ঠাকুরগাঁওয়ে স্বামী-সতীনের নির্যাতনে গৃহবধু হাসপাতালে

নির্যাতন
আব্দুল কাদের জিলানীঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি :: ঠাকুরগাঁওয়ে  স্বামী ও সতীনের হাতে পাশবিক নির্যাতনের শিকার হয়ে হসপাতালের বিছানায় শুয়ে যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছেন রোকসানা ইয়াসমিন লিলি নামে এক গৃহবধূ।
শনিবার দুপুরে ওই গৃহবধূকে ঠাকুরগাঁও শহরের কলেজ পাড়া এলাকা থেকে উদ্ধার করে আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
এ ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছেন স্বামী মনসুর খান ও তার প্রথম স্ত্রী ইলা বেগম।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, কত কয়েক বছর আগে ঠাকুরগাঁও শহরের কলেজপাড়া এলাকার মনসুর খান দ্বিতীয় বিয়ে করে একই এলাকার রোকসানা ইয়াসমিন লিলিকে । এরপর লিলি সন্তানও জন্ম দেয় মনুসরের সংসারে। এই বিয়ে নিয়ে মনসুরের প্রথম স্ত্রী ইলা বেগম দীর্ঘদিন যাবত লিলির সাথে মত বিরোধ সৃষ্টি হয়।
এরপর থেকেই শুরু হয় লিলি আক্তারের উপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন। পারিবারিক বিরোধের জের ধরে গত কয়েক দিন আগে মনসুর আলী ও সতীন ইলা বেগম মানসিক নির্যাতন শুরু করে রোকসানা ইয়াসমিন লিলির উপর।
মঙ্গলবার ভোর রাত থেকে লিলি আক্তারের সঙ্গে চলছিল  স্বামী মনসুর খান ও সতীন ইলা বেগমের পাশবিক নির্যাতন। ওই গৃহবধূর আর্তচিৎকারে প্রতিবেশিরা টের পেয়ে আত্নীয় স্বজনদের খবর দেয়। এরপর স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।
নির্যাতিত গৃহবধূর ভাই আলম জানান, আমার বোনকে দীর্ঘদিন ধরে মানসিক ও পাশবিক নির্যাতন করা হচ্ছে। নির্যাতনের  ঘটনার জড়িতদের বিরুদ্ধে থানায় মামলার প্রস্তুুতি চলছে।
গৃহবধূর স্বামী মনসুর খানের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে মুঠোফোনে পাওয়া যায়নি
সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল লতিফ মিঞা  জানান, গৃহবধূকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ গৃহবধূর খোঁজখবর নেওয়ার জন্য হাসপাতালে গিয়েছিল। অভিযোগ পেলেই নির্যাতনের সাথে জড়িতদের আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

খুলনা বিএল কলেজ ছাত্রী গৃহবধূ সোনালী

‘যদি মরে যাই তাহলে শুধু রবিনই দায়ী থাকবে’

মহানন্দ অধিকারী মিন্টু, পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি :: খুলনার পাইকগাছায় মৃত্যুর পূর্বে খুলনা বিএল ...