প্রশাসন ক্যাডারে মাঠপর্যায়ে ৫ বছর চাকরি বাধ্যতামূলক

প্রশাসন ক্যাডারষ্টাফ রিপোর্টার :: প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তাদের মাঠ প্রশাসনে কমপক্ষে পাঁচ বছর চাকরি করা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এর আগে তারা নিজ জেলায় চাকরি করতে পারতেন না। এখন থেকে তারা নিজ বিভাগেও চাকরি করতে পারবেন না। মাঠ প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ণ পদগুলোতে কর্মকর্তাদের ধরে রাখতেই এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে এ-সংক্রান্ত নতুন নীতিমালা জারি করা হয়েছে ৯ নভেম্বর। এতে বলা হয়, প্রশাসন ক্যাডারে নিয়োগ পাওয়ার পর শিক্ষানবিস সহকারী কমিশনার, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক পদে কমপক্ষে দুই বছর করে চাকরি করতে হবে। আর সহকারী কমিশনার, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও জ্যেষ্ঠ সহকারী কমিশনার মিলিয়ে কমপক্ষে চার বছর চাকরি করতে হবে। ২০০৬ সালের ১ জুলাইয়ের পর যারা চাকরিতে যোগ দিয়েছেন, তাদের ক্ষেত্রে নতুন এই নিয়ম কার্যকর হবে।

এতে আরো বলা হয়, মাঠপর্যায়ে পাঁচ বছরের কাজের অভিজ্ঞতা ছাড়া কোনো কর্মকর্তাকে মন্ত্রণালয় বা বিভাগে নিয়োগ দেয়া যাবে না। এমনকি তারা মন্ত্রী-সচিবদের একান্ত সচিব বা সহকারী একান্ত সচিবও হতে পারবেন না।

বর্তমানে প্রশাসন ক্যাডারে কর্মকর্তা রয়েছেন পাঁচ হাজারের কিছু বেশি। এঁদের অনেকেই মাঠ প্রশাসনে দুই বছর (প্রফেশনাল পিরিয়ড) চাকরি শেষ করার পরই ঢাকায় চলে আসার জন্য চেষ্টা করেন এবং অনেকে চলেও আসেন। এর ফলে মাঠ প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ণ পদ সহকারী কমিশনার (ভূমি), ইউএনও এবং এডিসি পদে প্রয়োজনীয় কর্মকর্তা পাওয়া যায় না। এসব চিন্তা থেকেই নতুন নিয়ম করা হয়েছে।
জানতে চাইলে জনপ্রশাসন সচিব কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী বলেন, পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধি ও কাজে গতিশীলতা এনে মানসম্মত সেবা নিশ্চিত করতেই এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
নীতিমালা অনুযায়ী কর্মকর্তাদের চাকরিতে যোগ দেয়ার সময় নিজ বিভাগের বাইরে যেকোনো বিভাগে নিযুক্ত করতে হবে। শিক্ষানবিসকালে কোনো কর্মকর্তাকে বদলি করা যাবে না।
আর চাকরির মেয়াদ ছয় বছর না হলে কাউকে ইউএনও হিসেবে নিয়োগ দেয়া যাবে না। ইউএনও পদে কাউকে নিজ স্বামী বা স্ত্রীর জেলায়ও নিয়োগ দেয়া যাবে না। আর এই পদে কমপক্ষে দুই বছর চাকরি করতে হবে। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ পেতে হলে সহকারী কমিশনার, সহকারী কমিশনার (ভূমি), জ্যেষ্ঠ সহকারী কমিশনার ও ইউএনও পদের অভিজ্ঞতাসহ আট বছর চাকরি করতে হবে।
জানতে চাইলে সাবেক মন্ত্রিপরিষদ সচিব আলী ইমাম মজুমদার বলেন, এখন কর্মকর্তাদের অনেকেই মাঠ প্রশাসনে থাকতে চান না। এখন বাধ্যতামূলকভাবে তাদের থাকতে হবে। এতে মাঠ প্রশাসনের কাজে গতিশীলতা আসতে পারে।
Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

শিবগঞ্জের জঙ্গি আস্তানা

শিবগঞ্জের জঙ্গি আস্তানা থেকে চারজনের মরদেহ উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার :: চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবপুর উপজেলার শিবনগর গ্রামে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে একটি ...