ঝরে গেল আরো একটি প্রাণ

ঢাকা: প্রতিদিনের মতো জীবিকার তাগিদে রাস্তায় গাড়ি নিয়ে বের হয়েছিলেন মোজাম্মেল।

কিন্তু অবরোধকারীদের আগুনে থেমে গেল তার জীবনের গতি। পুড়ে ছাই হয়ে গেল মাত্র ২২ বছরের এ টগবগে তরুণের সব স্বপ্ন।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় অবরোধ চলাকালে রাজধানীর নন্দীপাড়া বটতলা এলাকায় অবরোধকারীদের আগুনে দগ্ধ হন লেগুনা চালক মোজাম্মেল (২২)।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার রাত ১টার দিকে তিনি মারা যান।

একইদিনে ককটেলে আহত এক বৃদ্ধা বুধবার মারা যান।

মোজাম্মেলের সহকর্মী হানিফ জানান, মঙ্গলবার সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে দক্ষিণ বনশ্রীর মাদারটেক প্রজেক্টের সামনে অবরোধকারীরা তার লেগুনাটি থামিয়ে ভাঙচুর করে এবং তাকে গাড়ির মধ্যে রেখেই পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়।

  স্থানীয় লোকজনের সহযোতিায় তাকে উদ্ধার করে ঢামেক বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢামেকের বার্ন ইউনিটে আইসিইউতে বুধবার রাত ১টার দিকে তিনি মারা যান।

হাসপাতালে ভর্তির পর চিকিৎসকরা জানিয়েছিলেন, মোজাম্মেলের শরীরের ৬০ ভাগ অংশ এবং শ্বাসনালি পুড়ে গেছে।

মোজাম্মেলের বাবার নাম আরজু। বাড়ি নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার নগরহাটিতে। দু’ভাইয়ের মধ্যে তিনি ছিলেন ছোট।

এর আগে বুধবার ককটেলের আঘাতে আহত আনোয়ারা বেগম (৫৫) নামে এক বৃদ্ধা মারা যান। মঙ্গলবার অবরোধ চলাকালে তার মাথায় ককটেল বিস্ফোরিত হয়।

অবরোধের প্রথম দিন মঙ্গলবার সারা দেশে সংঘর্ষে ৮ জন নিহত হন। দ্বিতীয় দিন বুধবার নিহত হন ৫ জন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

শিবগঞ্জের জঙ্গি আস্তানা

শিবগঞ্জের জঙ্গি আস্তানা থেকে চারজনের মরদেহ উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার :: চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবপুর উপজেলার শিবনগর গ্রামে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে একটি ...