জাতিসংঘের কনিষ্ঠতম শান্তি দূত হলেন মালালা

জাতিসংঘের কনিষ্ঠতম শান্তি দূত হলেন মালালাডেস্ক নিউজ :: শান্তিতে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী মালালা ইউসুফজাইকে এবার জাতিসংঘের সর্ব কনিষ্ঠতম শান্তি দূত করা হয়েছে। যুক্তরাজ্যের শীর্ষ এক বিশ্ববিদ্যালয়ে এ-লেভেলে অধ্যয়নরত ১৯ বছর বয়সী এ তরুণী এই পদবীতে থেকে নারীশিক্ষার ওপর বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে কাজ করবেন।
এর আগে, ২০১২ সালে নারীশিক্ষা এবং মেয়েদের স্কুলে যাওয়া অধিকার নিয়ে সোচ্চার হওয়ায় পাকিস্তানের কিশোরী মালালাকে গুলি করে হত্যার চেষ্টা করে তালেবান হামলাকারীরা। এ খবর প্রকাশ করেছে বিবিসি।
নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের এই সম্মাননা গ্রহণ করে মালালা বলেন, ‘পরিবর্তনের শুরু আমাদের সঙ্গে আসে এবং আমাদেরকে শুরুটা এখনই করতে হবে। আপনারা (মেয়েরা) যদি নিজের ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল দেখতে চান, তবে আপনাদেরই তার জন্য এখন থেকে কাজ শুরু করতে হবে, আর কারও জন্য অপেক্ষা করা যাবে না।’
জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্টোনিও গুতেরেস তার বক্তব্যে মালালা ইউসুফজাইকে ‘সম্ভবত পৃথিবীর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ জিনিস – ‘সবার জন্য শিক্ষা’ বিষয়টির প্রতীক’ বলে উল্লেখ করেন। এর আগে জাতিসংঘ এই সম্মান দিয়েছে অভিনেতা মাইকেল ডগলাস, লিওনার্দো ডি’ক্যাপ্রিওকেও। এই পদই জাতিসংঘের দেওয়া সর্বোচ্চ সম্মান।
এছাড়া সম্প্রতি মালালা ইউসুফজাইকে ‘অনারারি’ বা সম্মানসূচক কানাডিয়ান নাগরিকত্ব প্রদান করছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। কানাডার পার্লামেন্টে সর্ব কনিষ্ঠতম সদস্য হিসেবে উচ্চারিত হতে যাচ্ছে মালালার নাম। সেই সঙ্গে ষষ্ঠতম সদস্য হিসেবে দেশটির এই বিরল সম্মাননা পেতে যাচ্ছেন পাকিস্তানে নারী শিক্ষা নিয়ে কাজ করা এই ১৯ বছরের কিশোরী।
Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

প্রসব করানোর সময় সন্তানের দেহ থেকে মাথা বিচ্ছিন্ন

ষ্টাফ রিপোর্টার :: প্রসব করানোর সময় পেটে মাথা রেখেই দেহ থেকে বিচ্ছিন্ন ...