ঝড় তুলে উধাও যে নায়িকারা!

ষ্টাফ রিপোর্টার :: একটু ভাবুন। সত্যি করে বলুন তো, শেষ কবে তনুশ্রী দত্তকে মনে পড়েছিল? তিনি আপনাকে ‘আশিক’ বানিয়েছিলেন, তাই না? প্রত্যেকেই দীপিকা পাড়ুকোন ও প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার কথা বলতে পারবেন, কিন্তু উদিতা গোস্বামী? ‘জেহের’ ছবিতে এই নায়িকা তাঁর অভিনয় দিয়ে আপনার হৃদয়ে ফুল ফোটাননি?

সে এক সময় ছিল, যখন মানুষ সিডি প্লেয়ারে ‘আশিক বানায়া আপনে’ ছবি দেখত। তখন তো আর আজকের মতো স্মার্টফোনের রাজ্য ছিল না। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সেলিব্রেটিদের অনুসরণ করতে পারত না কেউ। সম্ভবত সে কারণেই অনেক নায়িকাকে ভুলে গেছে দর্শক!

এবার তেমন কয়েকজন নায়িকার গল্প শোনা যাক, যারা একসময় দর্শক-হৃদয়ে ঝড় তুলেছিলেন। রাতারাতি তারকা বনে গিয়েছিলেন। কিন্তু রহস্যজনকভাবে হঠাৎ করে উধাও হয়ে যান।

১. ‘মোহাব্বাতেন’ অভিনেত্রী প্রীতি ঝাঙ্গিয়ানি

‘মোহাব্বাতেন’ সিনেমার প্রীতি ঝাঙ্গিয়ানিকে মনে আছে? তিনি ‘ছুইমুই সি তুম লাগতি হো’ গান দিয়ে অনেক মানুষের হৃদয় জয় করেছিলেন। নিরমা সাবানের বিজ্ঞাপন করেছিলেন তিনি। বলিউডে অভিষেকের আগে তিনি কয়েকটি তেলেগু ছবিতে কাজ করেছিলেন। ‘মোহাব্বাতেন’ ছবির পর তিনি ‘বাজ’, ‘লক কারগিল’ ও ‘আন’ ছবিতে অভিনয় করেছিলেন। ২০০৮ সালে তিনি পারভিন দাব্বাসকে বিয়ে করেন। তিনি এখন দুই সন্তানের মা।

২. ‘আশিক বানায়া আপনে’ অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত

সাহস ও সৌন্দর্য—দুটোর ভারসাম্য ছিল তাঁর। ‘আশিক বানায়া আপনে’ ছবিতে ইমরান হাশমির বিপরীতে অভিনয় করে সাবেক মিস ইন্ডিয়া রাতারাতি তারকা বনে যান। এরপর তিনি ‘চকোলেট’, ‘গুড বয় ব্যাড বয়’সহ কয়েকটি ছবি করেছিলেন। কিন্তু কোনো ছবিই সাফল্যের মুখ দেখেনি।

এরপর তিনি আধ্যাত্মিকতার খোঁজে বেরিয়ে পড়েন। শহর ছেড়ে চলে যান এক আশ্রমে। সন্ন্যাসজীবন যাপন করেন কিছুদিন। ছিলেন লাদাখের এক আশ্রমে। তারপর সেসব ছেড়ে চলে যান যুক্তরাষ্ট্রে। অনেক বছর পর কয়েকদিন আগে তিনি মুম্বাইয়ে ফিরেছেন। সম্প্রতি বর্ষীয়ান অভিনেতা নানা পাটেকারের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ এনে ফের আলোচনায় এসেছেন তনুশ্রী।

৩. ‘তেহজিব’ অভিনেত্রী ডায়ানা হেডেন

১৯৯৭ সালে বিশ্বসুন্দরী হয়েছিলেন ডায়ানা হেডেন—একমাত্র প্রতিযোগী হিসেবে এ রেকর্ড তাঁর, যিনি মিস ফটোজেনিক, মিস বিচওয়্যার ও মিস ওয়ার্ল্ড হয়েছেন। ২০০৩ সালে ‘তেহজিব’ ছবি দিয়ে বলিউডে অভিষেক হয় তাঁর। কয়েকটি ছবি করার পর বিয়ে করেন। এরপর তাঁকে আর খুঁজে পাওয়া যায় না। দীর্ঘদিন পর, মাত্র এক মাস আগে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব তাঁকে মিস ইন্ডিয়া জয় নিয়ে প্রশ্ন করেছেন।

৪. ‘জেহের’ অভিনেত্রী উদিতা গোস্বামী

‘পাপ’, ‘আকসার’, ‘জেহের’সহ কয়েকটি ছবিতে কাজ করে প্রতিশ্রুতিশীল অভিনেত্রী হিসেবে নিজের অবস্থান প্রতিষ্ঠা করেছিলেন উদিতা। যাহোক, তাঁর খ্যাতি বেশিদিন টেকেনি। কয়েকটি ছবি ফ্লপ হওয়ার পর বলিউডে ক্যারিয়ার শেষ হয়ে যায়। ২০১৩ সালে বিয়ে করেন চলচ্চিত্রনির্মাতা মোহিত সুরিকে।

৫. ‘ঘর কে নিকালতি হি’ অভিনেত্রী ময়ূরী কঙ্গো

একসময় খুব জনপ্রিয় হয়েছিল ‘ঘর কে নিকালতি হি’ ছবিটি। শুধু ছবিটিই নয়, কিছু হলেই মানুষ বলত—ঘর কে নিকালতি হি। কিন্তু আপনার কি মনে আছে, কে ছিলেন এর নায়িকা? ‘পাপা কেহতি হ্যায়’ (১৯৯৬), ‘বেতাবি’ (১৯৯৭) ও ‘হোগি পেয়ার কি জিত’ (১৯৯৯) ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। ‘কিয়া হারসা কিয়া হকিকত’ শোতেও কাজ করেছেন। ২০০৩ সালে বিয়ে করেন। স্বামীর সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রে চলে যান। গতবছর শোনা গিয়েছিল, তিনি নতুন দিল্লির একটি মিডিয়া হাউজে কাজ করছেন।

৬. ‘কলিযুগ’ অভিনেত্রী স্মাইলি সুরি

‘কলিযুগ’ ছবি দিয়ে বলিউডে অভিষেক হয় স্মাইলি সুরির। অভিনয় দিয়ে ঝড় তোলেন দর্শক-হৃদয়ে। কিন্তু এর পরে আর কোনো ছবিতে প্রধান চরিত্রে দেখা যায়নি তাঁকে। জানা যায়, তিনি জটিল রোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন। তিনি এখন পোল ড্যান্সকে পেশা হিসেবে বেছে নিয়েছেন। এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছিলেন, ‘কলিযুগ হিটের পর আর কোনো ছবি পাইনি।’

৭. ‘এক খিলাড়ি এক হাসিনা’ অভিনেত্রী কোয়েনা মিত্র

‘সার্জারির পর আমার হাড় ফুলে গিয়েছিল। এমনকি ডাক্তার পর্যন্ত বলেছিলেন ছেড়ে দিতে, ওষুধ ও প্রার্থনাই একমাত্র কাজ’, নাকের ভুল সার্জারির পর বলেছিলেন কোয়েনা মিত্র। জনসমক্ষে তিনি এ-ও বলেছিলেন, ‘সেরা বন্ধুরাও আমাকে ছেড়ে চলে গেছে।’ একটি ভুল সার্জারিই তাঁর অভিনয়জীবন শেষ করে দিয়েছিল। ২০০২ সালে ‘রোড’ ও ২০০৫ সালে ‘এক খিলাড়ি এক হাসিনা’ ছবি করেছিলেন কোয়েনা।

৮. ‘কোম্পানি’ অভিনেত্রী অন্তরা মালি

অন্তরা মালি বেশ কয়েকটি ভালো সিনেমা উপহার দিয়েছিলেন—‘রোড’, ‘ম্যায় মাধুরী দীক্ষিত বানা চাহতি হুঁ’ ও ‘কোম্পানি’ বলিউডে বেশ সাড়া ফেলেছিল। যাহোক, ‘নাচ’ ও ‘মিস্টার ইয়া মিস’ ছবি ফ্লপ হওয়ায় তাঁর ক্যারিয়ার শেষ হয়ে যায়। ২০০৯ সালে তিনি বিয়ে করেন। তাঁর খবর খুব একটা পাওয়া যায় না।

৯. ‘পেহলা নেশা’ অভিনেত্রী আয়েশা জুলকা

নব্বই দশকের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী আয়েশা জুলকা। ‘জো জিতা ওহি সিকান্দার’ ছবিতে অভিনয় করে ‘জাতীয় ক্র্যাশ’ হয়েছিলেন। তাঁর প্রেম নিয়ে ব্যাপক গুঞ্জন ছিল। অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী, নানা পাটেকার, অক্ষয় কুমার ও আরমান কোহলি গুঞ্জন-তালিকায় ছিলেন। তবে তিনি বিয়ে করেন ব্যবসায়ী সমীর ভাসিকে। শোবিজ-বিশ্ব নিয়ে হতাশ হয়ে পড়েন এবং অবসরের ঘোষণা দেন। সূত্র : ইন্ডিয়া টাইমস

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

বছরে আত্মহত্যায় মারা যায় ৮ লাখ মানুষ

নিউজ ডেস্ক :: প্রত্যেক বছর প্রায় ৮,০০,০০০ মানুষ আত্মহত্যা করেন। । এমনটাই ...