ব্রেকিং নিউজ

জরায়ুমুখের ক্যান্সার দেশে বছরে সাড়ে ৬ হাজার নারীর মৃত্যু হচ্ছে

জরায়ুমুখের ক্যান্সার দেশে বছরে সাড়ে ৬ হাজার নারীর মৃত্যু হচ্ছে

স্টাফ রিপোর্টার :: বিশেষজ্ঞরা বলেছেন দেশে প্রাথমিক পর্যায়ে শনাক্ত করা গেলে কোনো নারীই জরায়ুমুখের ক্যান্সারে মারা যাবে না।
ইন্টারন্যাশনাল এজেন্সি ফর রিসার্চ অন ক্যান্সার (আইএআরসি)’র তথ্য মতে দেশে প্রতি বছর ১১ হাজার ৯৫৬ জন নারী এই রোগে আক্রান্ত হচ্ছে এবং ছয় হাজার ৫৮২ জন নারীর মৃত্যু হচ্ছে। জরায়ুমুখের ক্যান্সার সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে আজ শনিবার সকাল থেকে সারাদেশে মাসব্যাপী কর্মসূচি শুরু হয়েছে।

কর্মসূচির অংশ হিসেবে এদিন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) ’র ভিসি প্রফেসর কামরুল হাসান ও রোটারি ক্লাব ইন্টারন্যাশনাল ডিসট্রিক্ট (৩২৮১)-এর কনভেনর এফ এইচ আরিফের নেতৃত্বে ‘জননীর জন্য পদযাত্রা (মার্চ ফর মাদার)’ শীর্ষক শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। শোভাযাত্রার এবারের প্রতিপাদ্য ‘বাল্যবিবাহকে জোর ‘না’।

শোভাযাত্রাটি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) সামনে থেকে শুরু হয়ে ফার্মগেটে গিয়ে শেষ হয়। এসময় জরায়ুমুখের ক্যান্সার সচেতনতায় সকল স্তরের মানুষকে সচেতনতায় তথ্যসমৃদ্ধ লিফলেট বিতরণ করা হয়।

ক্যান্সার প্রতিরোধ গবেষণা কেন্দ্র, গাইনি অনকোলজি সোসাইটি অব বাংলাদেশ, ওয়াইডব্লিউসিএ (ইয়াং উইমেন ক্রিশ্চিয়ান অর্গানাইজেশন), অপরাজিতা (সোসাইটি ফর সারভাইবার), পাবলিক হেলথ ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ, কমিউনিটি অনকোলজি ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ, দি ব্লু স্কাই চ্যারিটেবল ফাউন্ডেশন ও ক্যান্সার অ্যাওয়ারনেস ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ এই আটটি মোর্চা সংগঠন রোটারি ক্লাব ইন্টারন্যাশনাল ডিসট্রিক্ট

(৩২৮১)-র সহায়তায় এ শোভাযাত্রার আয়োজন করে।

এছাড়া মাসজুড়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে এ বিষয়ে আলোচনা ও সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে।

জননীর জন্য পদযাত্রার প্রধান সমন্বয়কারী এবং জাতীয় ক্যান্সার গবেষনা ইন্সটিউট ও হাসপাতালের সহযোগী অধ্যাপক হাবিবুল্লাহ তালুকদার রাসকিন জানান, অধিকাংশ নারীর বেশি বয়সের চেয়ে বরং মধ্য বয়সেই জরামুখের ক্যান্সার হয়ে থাকে। এটি অনূর্ধ্ব ৩৫ বছরের নারীদের ক্যান্সারের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি হয়ে থাকে।

তিনি বলেন, প্রতিরোধমূলক জরায়ুমুখ পরীক্ষার মাধ্যমে এর ক্যান্সার এড়ানো যেতে পারে এবং এর ফলে শুরুর দিকেই এটি সনাক্ত করা সম্ভব হতে পারে। আর তখন এটি চিকিৎসার মাধ্যমে নিরাময়যোগ্য।

বিশেষজ্ঞরা বলেন, এখন জরায়ুমুখের ক্যান্সারে অক্রান্ত রোগীরা ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ক্যান্সার রিসার্চ এন্ড হসপিটাল, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতল ইউনাইটেড হাসপাতাল ও ডেলল্টা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালসহ নগরীর বিভিন্ন হাসপাতালে সীমিত খরচে চিকিৎসা নিতে পারবেন।

কবি ও সংসদ সদস্য কাজী রোজী বলেন, পরিবার ও সমাজের ক্যান্সার আক্রান্ত নারীদের মানসিক শক্তি বাড়াতে সহায়তা করা উচিত।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

বোরহান উদ্দিন

ব্যক্তিত্ব কি ?

বোরহান উদ্দিন :: ব্যক্তিত্ব হলো মানুষের কতগুলো আচরণে বহিঃপ্রকাশ। এক একজন মানুষের ...