তাসের চার রাজার কাহিনি

i-kingsইউনাইটেড নিউজ ডেস্ক :: চার দেওয়ালের মধ্যে বসে খেলা যায়, এমন খেলাগুলির মধ্যে বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় অবশ্যই তাস। তাসের একটি খেলাও জানেন না, এমন মানুষ হয়তো হাতে গোনা। সাহেব, বিবি, গোলাম, টেক্কা, হরতন, চিরে, ইস্কাবন শব্দগুলির সঙ্গে সকলেই অল্পবিস্তর পরিচিত।

বিশেষ করে বাঙালির বিনোদনের একটা বড় জায়গা বহু শতাব্দি আগে থেকেই রয়েছে তাসের দখলে। তাসে চারটে রাজা থাকে। জানেন কি, তাসের প্রত্যেকটি রাজাই বাস্তবেও এক একজন বিখ্যাত রাজা ছিলেন। যাঁরা এক সময় দাপিয়ে সাম্রাজ্য বাড়িয়েছেন বিশ্বজুড়ে। চিনে নেওয়া যাক সেই রাজাদের।

কালোপানের রাজা বা ইস্কাবনের রাজা আসলে কিং ডেভিড। ফরাসি শব্দে স্পেডস মানে হল তলোয়ার। অর্থাত্‍ রাজা ডেভিডের হাতে তলোয়ার। কিং অফ সোর্ডস। বাইবেলের সেই বিখ্যাত রাজা যিনি ইজরায়েল শাসন করেছিলেন। বাইবেলের মতে, রাজা ডেভিড যিশু খ্রিস্টের পূর্বপুরুষ। কালোপানের রাজার বৈশিষ্ট্য হল, তিনি আবেগের বশে কোনও কাজ করেন না। বিচার-বুদ্ধি দিয়ে বিবেচনা করে তবেই সিদ্ধান্ত নেন।

হরতন বা হার্টস-এর রাজা হলেন এক সময়ের ফ্রান্সের রাজা চার্লস। হরতনের রাজাকে অনেকেই ‘আত্মঘাতী রাজা’ বলে থাকেন। কারণ তাসে দেখা যায়, এই রাজা তলোয়ারটি তাঁর মাথায় ঠেকিয়ে রেখেছেন। যেন নিজেকে হত্যা করতে উদ্যত। এবং লক্ষ করে দেখবেন, বাকি তাসের রাজাগুলির মধ্যে একমাত্র হরতনের রাজারই গোঁফ নেই।

রুইতনের রাজা হলেন প্রাচীন রোমের বিখ্যাত শাসক, রাজনীতিবিদ ও সাহিত্যিক জুলিয়াস সিজার। একটা দীর্ঘ সময় রোমের রাজনীতির নিয়ন্ত্রণ সিজারের হাতেই। এমনকি ইতিহাস বলছে, বিখ্যাত রোম সাম্রাজ্যের উত্থানেও জুলিয়াস সিজারের বড় ভূমিকা ছিল।

চিড়েতন বা ক্লাব্স-এর রাজা হলেন প্রাচীন গ্রিসের ম্যাসিডোনিয়ার সম্রাট অ্যালেকজান্ডার। এক নামেই যাঁকে চেনেন তামাম দুনিয়া। গ্রিস থেকে মিশর ও উত্তর-পশ্চিম ভারত পর্যন্ত সাম্রাজ্য বিস্তার ছিল অ্যালেকজান্ডারের।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

শিবগঞ্জের জঙ্গি আস্তানা

শিবগঞ্জের জঙ্গি আস্তানা থেকে চারজনের মরদেহ উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার :: চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবপুর উপজেলার শিবনগর গ্রামে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে একটি ...