ও জননিরাপত্তাকে বিসর্জন দিয়ে নৈরাজ্যকেই বেছে নিয়েছে। এভাবে ভয়ভীতি, শঙ্কা ও আতঙ্কের পরিবেশ বজায় রেখে গণপ্রতিবাদকে চাপা দিয়ে রাখাটাই হচ্ছে তাদের মূল লক্ষ্য। সরকার ভক্ষকের ভূমিকা গ্রহণ করার জন্যই বাংলাদেশে মানুষের জীবন-জীবিকা এখন ভয়ংকর নিরাপত্তাহীনতায় বিপন্ন। জনসমর্থনহীন ক্ষমতা অাঁকড়ে রাখতেই অপরাধ ও অপরাধীদের সহযোগী হিসেবে বেছে নিয়েছে এই সরকার। তাই জনসমাজে সন্ত্রাসীদের শাসনই সর্বত্র বিরাজমান।

এর আগে সোমবার বিকালে টুইটে খালেদা জিয়া গাড়িবহরে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা ন্যক্কারজনক বলে মন্তব্য করে বলেন, ‘বিএনপি মহাসচিবের ওপর ন্যক্কারজনক হামলার নিন্দা জানাবার ভাষা নেই। এ হামলা গণতন্ত্র, রাজনীতি, নাগরিক অধিকার ও পরমতসহিষ্ণুতার ওপর হামলা। এর পরিণাম শুভ হবে না।’

http://www.unitednews24.com/wp-content/uploads/2016/08/Untitled-1-copy-1.jpg

About ahm foysal

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*