দীর্ঘ জীবনের জন্য ব্যবহার করুন ‘পা’

obesegrahpicইউনাইটেড নিউজ ডেস্ক :: আজকের দিনটি আপনি কিভাবে কাটালেন তা দেখেই আপনার আয়ু সম্পর্কে ধারণা পাওয়া সম্ভব। কারণ আজকের দিনটি আপনার যদি কর্মদিবস হয় আর এ সময় আপনি তেমন কোনো শারীরিক পরিশ্রম না করেন তাহলে এ বিষয়টি অনেকটা পরিষ্কার হয়ে যায়। শারীরিক পরিশ্রম ছাড়া থাকলে আপনার যেমন স্বাস্থ্য খারাপ হবে তেমন আয়ুও কমবে। এ লেখায় থাকছে সুস্থতার জন্য চার উপায়। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে হিন্দুস্তান টাইমস।

১. হাঁটুন
হাঁটা উত্তম ব্যায়াম। আপনার যদি শারীরিক পরিশ্রম বা ব্যায়াম করার অভ্যাস না থাকে তাহলে প্রতিদিন কিছুদূর অন্তত হেঁটে দেখুন। এতে আপনার শরীরের যথেষ্ট উপকার হবে। প্রতিদিন যদি ২০ মিনিট করে হাঁটা যায় তাহলে অকালে মৃত্যুর সম্ভাবনা কিছুটা হলেও কমবে।

২. উঠে দাঁড়ান
আপনার কি সারাদিন বসে থাকা অভ্যাস? তাহলে এটি আপনার জীবনে সুস্থ থাকার অন্যতম ঝুঁকি। এ অভ্যাস বাদ দিন। অন্যথায় নানা রোগ-ব্যাধী আপনাকে গ্রাস করবে। সাম্প্রতিক এক গবেষণাতেও বিষয়টি প্রমাণিত হয়েছে। বসে থাকার বদলে কিছুক্ষণ পর পর হাঁটা বা দাঁড়িয়ে থাকাও এ সমস্যা কিছুটা লাঘব করতে পারে।

৩. ওজন লক্ষ্য করুন

দেহের ওজন আপনার সুস্থতার একটি বড় মাপকাঠি। এক্ষেত্রে বডিম্যাস ইনডেস্ক দেখতে পারেন। আপনার বডিম্যাস ইনডেস্ক যদি হয় ১৮.৫-এর কম তাহলে আপনার দেহের ওজন কম। অন্যদিকে ১৮.৫ থেকে ২৩ পর্যন্ত স্বাভাবিক ওজন বলা যায়। ২৩ থেকে ২৫ হলে দেহের ওজন অতিরিক্ত। তবে এ ইনডেস্ক যদি হয় ২৫-এর বেশি তাহলে তা মাত্রাতিরিক্ত ওজন বা স্থূল বলে ধরতে হবে।

৪. সময় সম্পর্কে সচেতন হোন
আপনি দিনের কত সময় বসে থাকেন, কত সময় বিশ্রাম করেন কিংবা কত সময় অলসভাবে কাটান, তা সুস্থতার জন্য গুরুত্বপূর্ণ। সুস্থতার জন্য প্রতি আধ ঘণ্টা সময় বসে থাকলে আপনার কমপক্ষে তিন মিনিট সময় দাঁড়িয়ে বা কোনো শারীরিক পরিশ্রম করে কাটানো উচিত। এ হিসাব ধরে প্রতিদিন পর্যাপ্ত সময় হাঁটা বা কাজ করা হয় কি না, সে সম্পর্কে সচেতন হোন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মহিলা ও শিশু হাসপাতাল উদ্বোধন

নতুন মহিলা ও শিশু হাসপাতাল উদ্বোধন

স্টাফ রিপোর্টার :: মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি ...