নামের প্রথম অক্ষর ও আপনার ব্যক্তিত্ব

নামের প্রথম অক্ষর ও আপনার ব্যক্তিত্বডেস্ক নিউজ :: নামের প্রথম অক্ষর থেকে নাকি স্বভাবও বেশ খানিকটা বোঝা যায়। ইন্টারেস্টিং, তাই না? তবে মনে রাখবেন ব্যতিক্রম সব জায়গাতেই থাকে। তাহলে দেখে নিন, আপনার নামের প্রথম অক্ষরের সাথে স্বভাবের মিল আছে কিনা।

A– এই অক্ষর দিয়ে যাদের নাম শুরু হয়, তারা ব্যবসা ভালো বোঝেন। ক্ষেত্রবিশেষে ধৈর্য্য কম থাকে আপনার।
B– আপনি কিন্তু রোমান্টিক।প্রিয়জনের কাছ থেকে উপহার পেতে ভালোবাসেন।
C- সম্পর্কের মূল্য দেন। আন্তরিকতা পছন্দ করেন। খুব সংবেদনশীল হন।
D- যেটা মনে মনে চান সেটা আদায় করেই ছাড়েন।স্বভাবগত দিক থেকে আপনি কেয়ারিং।উচ্চাকাঙ্খী ও বিশ্বস্ত হওয়ার সাথে সাথে আপনি কখনো আবার পরশ্রীকাতর।

E– খুব বেশি কথা বলতে ভালোবাসেন। অসততা অপছন্দ।
F- এই অক্ষর দিয়ে যাদের নাম শুরু হয় তারা আদর্শবাদী ও রোমান্টিক প্রকৃতির হন। তবে দেখনদারিও আপনি পছন্দ করেন।

G- ভীষণ খুঁতখুঁতে প্রকৃতির।খুব পরিশ্রমীও হন এরা। লক্ষ্যে পৌঁছতে প্রচণ্ড খাটতে পারেন।
H- আপনার মধ্যে স্নেহ, মমতা রয়েছে। মানসিকভাবে খুব দৃঢ় হন এরা সাধারণত।হার্ডকোর পারফেকশনিস্ট। এদের সহজে সন্তুষ্ট করা যায় না।

I- বিলাসিতা ভালোবাসেন। সম্পর্কের ব্যাপারে খুব একটা বিশ্বস্ত নন।
J- প্রচণ্ড পরিশ্রমী। লং ডিসটেন্স রিলেশনশিপে এরা খুব স্বচ্ছন্দ্য হন।প্রেমে আস্থা রাখেন।
K- গুটিয়ে যাওয়া, লাজুক প্রকৃতির। তবে খুব বেশি ছক করে, প্ল্যান করে চলতে ভালোবাসেন। আপনার মধ্যে দয়া-মায়া রয়েছে।

L- অত্যন্ত রোমান্টিক। আপনার পার্টনার আপনার কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।ইন্টেলেকট্যুয়াল পার্টনারই আপনি বেশি পছন্দ করেন।

M- দ্বিমুখী স্বভাবের। যেমনটা দেখান, সেরকম আপনি আদতে না-ও হতে পারেন।নিজের আবেগ প্রকাশ করতে আপনি খুব একটা স্বচ্ছন্দ্যবোধ করেন না।

N- আপনি আবেগপ্রবণ। সম্পর্কের গভীরতা বোঝেন।সবকিছুতেই নিজের হাত পাকাতে পছন্দ করেন।
O- স্বাভাবের দিক থেকে হাসিখুশি ও মজাদার হলেও সিরিয়াসলি কাজ করে টাকা জমাতে আপনি পছন্দ করেন।অতিরিক্ত পজেসিভনেস আপনার সমস্যার কারণ হয়ে উঠতে পারে।
P-সামাজিকতা ও স্টেটাস সম্পর্কে আপনি খুব সচেতন।আপনার পার্টনার সুন্দরী ও ইন্টেলিজেন্ট হওয়াই কাম্য।

Q- সবসময় নিজেকে কাজের মধ্যে রাখতে ভালোবাসেন।অন্যের আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে থাকা আপনার পছন্দের।সাদা ফুল আপনার খুব পছন্দের।

R- নিজেকে সবসময় সেরা প্রমাণ করার তাগিদ রয়েছে আপনার ভিতর।
S- আদর্শবাদী মানষিকতা খুবই কম, রোমান্টিক তবে বহুগামী হতে পারেন। কথা দিয়ে কথা রাখতে পছন্দ করেন না। তবে অনেক মিশুক টাইপের হয়ে থাকেন।

T- আপনি খুব সংবেদনশীল। ব্যক্তিগত স্পেসে কাউকে ঢুকতে দেন না। প্রেমে পড়লেও খুব একটা অনুভূতি প্রকাশ আপনার পছন্দ নয়।

U- প্রেম আপনার কাছে একটা চ্যালেঞ্জ। তাই প্রেমহীন জীবনের কল্পনাও আপনি করতে পারেন না।অন্যকে উপহার দিতে ভালোবাসেন।

V- অত্যন্ত স্বাধীনচেতা। সম্পর্কে স্পেস পছন্দ করেন।কখনও কখন একটু ছটফটে।
W- অত্যন্ত অহংকারী। প্রেমের ব্যাপারে চট করে মুখ খুলতে চান না।ইগো আপনার বড় সমস্যা। প্রেমিক হিসেবে খুব একটা বিশ্বস্ত নন।

X- অল্পেতেই বোর হয়ে যান।একসঙ্গে দুটো কাজ অনায়াসে করতে পারেন আপনি।
Y- কোনো কিছু আপনার মনের মতো না হলে তক্ষুণি আপনি তা ছেড়ে দেন।প্রতিযোগিতার দৌড়ে সামিল হওয়া আপনার পছন্দের।

Z- অত্যন্ত রোমান্টিক। প্রেমিকাকে আগলে রাখাই আপনার জীবনের মূল লক্ষ্য।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

জানালার কাঁচ ভেদ করা রোদ কি ভিটামিন ডি দিতে পারে?

কে না চায়, সূর্যের নরম রোদ জানালার কাঁচ ভেদ করে আলতো করে ...