কোম্পানীগঞ্জে জামাত শিবির ও পুলিশ সংঘর্ষ: নিহত ৬, অফিসে আগুন

নোয়াখালী : নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে জামাত পুলিশ সংঘর্ষ হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার বসুরহাট পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডের উপজেলা গেইট সংলগ্ন উপজেলা মসজিদের সামনে শনিবার বিকাল ৪টায়। সংঘর্ষে শিবিরের ৫ নেতাকর্মী নিহত হয়েছে।

পুলিশসহ আহত হয়েছে অন্তত ২৫জন। বিক্ষুব্ধ শিবির কর্মীরা ৩টি সরকারী অফিসে অগ্নি সংযোগ করেছে।

নিহতের সংখ্যা নিয়ে পুলিশ ও জামাতের পক্ষ থেকে ভিন্ন ভিন্ন তথ্য পাওয়া গেছে। পুলিশ বলছে ৩। জামাত বলছে ৮। লাশের সন্ধান পাওয়া গেছে ৬।

প্রত্যড়্গদর্শীদের কাছ থেকে জানা যায়, গতকাল বিকাল ৪টার সময় ৩শতাধিক জামাত শিবির কর্মীরা্ব মিছিল সহকারে এসে বাজারে উঠার চেষ্টা করলে পুলিশ বাধা দেয়। এসময় শুরু হয় পুলিশ ও জামাত শিবিরের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ। সংঘর্ষের সময় পুলিশ মছিলটিকে লক্ষ্য করে গুলি করলে জামাত শিবিরকর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট পাটকেল ও ককটেল নিক্ষেপ করতে শুরম্ন করে।  পুলিশের গুলিতে শিবিরের সাথী সাইফুল ইসলাম(২৪), শিবির কর্মী আব্দুস ছাত্তার(২৮) শিবির কর্মী মতিউর রহমান, জামাত নেতা নূর হোসেন রাসেল((২৫), শিবিরের সাথী রায়হান(২৩), শিবিরের কর্মী সজিব, শিবিরের কর্মী মিশুসহ ৬ জন নিহত হয়। গুলিবিদ্ধ হয়ে ৩ পুলিশ সদস্যসহ, হয় অন্তত ২৫জন।

সংঘর্ষের সময় বিক্ষুব্দ জামাত শিবির কর্মীর উপজেলা ভূমি অফিস, উপজেলা সেটেলম্যান্ট অফিস, পাবলিক হেলথ ও পোস্ট অফিসে আগুন ধরিয়ে দেয়।

আহতদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স ও নোয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। সংঘর্ষের সংবাদ পেয়ে কোম্পানীগঞ্জে বিজিবি ও র‌্যাব মোতায়েন করা হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে জানানো হয়, হাসপাতালে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ভর্তি করানোর পর সবুজ (২৪) ও অজ্ঞাত ১ জন নিহত হয়েছে। নিহত দুই জনের লাশ শিবির কর্মীরা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। অপরদিকে সংঘর্ষে নিহত আরো ৩ জনের লাশ রাসত্মা থেকে পুলিশ থানায় নিয়ে আসে। তবে এদের কারো পরিচয় জানা যায়নি। তবে সকলেই শিবিরের মিছিলে ছিল বলে পুলিশ এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। এ ঘটনার পরপরই কোম্পানীগঞ্জের সর্বত্র আতংক বিরাজ করছে। বাজারের সকল প্রকার দোকান পাট বন্ধ হয়ে গেছে।

এ ঘটনায় উপজেলা জামায়াতের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মোশারফ হোসেন জানান, পুলিশ আমাদেরকে শানিত্মপূর্ণ মিছিলের অনুমতি দিয়ে বিনা উস্কানিতে গুলি চালিয়ে আমাদের দলীয় ৭জনকে হত্যা করেছে।

এ বিষয়ে কেম্পানানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ এম সাজেদুর রহমান জানান, জামাত শিবির কর্মীরা পুলিশের উপর হামলা চালালে পুলিশ আত্মরক্ষার্থে গুলি চালালে শিবিরের ৩ জন নিহত হয়। ৭ জন নিহতের বিষয় তিনি জানেননা বলে এ প্রতিবেদককে জানান।

হাসান ইমাম রাসেল/

 

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

শিবগঞ্জের জঙ্গি আস্তানা

শিবগঞ্জের জঙ্গি আস্তানা থেকে চারজনের মরদেহ উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার :: চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবপুর উপজেলার শিবনগর গ্রামে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে একটি ...