ঢাকায় প্রতিদিন ২১১ কোটি লিটার পানি লাগে: মসিউর রহমান রাঙ্গাঁ

পানির অপব্যবহার রোধ করতে হবে

স্টাফ রিপোর্টার :: স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মোঃ মসিউর রহমান রাঙ্গাঁ বলেন, পানির গুরুত্বের শেষ নাই। পানি না থাকলে পানির কষ্ট বোঝা যায়। বিশ্বের অনেক দেশের নিজস্ব খাবার পানি নাই। তবে আমরা তো পানি পাচ্ছি। সচেতনতার অভাবে আমরা পানির অপচয় করি। অন্যদিকে আমাদের দক্ষিণাঞ্চলে পানি থাকার পরও মানুষ ব্যবহার করতে পারে না। ঢাকায় প্রতিদিন ২১১ কোটি লিটার পানি লাগে। যার বেশিরভাগ মাটির নিচে থেকে তুলতে হয়। পানির অপব্যবহার রোধ করতে হবে।

শনিবার (৫ মে) ইত্তেফাকের কার্যালয়ে হেলভিটাস সুইস ইন্টারকোঅপারেশনের সহযোগিতায় ডরপ ও ইত্তেফাকের-এর যৌথ উদ্যোগে প্রাক বাজেট আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় বক্তারা বলেন, ‘বাজেট ২০১৮-১৯: প্রেক্ষিত এসডিজি-৬’ শীর্ষক আলোচনা সভায় বক্তারা বলেছেন, আমাদের গ্রামাঞ্চলের ১৩ শতাংশ মানুষ উন্নত উৎসের পানি সুবিধার আওতার বাহিরে আছে। সকল নাগরিকের জন্য সুযোগের সমতা বিধান নিশ্চিত করার পাশাপাশি এসডিজি অর্জনে পানি ও স্যানিটেশন খাতকে বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে এ খাতে বাজেট বরাদ্দ বাড়াতে হবে। রাজধানী ঢাকায় নিরাপদ পানির অভাব একটা অন্যতম কারন হয়ে দাড়িয়েছে। এসডিজি অর্জনে নিরাপদ পানি এখন সময়ের দাবি।

ইত্তেফাকের অর্থ ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক জামাল উদ্দীনের সঞ্চালনায় এবং ইত্তেফাকের বার্তা সম্পাদক মলয় পাঁড়ে এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মোঃ মসিউর রহমান রাঙ্গাঁ। বিশেষ অতিথি ছিলেন সংরক্ষিত নারী আসন (চাঁদপুর-লক্ষীপুর) এর সংসদ সদস্য নূরজাহান বেগম মুক্তা।

ডরপ এর চেয়ারম্যান মোঃ আজহার আলী তালুকদার এর স্বাগত বক্তব্যে আলোচনা সভায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিআইআইএসএস এর গবেষণা পরিচালক ড. মাহফুজ কবীর ও ডরপ এর গবেষণা পরিচালক মোহাম্মদ যোবায়েদ হাসান।

আলোচনা সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব বেগম হোসনে আরা আক্তার, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. রুমানা হক, ডরপ এর প্রতিষ্ঠাতা এএইচএম নোমান, ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক ড. হামিদুল হক, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের সাবেক প্রধান প্রকৌশলী মো. ওয়ালী উল্লাহ, হেলভিটাস সুইস ইন্টারকোঅপারেশনের প্রজেক্ট ম্যানেজার মোস্তাফিজুর রহমান, পাইকগাছা উপজেলার কপিলমনি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ কাউসার আলী জমাদ্দার প্রমুখ।

 

 

 

 

 

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

বাংলাদেশিদের ‘উইপোকা’ বললেন বিজেপি সভাপতি

ডেস্ক রিপোর্ট :: ভারতীয় জনতা দল-বিজেপির সভাপতি অমিত শাহ বলেছেন, ‘‘বাংলাদেশি অভিবাসীরা ...