প্রকল্পের কাজে অনিয়ম!

প্রকল্পের কাজে অনিয়ম!সৈকত দত্ত, শরীয়তপুর প্রতিনিধি :: শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলায় ২০১৫-২০১৬ অর্থ বছরে “অতিদরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান” কর্মসূচী প্রকল্পে প্রথম পর্যাযের কাজ চলছে। প্রকল্পে সপ্তাহের শনি থেকে বুধবার পর্যন্ত কাজ করার কথা থাকলেও সোম থেকে বুধবার পর্যন্ত কোন শ্রমিক কাজ করেনি। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে বিষয়টি অবগত করা হলে প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাকে বিল না দেয়ার জন্য নির্দেশ প্রদান করেন তিনি।

শরীয়তপুর জেলার গোসাইরহাট উপজেলার কোদালপুর ইউনিয়নে ৪নং ওয়ার্ডের কোদালপুর পুরাতন লঞ্চঘাট হতে বেদেপাড়া হয়ে মান্দু মোল্লার বাড়ি পর্যন্ত রাস্তা পূনঃনির্মান এবং লঞ্চঘাট পাকা সড়ক হতে ছিটু কাজীর বাড়ি সংলগ্ন কালভার্ট পর্যন্ত রাস্তা পূনঃনির্মান প্রকল্পে কাজ চলছে।

প্রকল্পে প্রতিদিন ৬৭ জন স্থানীয় দরিদ্র শ্রমিক কাজ করার কথা থাকলেও গত সোমবার থেকে বুধবার পর্যন্ত কোন শ্রমিক কাজ করেনি। এক্ষেত্রে কাজ না করেও প্রকল্প সভাপতির হাতে থেকে যাবে ৪০ হাজার ২শত টাকা।

এছাড়াও অন্যান্য কর্মদিবসে ৬৭ জন শ্রমিকের স’লে ১০/১৫ জন শ্রমিক কাজ করেছে। সেখানেও প্রকল্পে বরাদ্দের বেশীর ভাগ টাকাই উন্নয়ন কাজ না করে এবং গরীব ও দরিদ্রদের কর্মস্থান না করে শুভঙ্করের ফাঁকির মাধ্যমে প্রকল্প সভাপতি ও চেয়ারম্যান লাভবান হয়।

প্রকল্প যেখানে শেষ হবে সেই বাড়ির মালিক ছিটু কাজী, প্রতিবেশী রমি সরদারের ছেলের বউ কুলছুম, প্রকল্পের রাস্তা দিয়ে নিয়মিত যাতায়াত করা মাছ ব্যবসায়ী সালাম মাঝি সহ বেদেপাড়ার লোকদের সাথে আলাপ হয়। তাদের মুখ থেকেই বেরিয়ে আসে প্রকল্পে কি ভাবে কাজ হয়েছে।

আলাপ কালে জানায়, রাস্তায় তেমন কোন মাটি লাগেনি। কোথাও কোথাও এক ওরা মাটি ফেলে ছিটিয়ে দেয়া হয়েছে। রাস্তার দুপাশে একটু বেশী মাটি দিয়েছে। এখানে ৩/৪ জন ওখানে ২/৩ জন এভাবে ১০/১৫ জন শ্রমিক মাঝে মধ্যে কাজ করেছে। সর্বশেষ রবিবার কাজ হয়েছে তার পরে রাস্তায় কোন কাজ করেনি। শুনেছি এ রাস্তায় আর কাজ করবে না।

প্রকল্প সভাপতি কোদালাপুর ইউপি ৪নং ওয়ার্ড সদস্য কাঞ্চন সরদার বলেন, মঙ্গল ও বুধবার প্রকল্পে কাজ করে নাই। বৃহস্পতিবার কাজ করে দিব।

কোদালপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এসএম মিজানুর রহমান বলেন, প্রকল্প সভাপতির বাড়িতে জমি নিয়ে দরবার ছিল তাই লেবার কাজ করেনাই। সামনে নির্বাচন তাছাড়া প্রকল্প সভাপতি ও মেম্বার কাঞ্চন সরদারের প্রতিপক্ষ রয়েছে তাই স্থানীয়রা বাড়িয়ে বলছে। আমি দেখেছি গতকাল (মঙ্গলবার) প্রকল্পে কাজ করেছে।

গোসাইরহাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সগীর হোসেন প্রকল্পে কাজের অনিয়মের বিষয় অবগত হয়ে প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা তাহমিনা আক্তার চৌধুরীকে ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ প্রদান করেন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

শিবগঞ্জের জঙ্গি আস্তানা

শিবগঞ্জের জঙ্গি আস্তানা থেকে চারজনের মরদেহ উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার :: চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবপুর উপজেলার শিবনগর গ্রামে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে একটি ...