দ্বিতীয় দিনেই ধর্না প্রত্যাহার কেজরিওয়ালের

কলকাতা : দ্বিতীয় দিনের মাথায় ধর্না প্রত্যাহার করে নিলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী তথা আম আদমি পার্টির নেতা অরবিন্দ কেজরিওয়াল। অভিযুক্ত দুই পুলিশকর্মীকে ছুটিতে পাঠানোর কেন্দ্রীয় সরকারের সিদ্ধান্তের পরই ধর্না প্রত্যাহার করে নেন কেজরিওয়াল। এদিন সন্ধ্যায় দিল্লির উপরাজ্যপাল নজিব জং-এর তরফে অভিযুক্ত পুলিশ কর্মীদের বিরুদ্ধে তদন্তের আশ্বাস দেওয়া হয় কেজরিওয়ালকে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে উপরাজ্যপাল জং মুখ্যমন্ত্রীকে জানান, অভিযুক্ত দুই পুলিশ কর্মীদের ছুটিতে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত অভিযুক্ত পুলিশকর্মীরা ছুটিতেই থাকবেন। আগামী ২৬ তারিখ ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসের পবিত্রতা ও জাতীয় নিরাপত্তার খাতিরে ধর্না প্রত্যাহারের আবেদন জানান উপরাজ্যপাল। এরপরই রাত সাড়ে আটটা নাগাদ দুইদিনের ধর্না প্রত্যাহার করেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী।

পরে সভাস্থল থেকে কেজরিয়াল দাবি করেন ‘আমাদের আংশিক দাবি পূরণ হয়েছে’। দাবী আদায়ে আগামী দিনে আন্দোলন জারি থাকবে বলেও এদিন জানান কেজরিওয়াল।

পুলিশকর্মীদের বরখাস্ত এবং দিল্লি পুলিশের দায়িত্ব স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের হাত থেক নিয়ে দিল্লি রাজ্য সরকারের হাতে তুলে দেওয়ার দাবিতে গত সোমবার দিল্লির রেল ভবনের সামনে ধর্নায় বসে আম আদমি পার্টির সরকার। মুখ্যমন্ত্রী ছাড়াও এই ধর্নায় সামিল হয়েছিল মন্ত্রিসভার অন্যান্য সদস্য এবং দলের কর্মী সমর্থকরাও। প্রথমদিন শান্তিপূর্ণ ধর্না হলেও দ্বিতীয় দিনেই চরম বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হয়। দলের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয় তাদের দাবি মানা না হলে ধর্না জারি থাকবে। অনড় থাকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকও। মন্ত্রকের তরফে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয় পুলিশকর্মীদের বরখাস্ত করা হবে না। এরপরই আন্দোলন জোরদার করে কেজরিওয়াল। আপ’এর তরফে পুলিশের ব্যারিকেড ভাঙার চেষ্টা করা হয়, পুলিশকে লক্ষ্য করে আপ’এর কর্মী সমর্থকরা ইঁট,পাটকেলও ছোঁড়ে বলে অভিযোগ । ঘটনায় দুইজন পুলিশকর্মী আহত হন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে একসময় লাঠিপেটা করতে হয় পুলিশকে।

কলকাতা

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

সুদানে বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ১৯ জন নিহত

ষ্টাফ রিপোর্টার :: দক্ষিণ সুদানে বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ১৯ জন মারা গেছে। ...