জয়পুরহাটে স্বামীর নির্যাতনে দুই গৃহবধু হাসপাতালে: মামলা দায়ের

এসএস মিঠু, জয়পুরহাট

জয়পুরহাটে পৃথক ঘটনায় স্বামীর নির্যাতনে অসুস’ অবস’ায় গোলাপ বানু (২৮) ও জেসমিন বেগম (৩৮) নামের দুই গৃহবধুকে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে গোলাপ বানুর বাড়ি জেলার ক্ষেতলাল উপজেলার ময়ুম-শেরকোল গ্রামে আর জেসমিন বেগমের জয়পুরহাট সদরের বুলুপাড়া মহল্লার।

তাদের পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে, গৃহবধু গোলাপ বানু বাবার বাড়ি বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলার মহিষমান্ডা গ্রামে। বাবা আব্দুল গফুর তালুকদার একজন কৃষক। মা মালেকা বেগম স’ানীয় ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক মহিলা সদস্য। প্রায় দশ বছর আগে ক্ষেতলালের ময়ুম গ্রামের মোজাহার আলীর পুত্র আঃ রশিদের সাথে বাবা-মা তাকে বিয়ে দেন। কিন’ বিয়ের পর থেকে যৌতুকের দাবিতে স্বামী প্রায়ই নির্যাতন করতেন। সে সময় ক্ষেতলালের মামুদপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক ইউপি সদস্য ও বর্তমান উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নুরুন্নাহার গুন্নাহ বিষয়টি মিমাংসাও করে দেন। এরপর তাদের ঘরে দু’টি সন্তান জন্ম নেয়।

এর এক পর্যায়ে গত শুক্রবার রাতে স্বামীর বেপরোয়া চলাফেরার প্রতিবাদ করার অজুহাতে আঃ রশিদ স্ত্রী গোলাপ বানুর হাত পিঠ ও বুকে বেদম মারপিট করে। এ সময় শ্বাশুড়িও দৌড়ে এসে তার চুলের মুঠি ধরে স্বামীকে মারপিট করতে সহযোগীতা করে। শ্বশুর মোজাহার আলী এ সময় উপসি’ত থাকলেও ছেলেকে বাধা না দিয়ে উল্টো গোলাপ বানুকে গালাগাল করে বাড়ি থেকে বের করে দেয়। এ সময় তাদের নির্যাতনে গোলাপ বানু জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। খবর পেয়ে রাতেই তাকে উদ্ধারের পর মা মালেকা বেগম জয়পুরহাট আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করেন। তার শরীরের বিভিন্ন স’ানে মারপিটের কারনে ছোপ ছোপ দাগ দেখা গেছে।

গোলাপ বানুর মা মালেকা বেগম জানান,‘তার মেয়েকে পরিকল্পিতভাবে হত্যার উদ্দেশ্যে স্বামী,শ্বশুর ও শ্বাশুড়ি নির্যাতন চালিয়েছে। তিনি এ ব্যাপারে থানায় অভিযোগ করবেন বলে জানিয়েছেন’।

অপর দিকে জয়পুরহাট সদরের বুলুপাড়া মহল্লার কৃষি ব্যাংক কর্মকর্তা বেলাল হোসেন পারিবারিক কলহের জের ধরে দুই সন্তানের জননী স্ত্রী জেসমিন বেগমকে শনিবার কোদাল মারপিট করে আহত করে। পরে তাকে জয়পুরহাট আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। জেসমিন বেগম জানান,‘তার স্বামী চরিত্রহীন। তার অনৈতিক কাজে বাধা দেয়ায় স্বামী তাকে প্রায়ই মারপিট করত। স্বামীর নির্যাতনের কারণে এ বছর জুন মাসের ১ তারিখে জয়পুরহাট সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করার কথাও তিনি জানান।

এ ব্যাপারে তিনি বাদি হয়ে শনিবার জয়পুরহাট সদর থানায় স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। এ দুই গৃহবধূর অসুস’তার ব্যাপারে জানতে চাইলে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. আব্দুল ওহাব জানান,‘মারপিটের কারনে গোলাপ বানু ও জেসমিন বেগমকে এ হাসপাতালে ভর্তি করে নেয়া হয়েছে। বর্তমানে তাদের চিকিৎসা চলছে।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ডে-কেয়ার আইন চূড়ান্ত পর্যায়ে: চুমকি

ডে-কেয়ার আইন চূড়ান্ত পর্যায়ে: চুমকি

স্টাফ রিপোর্টার :: মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি ...