পাচ বছরের আগের পুরানো মামলা যেন বিচারাধীন না থাকে: প্রধান বিচারপতি

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা জহিরুল ইসলাম শিবলু, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :: সংবাদপত্র ও মিডিয়া শক্তিশালী হলে দেশে অন্যায় অপরাধ কমে যাবে। সংবাদপত্র শক্তিশালী হওয়ার কারনে বিচার বিভাগের আগে সংবাদপত্রে খবর প্রকাশ পায়, তারপর বিচার বিভাগ জানে। তাই তিনি সংবাদের আলোকে বিচার সংশ্লিষ্ট বিভাগকে দেশের অন্যায়, অপরাধ মোকাবিলার উপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি উল্লেখ করেন, শান্তির জন্য আমাদের পূর্ব পুরুষরা ৩ হাজার বছর পূর্বে আইনকে প্রহরী হিসেবে রেখে গেছেন।

লক্ষ্মীপুর সার্কিট হাউজে বুধবার (১৩ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় ১ম ত্রৈমাসিক জুডিশিয়াল কনফারেন্সে জেলা জজ আখতার হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অথিতির বক্তব্যে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা এসব কথা বলেন।

তিনি বিচারকদের উদ্যেশ্যে বলেন, ৫ বছরের আগের পুরানো মামলা যেন বিচারাধীন না থাকে, আগামী তিন মাসের মধ্যে এসব মামলা নিষ্পত্তি করার নির্দেশ প্রদান করেন। দেশে ন্যায় বিচার নিশ্চিত করতে হবে। মামলা বছরের পর বছর নিষ্পত্তি না হলে মামলার ফরিয়াদি, স্বাক্ষী আগ্রহ হারিয়ে ফেলে। তাই ন্যায় বিচার নিশ্চিত করতে হলে দ্রুত মামলা নিষ্পত্তি করতে হবে।

তিনি বলেন, আমি প্রধান বিচাপতি হওয়া সত্বেও প্রতি মাসে ৭০-৮০টি মামলা নিষ্পত্তি করি। সম্প্রতি লক্ষ্মীপুরে আইনজীবিদের নতুন ভবন নির্মাণকে কেন্দ্র করে আইনজীবি ও বিচারকদের মধ্যে যে জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে, তা নিরসনের আশ্বাস প্রদান করেন।

লক্ষ্মীপুরে আইনজীবিদের আদালত বর্জনকে উদ্যেশ্য করে বলেন, সারা দেশে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র আইনজীবিদের আদালত বর্জন করা দুঃখজনক। বিচারকদের কোন ভূলত্রুটি থাকলে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে নিরসন করা উচিৎ। আইনজীবিরা আদালত বর্জন করলে বিচারপ্রার্থীরা দূর্ভোগে পড়তে হয়। বিচারপ্রার্থীরা যাতে দূর্ভোগে না পড়ে সে দিকে আমাদের খেয়াল রাখতে হবে।

তিনি বিচার সংশ্লিষ্ট পুলিশ, ডাক্তার ও আইনজীবিদের উদ্যেশ্য করে বলেন, বিচারকরা আভিযোগের ভিত্তিতে বিচার কার্য ও আসামীদের জামিন প্রদান করে থাকেন। তিনি পুলিশ বাহিনীকে আসামীদের সঠিক তথ্য ও কালক্ষেপন না করে দ্রুত আদালতে অভিযোগ দাখিলের নির্দেশ প্রদান করেন।

এসময় বক্তব্য রাখেন, অ্যার্টনী জেনারেল মাহবুবে আলম, বাংলাদেশ বার কাউন্সিল এর ভাইস প্রেসিডেন্ট এডভোকেট আবদুল বাসেত মজুমদার, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের রেজিষ্টার জেনারেল সৈয়দ আমিনুল ইসলাম, লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসক মোঃ জিল্লুর রহমান চৌধুরী, লক্ষ্মীপুর আইনজীবি সমিতির সভাপতি জি এম এইচ আবদুন নূর, সাধারন সম্পাদক মোঃ রফিক উল্যা, পিপি জসিম উদ্দিন ও জিপি শ্যামল কার্ন্তি চক্রবর্তী প্রমূখ। এর আগে দুপুরে প্রধান বিচারপতি লক্ষ্মীপুর জেলা দায়রা জজ ও চীফ জুডিশিয়াল আদালত পরিদর্শন করেন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

‘রামগতি উৎসব’

পারস্পরিক ভালোবাসার অনুপম দৃষ্টান্ত হয়ে রইল ‌‘রামগতি উৎসব’

সুলতান মাহমুদ আরিফ :: উৎসাহ, উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে শুক্রবার (২১ সেপ্টেম্বর) সফলতার সাথে ...