ব্রেকিং নিউজ

দিনাজপুরে গমের বাম্পার আবাদ

দিনাজপুর : দিনাজপুরে এবার লক্ষমাত্রার চেয়েও বেশী গম উৎপাদন হয়েছে।

দিনাজপুর জেলায় ১৬ হাজার ৫৪৬ হেক্টর জমিতে গম উৎপাদনের লক্ষমাত্রা নির্ধারন করা হলেও লক্ষমাত্রা অতিক্রম করে মোট অর্জিত হযেছে ২১ হাজার ২২৫ হেক্টর জমিতে। এবার উৎপাদন হবে ৫৮ হাজার ২১০ মেট্রিক টন গম।

দিনাজপুর কৃষি অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আনোয়ারুল আলম জানান, চলতি বছর অনুকুল আবহাওয়া এবং গম আবাদের জন্য পর্যাপ্ত পরিমানে কৃষি উপকরন সরবরাহ থাকায় লক্ষমাত্রার অতিরিক্ত ৪ হাজার ৭৮৯ হেক্টর জমিতে গমের বাম্পার ফলন অর্জিত হয়েছে।

চলতি বছরে জেলায় গম আবাদের লক্ষমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছিলো ১৬ হাজার ৫৪৬ মেট্রিক টন। উৎপাদন লক্ষমাত্রা প্রতি হেক্টর ২ দশমিক ৮ মেট্রিক টন নির্ধারন করা হয়। কিন্তু মৌসুমের শুরুতে গত ১৫ নভেম্বর থেকে ২০ জানুযারী পর্যন্ত জেলার উচু ও মাঝারি জমিতে গমের চাষ করা হয়েছে। অনুকুল আবহাওয়া ও উপকরন সরবরাহ থাকায় ২১ হাজার ২২৫ হেক্টর জমিতে গম উৎপাদন অর্জিত হয়েছে। অর্জিত গমের ফলন হবে ৫৮ হাজার ২১০ মেট্রিক টন।

এবার জেলার ১৩টি থানায় হাই ব্রিড ও দেশীয় ভ্র্যাইটি গম প্রদীপ, বিজয়, শতাব্দী, গৌরব, সৌরভ, প্রতিভা, বারী, ২৫, ২৬ ও স্বরর্ন জাতের গম কৃষকেরা বেশী চাষ করেছে। এসকল গমের ফলন লক্ষমাত্রার চেয়েও বেশী উৎপাদন হচ্ছে।

গত বছরের তুলনায় এবছর ৪ হাজার ৮৭৯ হেক্টর জমিতে গমের আবাদ বেশী হয়েছে। গত বছর কৃষকেরা ভালো ফলন ও মূল্য পাওয়ায় চলতি বছরে কৃষকেরার উচু ও মাঝারি জমিতে গম চাষ করেছে।

জেলার চিরিরবন্দর উপজেলার কৃষক ফারুক জানান, এবার গম আবাদ করে লাভবান হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে।

মাহিদুল ইসলাম রিপন/

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

পলাশবাড়ীতে মরিচের বাম্পার ফলনেও হাসি নেই চাষিদের মুখে

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল। গাইবান্ধা: বাম্পার ফলনেও হাসি নেই গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী উপজেলার ...