জলবায়ু পরিবর্তনে ক্ষতি: বাংলাদেশের অবস্থান সপ্তম

Global Climate Risk Index-2019

ডেস্ক নিউজ :: চরম প্রতিকূল আবহাওয়ার কারণে সবচেয়ে বিপন্ন বা ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান সপ্তম। পোল্যান্ডের কাতোয়িস শহরে বুধবার বার্ষিক জলবায়ু সম্মেলনে ‘গ্লোবাল ক্লাইমেট রিস্ক ইনডেক্স-২০১৯’ প্রকাশ করা হয়। ওই ইনডেক্সে এই তথ্য ওঠে এসেছে। ১৯৯৮ সাল থেকে ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোর সূচক প্রকাশ করা হচ্ছে।

২০১৭ সালের জন্য তৈরি করা বার্ষিক এমন সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল নবম স্থানে। তার আগের বছর ছিল ১৩তম। নেপাল ২০১৭ সালে ছিল চতুর্থ অবস্থানে। ভারত ছিল ১৪তম অবস্থানে।

উল্লেখ্য, গত বছর চরম প্রতিকূল আবহাওয়ার প্রভাবে বাংলাদেশে বন্যা, ভূমিধস, ঝড়, ঘূর্ণিঝড়ে নিহত হয়েছে কমপক্ষে ৪০৭ জন।

বার্লিনভিত্তিক পরিবেশবিষয়ক সংগঠন জার্মানওয়াচের তৈরি করা রিপোর্টে বলা হয়েছে, এতে বাংলাদেশের অর্থনীতির ক্ষতি হয়েছে প্রায় ৮২ কোটি ৬৬ লাখ ৮০ হাজার ডলার। ওদিকে ইন্টার গভর্নমেন্টাল প্যানেল অন ক্লাইমেট চেঞ্জ (আইপিসিসি) এরই মধ্যে পূর্বাভাস দিয়েছে তাদের সায়েন্টিফিক রিপোর্টে।

তাতে বলা হয়েছে, বৈশ্বিক গড় তাপমাত্রা বৃদ্ধির সঙ্গে চরম প্রতিকূল অবস্থা বৃদ্ধি পেতে থাকবে। ওই সূচকে দেখা যাচ্ছে, জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে বিশ্বজুড়ে বিপন্ন দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলো। ওই রিপোর্টে বলা হয়েছে, ভারি বর্ষণে নেপাল, বাংলাদেশ ও ভারতজুড়ে বন্যা দেখা দেয়।

এতে আক্রান্ত হয়েছে কমপক্ষে চার কোটি মানুষ। এসব দেশে কমপক্ষে ২০০ মানুষ মারা গেছেন। এ অঞ্চলে বাস্তুচ্যুত হয়েছেন কয়েক লাখ মানুষ। বন্যা দেখা দিয়েছে হিমালয়ের পাদদেশের এলাকাগুলোতে। এতে হয়েছে ভূমিধস। ধ্বংস হয়েছে হাজার হাজার বাড়ি।

কৃষিজমি ও সড়কের মারাÍক ক্ষতি হয়েছে। জার্মানওয়াচের রিপোর্ট বলছে, ১৯৯৮ থেকে ২০১৭ সালের মধ্যে চরম জলবায়ুর কারণে বিশ্বজুড়ে মারা গেছেন কমপক্ষে ৫ লাখ ২৬ হাজার মানুষ। এতে ক্ষতি হয়েছে ৩.৪৭ ট্রিলিয়ন ডলার।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

'টপ এমপ্লয়ার' এর স্বীকৃতি পেল বিএটি বাংলাদেশ

‘টপ এমপ্লয়ার’ স্বীকৃতি পেল বিএটি বাংলাদেশ

ঢাকা :: বৃটিশ আমেরিকান ট্যোবাকো বাংলাদেশ প্রথম বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠান হিসেবে সম্মানজনক ‘টপ ...