ব্রেকিং নিউজ

থার্টি ফাস্ট নাটে কক্সবাজার মাতাবেন দুই ইন্ডিয়ান আইডল

ইংরেজী বর্ষের শেষ রজনী থার্টি ফাস্ট নাইট পালনে কক্সবাজার সাজঁছে বিচিত্র বর্ণে। আর তাই কক্সবাজারের তারকা মানের হোটেলে এবং  সুমদ্র সৈকতে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও সংগঠনের পক্ষ থেকে সাংস্কৃতিক কার্যক্রম আয়োজনের ধুম পড়েছে। বরাবরের মতো দেশীয় সংস্কৃতির পাশাপাশি পাশ্চাত্য সংস্কৃতির আগ্রাসন প্রাধান্য পাবে এবারের আয়োজনে।

কারণ গত এক বছরে পাঁচ তারকা ও তিন তারকা মানের হোটেলের সংখ্যা বেড়েছে ১০/১৫টি। দেশী পর্যটকদের পাশাপাশি বিদেশী পর্যটকরাও থাকবে থার্টি ফাস্ট নাইন পালনে বিশ্ব সেরা দীর্ঘ তম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজারে। পর্যটন নগরীকে নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তার চাদরে ডাকাতে প্রস’তি সম্পন্ন করেছে প্রশাসন। হোটেল মালিক সমিতি জানায়, জেলা শহরের সাড়ে ৪ শতাধিক হোটেল মোটেল গেষ্ট হাউস,রেস্ট হাউস ও কটেজ সমুহে তিল ধারনের জায়গা থাকবে না। থার্টি ফাস্ট নাইট পালন উপলক্ষ্যে রাজনৈতিক সংগঠন, সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন ও প্রশাসনের পক্ষ থেকে বাড়তি বিনোদনের ব্যবস’া করা হয়েছে।

তবে সংশ্ল্লিষ্ট প্রশাসন জানিয়েছেন,বিনোদনের নামে অরাজকতা সৃষ্টি,আইনশৃংঙ্খলা পরিসি’তির অবনতি ও পরিকল্পিত ত্রাস সৃষ্টিকারীদের বিশেষ নজরদারীতে রাখবেন বলে জানিয়েছেন কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক জয়নুল বারী। হোটেল মোটেল জোনের তারকা মানের হোটেল গুলোতেও চলবে ডিজে পার্টি, ফ্যাশন শো ও পপ নৃত্যসহ হরেক বকমের পশ্চিমা ধাচের অনুষ্ঠান মালা । ইতোমধ্যে ওই সব প্রতিষ্ঠান গুলো তাদের সকল প্রস’সি- সম্পন্ন করেছে। অপ্রীতিকর ঘটনা ও নাশকতা এড়াতে প্রশাসন পর্যটন নগরীকে নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তার চাদরে ডাকাতে প্রস’তি নিয়েছে বলে জানান কক্সবাজারের পুলিশ সুপার সেলিম মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর।

এ ছাড়া হোটেল মোটেল জোনের কয়েকটি তারকা মানের হোটেলে নৃত্যের আয়োজন করেছে। ভারতের বেশ কয়েক জন নামী দামী নৃত্য শিল্পীকে ইতোমধ্যে আমন্ত্রন জানানো হয়েছে। বছরের শেষ দিন ‘থার্টিফার্স্ট নাইট’ উদযাপন উপলক্ষে কক্সবাজারের লং বিচ হোটেলে আয়োজিত কনসার্টে পারফর্ম করবেন ইন্ডিয়ান আইডল অদিতি পাল ও পারলিন গিল এবং ডি জে হার্দিক। ৩১ ডিসেম্বর শনিবার রাত ৮ টায় শুরু হয়ে মধ্য রাত পর্যন- চলবে এই কনসার্ট।

এ প্রসঙ্গে এই কনসার্টের অন্যতম আয়োজক লং বিচ হোটেলের ব্যবস’াপনা পরিচালক আবুল কালাম আজাদ জানিয়েছেন, ‘ইন্ডিয়ান আইডল অদিতি পাল, ইন্ডিয়ান আইডল ও রকস্টার পারলিন গিল এবং ‘দ্য মিউজিক মেশিন’খ্যাত ডি জে হার্দিক আগামি ৩০ ডিসেম্বর ঢাকা হয়ে কক্সবাজার আসবেন। এই আয়োজনটির জন্য সবরকম সহযোগিতা করছে কক্সবাজার জেলা প্রশাসন।’
এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জয়নুল বারী ও পুলিশ সুপার সেলিম মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর জানিয়েছেন, মন্ত্রণালয় থেকে অনুমতি নিয়ে হোটেল লং বীচ এ অনুষ্টানটির আয়োজন করা হয়েছে। অতিথি হিসেবে আমন্ত্রণ করা হয়েছে ‘ইন্ডিয়ান আইডল অদিতি পাল, ইন্ডিয়ান আইডল ও রকস্টার পারলিন গিল এবং ‘দ্য মিউজিক মেশিন’খ্যাত ডি জে হার্দিককে। এ অনুষ্ঠান সফল করতে জেলা প্রশাসন সর্বাত্বক সহযোগিতা করবেন বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসন।

আয়োজক সূত্রে জানা গেছে, কনসার্ট দেখতে হলে আগেই টিকিট সংগ্রহ করতে হবে। টিকিটের মূল্য ধরা হয়েছে ৫ হাজার, ৪ হাজার এবং ৩ হাজার টাকা। টিকিট পাওয়া যাচ্ছে লং বিচ হোটেলের ঢাকা অফিসে। আয়োজক সূত্রে জানা গেছে, এই কনসার্ট দেখতে চাইলে আগেই টিকিট সংগ্রহ করতে হবে। টিকিটের মূল্য ধরা হয়েছে ৫ হাজার, ৪ হাজার এবং ৩ হাজার টাকা। টিকিট পাওয়া যাবে লং বিচ হোটেলের ঢাকা অফিসে।

বেসরকারী মোবাইল অপারেটর কোম্পানী এয়ার টেল আয়োজন করেছে বীচ ফেস্ট কক্সবাজার নামের লাইভ প্রোগ্রাম। এই অনুষ্ঠানে দেশের বরেণ্য ব্যান্ড দল এলআরবি ,সোলস,দল ছুট ও লালন গান পরিবেশন করার কথা রয়েছে। আরো বেশ কয়েকটি সংগঠন অনুরুপ ভাবে বিভিন্ন অনুষ্ঠান মালা সৈকতে আয়োজন করবে বলে জানা গেছে।কয়েক দিন আগে থেকে সমুদ্র সৈকত ও আশপাশের এলাকায় নিরাপত্তা ব্যবস’া রোজদার করা হবে বলে জানান কক্সবাজারের পুলিশ সুপার সেলিম মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর।

এই দিকে থার্টি ফার্স্ব নাইটে নাশকতামূলক কর্মকাণ্ডসহ যেকোনও ধরনের উচ্ছৃঙ্খল কার্যক্রম ঠেকাতে পর্যটন শহর কক্সবাজারকে ৩ টি সেক্টরে ভাগ করে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস’া গ্রহণ করবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। নিরাপত্তায় র‌্যাব ও পুলিশের ৭ শতাধিক সদস্য নিয়োজিত থাকবে। কক্সবাজার মডেল থানা পুলিশের পাশাপাশি অতিরিক্ত এসব পুলিশ সদস্য মোতায়েন করার সিদ্ধান্ত  নেওয়া হয়েছে। বর্ষবরণে রাতে নারী পর্যটকের নিরাপত্তা রক্ষায় বিপুল সংখ্যক নারী পুলিশ মাঠে থাকবে বলে জানিয়েছেন পুলিশ সুপার সেলিম মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর।

সূত্র জানায়, ইংরেজি বর্ষবরণ করতে উৎসব ঘিরে যাতে কোনও ধরনের নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড না ঘটে সেজন্য সাদা পোশাকে গোয়েন্দাদেরও প্রস’ত রাখা হবে। নিরাপত্তার স্বার্থেই নগরীর কোথাও এক সঙ্গে বিপুল সংখ্যক নারী-পুরুষকে জমায়েত হতে দেবে না পুলিশ। সন্ধ্যার পর থেকে সংশ্লিষ্ট এলাকার বাসিন্দা ছাড়া কাউকে ভেতরে ঢুকতে দেওয়া হবে না। এসব এলাকায় বহিরাগতদের ওপর কঠোর নজরদারি করা হবে।

পুলিশ সুপার সেলিম মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর বলেছেন, থার্টিফাস্ট নাইট উপলক্ষে পর্যটন শহর কক্সবাজারে পুলিশের ৭শতাধিক সদস্য মোতায়েন রাখা হবে।

র‌্যাব ৭ কক্সবাজার ক্যাম্পের ইনচার্জ ক্যাপ্টেন মোহাম্মদ সিরাজ জানান, থার্টিফাস্ট নাইট উপলক্ষে পর্যটন শহর কক্সবাজারে লাখো মানুষের সমাগম হবে। আর তাদের নিরাপত্তার জন্য পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাবের একটি বিশেষ টইল মাঠে থাকবে।

কালাম আজাদ, কক্সবাজার থেকে

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

আরমান আলিফিরে নতুন গান ‌‌‘কার বুকেতে হাসো’

আরমান আলিফিরে নতুন গান ‌‌‘কার বুকেতে হাসো’ (ভিডিওসহ)

স্টাফ রিপোর্টার :: ‌সুপারহিট গান ‘বেঈমান’-এর ঠিক এক মাসের ব্যবধানে নতুন গান-ভিডিও ...