ব্রেকিং নিউজ

জার্মানির শপিং মলে গোলাগুলি: নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৯

jarmany pic_135840নিউজ ডেস্ক: জার্মানির দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর মিউনিখের একটি শপিং সেন্টারে গোলাগুলির পর সেখানে সন্ত্রাসীদের খোঁজে ব্যাপক পুলিশি তৎপরতার খবর পাওয়া যাচ্ছে।

সর্বশেষ অন্তত ৯ জন নিহত হবার খবর পাওয়া যাচ্ছে। হতাহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

পুলিশ মনে করছে একজনের বেশি হামলাকারী হামলা চালিয়েছে। শহরের মুজাখ এলাকায় অলিম্পিয়া শপিং মলের চারপাশের এলাকা ঘিরে দেওয়া হয়েছে।

শহরের সব যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। মিউনিখ পুলিশ মানুষজনকে ওই এলাকার ধারেকাছে না যাবার পরামর্শ দিচ্ছে।

তবে এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহভাজন কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ।

আহতদের মধ্যে তিন জনের অবস্থা গুরুতর বলে স্থানীয় হাসপাতালের বরাত দিয়ে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম।

তবে শনাক্ত নবম মরদেহ নিয়ে সন্দেহ তৈরি হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে শপিং মলের বাইরে পড়ে থাকা এ মরদেহ হামলাকারীদের কেউ হতে পারে। যদিও বিষয়টি এখনো নিশ্চিত করা হয়নি।

এর আগে বাভারিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে ৩ জন নিহতের খবর জানায় আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো। এছাড়া আহত হন বেশ কয়েকজন। তবে প্রাথমিকভাবে হতাহতদের পরিচয় জানা যায়নি। নিহতদের মধ্যে কোনো ভারতীয় নাগরিক নেই বলে নিশ্চিত করেছে কর্তৃপক্ষ।

এদিকে ঘটনার পর জার্মানিকে সব ধরনের সাহায্যের কথা জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা।

ঘটনাটিকে ‘সম্ভাব্য সন্ত্রাসী হামলা’ হিসেবে আখ্যা দিয়েছে মিউনিখ পুলিশ। তবে কেনে বা কী উদ্দেশ্যে এ হামলা চালানো হয়েছে সে বিষয়ে কিছু জানা যায়নি।

প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, কালো পোশাকে ৩ মুখোশধারী বন্দুকধারী অলিম্পিয়া-আইনকফজেনট্রাম নামের ওই শপিং মলে হামলা চালায়। এ সময় তারা বন্দুকধারীদের দ্রুত পালিয়ে যেতে দেখেন।

এর আগে বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম জানায়, বন্দুকধারী মলটির আন্ডারগ্রাউন্ড ব্যবহার করে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।

সন্দেহভাজন ওই বন্দুকধারীদের সন্ধানে ব্যাপক তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ। এজন্য বাসিন্দাদের সবাইকে বাড়ির ভেতরে অবস্থানের অনুরোধ জানানো হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা ৩ সশস্ত্র বন্দুকধারী দেখেছেন বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যমগুলো। ঘটনার পর মিউনিখে অবস্থানরত সব মার্কিন নাগরিককে নিরাপদে অবস্থান করতে সেখানকার কনস্যুলেট জেনারেল থেকে জরুরি বার্তা দেওয়া হয়েছে।

এদিকে, জার্মানির একটি সংবাদমাধ্যম এ ঘটনায় বেশ কয়েকজন ‘হতাহতের’ কথা জানিয়েছে। শপিং মলের পাশে একটি মরদেহ পড়ে থাকার যে ছবি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো প্রকাশ করেছে তা ‘বন্দুকধারী’র বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এদিকে গুলির ঘটনার পর পুলিশ ব্যাপক অভিযান শুরু করেছে। পুরো মলটি পুলিশ ঘিরে রেখেছে। ভেতর থেকে সবাইকে বের করে আনা হয়েছে। এ সময় অনেককে আতঙ্কিত হয়ে ওই এলাকা ত্যাগ করতে দেখা যায়।

শপিং সেন্টারটি মিউনিখ অলিম্পিক স্টেডিয়ামের পাশেই অবস্থিত।

গত সোমবার রাতে জার্মানির মধ্যাঞ্চলের ওয়ার্শবার্গ শহরের হেইডিংসফেল্ড বাভারিয়ায় এলাকায় একটি ট্রেনে কুড়াল ও ছুরি নিয়ে হামলা চাল‍ায় এক দুর্বৃত্ত। এতে ২০ জনেরও বেশি যাত্রী আহত হন। তবে, পালানোর সময় পুলিশের গুলিতে নিহত হন হামলাকারী। এর পর থেকে নিরাপত্তা বাহিনীকে সতর্ক অবস্থায় রাখা হয়।

ওই ঘটনার পর আরো হামলার আশঙ্কা সম্পর্কে কর্তৃপক্ষকে সতর্ক করা হয়েছিল। এরই মধ্যে শপিং মলে এই ঘটনা ঘটল।

সূত্র: বিবিসি

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ট্রাম্পের সঙ্গে যৌন মিলন ছিল সবচেয়ে পানসে: স্টর্মি ড্যানিয়েলস

ডেস্ক রিপোর্ট :: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে কাটানো সময়ের বিস্ফোরক বর্ণনা ...