প্রযুক্তিবাজারে ঈদের আমেজ

সবাই এখন কোরবানির পশু কেনা নিয়ে ব্যস্ত। ঈদুল আজহার সময়টা এমনই। তারপরও কি থেমে আছে প্রযুক্তির বাজার। প্রতিদিন নিত্যনতুন সব প্রযুক্তিপণ্য আসছে বাজারে। আবার ঈদকে সামনে রেখে প্রযুক্তি পণ্যগুলোরও রয়েছে বিশেষ অফার। প্রযুক্তিপণ্য কিনলে আছে ডিসকাউন্ট ও গিফটহ্যাম্পার। তবে ঈদের আনন্দকে আরও রাঙাতে আইডিবি ভবন, মাল্টিপ্ল্যান, ইস্টার্ন প্লাজা কিংবা তাহের প্লাজার মতো আইটি পণ্যের মার্কেটগুলো সেজেছে ঈদের সাজে। দোকানগুলোতে নানা ধরনের ব্যানার, অফারের পোস্টার, ফেস্টুন দিয়ে ডেকোরেশন করা হয়েছে আলাদাভাবে। আর সব মিলিয়ে প্রযুক্তিবাজারে পুরোপুরি চলছে ঈদের আমেজ। ঈদে ভালোভাবেই চলছে প্রযুক্তিপণ্যের দোকানে বেচাকেনা। রেফ্রিজারেটরের চাহিদা একটু বেশি, তবে এর সঙ্গে সঙ্গে ল্যাপটপ, কম্পিউটার আর মোবাইলের চাহিদাও ভালোই। তবে প্রায় কোম্পানি বা শো-রুমের পক্ষ থেকে দেওয়া হয়েছে নিজেস্ব অফার। অনেকে ক্র্যাচ কার্ডেরও ব্যবস্থা করেছে। এই নিয়েই আইটিডটের বিশেষ আয়োজন-

ল্যাপটপ বাজারে ঈ আনন্দ
কিছুদিন আগে উদ্বোধন হওয়া শান্তিনগরে ইস্টার্ন প্লাসের ৫ তলাজুড়ে ল্যাপটপ বাজারের যাত্রা শুরু হয়। চলছে ধুমছে বেচাকেনা। আর এর সঙ্গে যোগ হয়েছে ঈদের আনন্দ। ঈদের সাজে সেজেছে ৫তলার প্রতিটি দোকান। ঈদ উপলক্ষে চলছে নানা ধরনের অফার। আছে ডিসকাউন্ট। বিভিন্ন দোকান ঘুরে জানা গেছে, মাত্র ১৭ হাজার টাকা থেকে শুরু করে মোটামুটি দামের মধ্যে আছে ল্যাপটপ আর এ ল্যাপটপের ক্রেতা তরুণ প্রজন্মের ছেলেমেয়েরা। তবে ডেল, এইচপি, স্যামসাং আর এসার এ ব্যান্ডগুলোর ল্যাপটপের চাহিদা একটু বেশি। এক দোকানি জানালেন, সদ্য চালু হওয়া মার্কেটটি চালু হতে না হতেই প্রতিযোগিতা শুরু হয়ে গেছে। এ প্রতিযোগিতার পাল্লা ভারী করতে ইতিমধ্যে দোকানগুলো থেকে ঘোষণা করা হয়েছে নানা ধরনের অফার ও উপহার। আর ঈদ উপলক্ষে তো থাকছে বাড়তি আরও কত কিছু।

আইডিবি ভবনে ঈদের আমেজ
বরাবরের মতো এবারের ঈদের আইডিবি ভবনে মানুষের সমাগম একটি বেশিই। ল্যাপটপ থেকে শুরু করে মোবাইল এমনকি নষ্ট হয়ে পরে থাকা কম্পিউটার ঈদ উপলক্ষে সাড়াতে আইডিবি ভবনে ভিড় করছে ক্রেতারা। এর সঙ্গে আছে নতুন প্রযুক্তিপণ্য কিনতে আসা ক্রেতাদের ভিড়। কম্পিউটার কিনতে আসা এক ক্রেতা জানান, তিনি তার ছোটভাইটির জন্য কম্পিউটার কিনতে এসেছেন। কেননা আগামী ঈদে বলেছিল আসছে ঈদে তাকে একটি কম্পিউটার কিনে দেবেন তাই এবার কিনে দিচ্ছেন। আর আইডিবি ভবনে সব সময় আপডেট পণ্য পাওয়া যায়, তাই এখান থেকেই সচরাচর প্রযুক্তিপণ্য কিনে সবাই। ঈদ উপলক্ষে বেশকিছু পণ্যের দাম কমানো হয়ছে। আর এ অফারগুলো চলবে ঈদের পরও।

ঈদের রঙ্গে মাল্টিপ্ল্যান
মার্কেটটির নিচতলা থেকেই কেমন জানি ভিড়। দ্বিতীয়-তৃতীয়তলাতে সিডির দোকানে ঈদ উপলক্ষে রিলিজ হওয়া ফিল্ম কিনতে আসা ছেলেমেয়েদের ভিড়, অন্যদিকে মোবাইল কিনতে আসা মানুষদেরও ভিড় চোখে পড়ার মতো। ম্যাল্টিপ্ল্যানের নিচের দরজা থেকেই ঈদের সাজ। প্রতিটি তলায় যেন ঈদের আয়োজন। প্রতিটি দোকানেই কমবেশি অফার আছেই। সেইসঙ্গে প্রযুক্তিপণ্যগুলোর অফারও তো কম নয়।
ইস্টার্ন প্লাজা ঈদের সাজে
এক নামেই পরিচিত ইস্টার্ন প্লাজা। মোবাইল আর প্রযুক্তিপণ্যের কারণে এ মার্কেট প্রযুক্তিপণ্য কিনতে আসা মানুষদের কাজে পরিচিত একটি নাম। ঈদের রঙে আরও রাঙিয়ে ইস্টার্ন প্লাজা সেজেছে ঈদের সাজে। প্রতিটি দোকানেই কেমন যেন আলাদা একটা ঈদের আমেজ। বিভিন্ন ধরণের ছাড়ও দিচ্ছে সাধ্যের মধ্যে।

মোতালেব প্লাজা ঈদের বাতাস
মোতালেব প্লাজার নামটা অনেকের মুখেই। প্রযুক্তিপণ্য বিশেষ করে মোবাইল বেচাকেনার ক্ষেত্রে এ মার্কেটের কদরটাও কম নয়। ঈদ উপলক্ষে বিভিন্ন দোকানে চেহারা পাল্টানোর পাশাপাশি দোকানে দোকানে চলছে বিশেষ অফার। ঈদের কেনাকাটায় অন্য মার্কেটের তুলনায় এগিয়ে রয়েছে বলে জানা গেল।

ঈদ বাজারে প্রযুক্তি পণ্যের দাম
কম্পিউটার বাজারে দাম কমেছে বেশকিছু পণ্যের। ক্যামেরা, টেলিভিশন রেফ্রিজারেটর আর মোবাইল_ এ বাজারগুলোর চাহিদা প্রচ-। মনিটর ও পেনড্রাইভের বিক্রি বেড়েছে বলে বিক্রেতারা জানান। চাবির মতো টুইনমস পেনড্রাইভ। টুইনমস ব্র্যান্ডের কে২ মডেলের আকর্ষণীয় পেনড্রাইভ। ওয়াটারপ্রুফ এবং ডাস্টপ্রুফ। লাইফ টাইম ওয়ারেন্টিসহ পেনড্রাইভটির চার ও আট গিগাবাইটের মূল্য ৬৫০ ও ১ হাজার টাকা। প্রসেসর ইন্টেল কোর আই৫ (৩.২০ গি.হা) ১৫,৩০০, ইন্টেল সেলেরন ১.৮ গি.হা ৩,০০০; ইন্টেল কোর আই-৩ ৩.০৬ গি.হা. ৯,৮০০ টাকা। পেন্টিয়াম ডুয়েল কোর২.৮ গি.হা. ৫,৩০০; কোর টু কোয়াড-৩.৩৩গি.হা. ১২,৫০০ টাকা। মাদারবোর্ড: গিগাবাইট জি এ৪১ এমটি-ডি-৩ ৪,১০০; জি৪১এমটি-ইএস২ এল ৪,৩০০; জি ৪১এম কমবো ৪,২০০; এইচ৫৫এম-ডিটুএইচ ৬,৫০০ টাকা। ইন্টেল ডিএইচ৫৫পিজে ৬,৮০০, ডিজি৩৩টিএলএম ৭,১০০ টাকা। আসুস পি৫জি-৪১টি-এম৪১০০ ৪,৩০০; জি৪১ ৪,৬০০ টাকা। ফক্সকন জি৩১ এমভি ৩,০০০; এইচ৪১ এমএক্সইভি ৩,৩০০; এইচ৫৫ এক্সভি ৫,২০০ টাকা। র‌্যাম: ২ গি.বা. ডিডিআর-২ ১,৯০০, ২ গি.বা. ডিডিআর-৩ ১,২০০ টাকা। হার্ডডিস্ক ড্রাইভ: ৩২০ গি.বা. ৩,০০০; ৫০০ গি.বা. ৩,৪০০ টাকা। হিটাচি ১ টেরাবাইট ৪,৬০০; ২৫০ গি.বা. ২,৫০০; ৫০০ গি.বা. ৩,৫০০;। পেনড্রাইভ : অ্যাপাসার ৪ গি.বা. ৬৫০, ৮ গি.বা. ১০০০ থেকে ১,৬০০। এলসিডি মনিটর- স্যামসাং ১৭ ইঞ্চি ৮,২০০; ১৮.৫র ৮,১০০; ২০ ইঞ্চি ১০,৫০০; ২১.৫ ইঞ্চি ১৩,৮০০; ২৩.৫র ২৫,৫০০ টাকা। ফিলিপস ১৮.৫ ইঞ্চি ৮,০০০ টাকা। ডেল ১৮.৫র ৭,৯০০ টাকা। এলজি ১৮.৫ র ৭,৯০০; ১৭ র্র্ ৭,৪০০; ২১.৫ ইঞ্চি ১৩,৫০০ টাকা। হাইউন্দাই এলসিডি; ১৯ ইঞ্চি ৮,৮০০; ২৭ ইঞ্চি ২৯,৩০০ টাকা। গ্রাফিকস কার্ড গিগাবাইট এইচ ডি-৫৫৭০ ১গি.বা. ৫,৫০০, এক্সএফএক্স এইচ ডি-৫৬৭০ ১গি.বা.৬,২০০ টাকা। আসুস ২৫৬ মেগাবাইট ৪,০০০, এক্সএফএক্স এইচডি৪৫৫০ ১ গি.বা. ৪,৭০০, এইচডি৫৮৫০ ৭২৫ গি.বা. ১০,১০০ টাকা। ডিভিডি রাইটার/রি-রাইটার স্যামসাং ৫২ী২৪ী৫২এক্স ১,৫০০ টাকা। আাাসুস ৫২ী৩২ী৫২ এক্স ১,৮০০ টাকা। সনি ডিভিডি-আরডবিস্নউ ১,৭০০ টাকা। কেসিং ১,৪০০ থেকে ৩,৬০০ টাকা। মাউস ২৫০ থেকে ৩০০০ টাকা। কি-বোর্ড সাধারণ ৩৫০ থেকে ১,৫০০ টাকা। মাল্টিমিডিয়া ৫৫০ টাকা। স্পিকার মাইক্রোল্যাব (২:১) ১,৩০০ থেকে ৩,৬০০ টাকা। ক্রিয়েটিভ এসবিএস ৮০০ টাকা। গোল্ডেন ব্রিজ এফটি৮০৫ (২:১) ১,৩০০ টাকা। মডেম মোবিডেটা ইডিজিই ২,৪০০; এইচএসডিপিএ ৩,০০০ টাকা। জিপিআরএস টেকনো টিএম০০৮ ২,১০০ টাকা। মোবিডাটা ২,১০০ টাকা (ইউএসবি)। টিভি কার্ড এভারমিডিয়া ইন্টারনাল ২,৬০০; এক্সটারনাল ডাবিস্নউ৭ ৪,৪০০ টাকা। রিয়েলভিউ আরভি ১,৭০০ টাকা। প্রিন্টার ক্যানন পিক্সমা আইপি-২৭৭২ ২,৮৫০ টাকা। এইচপি১৬৬৬ ডেস্কজেট ৫,৫০০ টাকা। এপসন টি৬০ ১২,০০০ টাকা। এইচপি লেজার পি-১১০২ ৮,৪০০ টাকা। ব্রাদার এইচএল ৫৩৪০ডি ১৮,৭০০ টাকা। স্যামসাং এমএল ১৬৬৩ (লেজার) ৫,৬০০। ডেল ৮,৯০০ থেকে ২১,০০০ টাকা। পোর্টেবল হার্ডডিস্ক ট্রানসেন্ড ৫০০ গি.বা ৫,০০০; ৩২০ গি.বা ৪,১০০; ৬৪০ গি.বা ৬,৩০০, ২ টেরাবাইট ১২,২০০ টাকা। এডেটা ৫০০ গি.বা. ৪,৫০০। ইউপিএস কেস্টার ৬৫০ ভিএ ২,৬০০; ১২০০ ভিএ ৪,৪০০ টাকা, ৩কেভিএ ৩৬,০০০ টাকা, ১০ কেভিএ ১,০৫,০০০ টাকা। এখানে শুধু যন্ত্রাংশের দাম দেওয়া হয়েছে। পুরো কম্পিউটার কেনার ক্ষেত্রে সংযোজন খরচ ও সার্ভিস চার্জ যুক্ত হবে।

ঈদের আনন্দ অনলাইন বেচাকেনায়
এই তো আর কিছুদন পরই ঈদুল আজহা। আর এই ঈদকে সামনে রেখে নানা প্রযুক্তিপণ্যের মাকের্টের কদর বেড়েছে। তবে মাকের্টে না গিয়েও প্রযুক্তিপণ্য কেনা যায়। আর এ পদ্ধতিতেও ঈদের গন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। আমাদের দেশে ইন্টারনেটে কেনাকাটা শুরু হয়েছে। বাসায় বসে শুধু অনলাইনে ফরমায়েশ দিলেই মিলে যাচ্ছে কাঙ্ক্ষিত পণ্যটি। আর এ কাজটি সম্পন্ন হচ্ছে ব্যাংকের নির্দিষ্ট কিছু কার্ডের মাধ্যমে। কোনো প্রতিষ্ঠান যদি তাদের পণ্য অনলাইনে বিক্রি করতে চায়, তাহলে তাকে নির্দিষ্ট একটি প্রতিষ্ঠানের কাছে অনুমোদন নিতে হয় এবং তাদের শর্তগুলো পূরণ করতে হয়; তবেই অনলাইনে পণ্য বিক্রি করতে পারবে। অনলাইনে কেনাকাটার জন্য গেটওয়ে সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান হলো এসএসএল কমার্স। এ পর্যন্ত তারা ৩০টির বেশি ওয়েবসাইটকে অনলাইনে বেচাকেনা করার জন্য প্রযুক্তিগত সুবিধা দিয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে বিমান পরিবহন সংস্থা, শিক্ষামূলক ওয়েবসাইট, সেবাপ্রদানকারী বিভিন্ন ওয়েবসাইট, কেনাকাটার ওয়েবসাইটসহ চাকরির ওয়েবসাইট। ঈদ উপলক্ষে এই সেবা আরও বাড়ানো হয়েছে। কেনাকাটার জন্য গেটওয়ে প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান এসএসএল কমার্সের সদস্য হতে হলে তাদের ওয়েবসাইট (www.sslcommry.com.bd) থেকে নিবন্ধন ফরম নামাতে পারবেন। সেটি পূরণ করে নির্দিষ্ট ঠিকানায় যোগাযোগ করে আপনার প্রতিষ্ঠানের পণ্যও অনলাইনে বিক্রি করতে পারবেন।

বিশেষ কিছু প্রতিষ্ঠানের ঈদের অফার
ঈদ আনন্দকে উপভোগ করতে এসার নিয়ে এল বিশেষ ঈদ অফার। এই অফারে এসার, ইমেশিনস ও গেটওয়ে ব্র্যান্ডের যে কোনো ল্যাপটপ ও নেটবুক ক্রয় করলে ক্রেতা পাচ্ছেন আগোরা সুপার শপের ৫০০ টাকা মূল্যের গিফট ভাউচার। এসার এর সঙ্গে ঈদ আনন্দকে সমৃদ্ধ করতে এসার নিয়ে এসেছে বিশাল নতুন পণ্য সম্ভার। এসারের সর্বাধিক ক্রেতা সমাদৃত এস্পায়ার সিরিজ এ যোগ হয়েছে নতুন মাত্রা। ইন্টেল ২.৪ গি.হা. কোর আই ফাইভ ও ইন্টেল ২.২ গি.হা. কোর আই থ্রি সিরিজের প্রসেসর ও আকর্ষণীয় কনফিগারেশনের এই নোটবুকগুলো এসেছে আকর্ষণীয় ডিজাইন ও নজরকাড়া কালারে। এই অফার উপলক্ষে ইতিমধ্যেই দেশের সব এসার মল ও রিসেলার বিপণন কেন্দ্রগুলোকে সাজানো হয়েছে বর্ণিল সাজে।

ইউনাইটেড নিউজ ২৪ ডট কম/নিউজ

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

হিলিতে এফবিসিসিআই এর ভাইস প্রেসিডেন্টকে সংবর্ধনা

হিলিতে এফবিসিসিআই এর ভাইস প্রেসিডেন্টকে সংবর্ধনা

গোলাম মোস্তাফিজার রহমান মিলন, হিলি (দিনাজপুর) প্রতিনিধি :: হিলিতে এফবিসিসিআই এর সিনিয়র ...