ব্রেকিং নিউজ
Home / অর্থনীতি / জমে উঠেছে ঈদ বাজার: দেশী পোশাকের চাহিদা

জমে উঠেছে ঈদ বাজার: দেশী পোশাকের চাহিদা

জমে উঠেছে ঈদ বাজার: দেশী পোশাকের চাহিদাকলিট তালুকদার, পাবনা প্রতিনিধি :: পাবনায় জমে উঠেছে ঈদের বাজার। তাঁতি, দর্জি, পাদুকাশিল্প, কসমেটিকসহ অন্যান্য পণ্যের দোকানিরা। অভিজাত শপিং মল থেকে শুরু করে ফুটপাতের দোকান গুলোতে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভীড়। তবে এ বছর পাবনার বাজারে ভারতীয় পোশাকের আধিক্য নেই। এবার ভারতীয় নায়িকা ও সিরিয়ালের নামে তেমন কোনো পোশাক আসেনি।

পাখি ড্রেস, ফ্লোর টার্চ, ঝিলিক, বাহুবলির মতো পোশাকের বিপরীতে বাজার দখল করেছে দেশী পোশাক। আর শাড়ির বাজারে দেশি শাড়িই বিক্রি হচ্ছে। তবে ক্রেতাদের অভিযোগ পোশাকের দাম নাগালের বাইরে । আর বিক্রেতারা বলছে দাম নাগানের মধ্যে আছে।

ঈদের প্রধান আকর্ষণ নতুন পোশাক। তাই রোজার শুরুতেই পাবনা শহরের নিউমার্কেট, রবিউল মার্কেট, খান বাহাদুর শপিংমল, স্টার কমপ্লেক্স, হাজী মার্কেট, হুমায়রা মার্কেট, সেভেন স্টার, এআর প্লাজা, এআর কর্ণার, নিউ পয়েন্ট, পৌর হকার্স মার্কেট, নিক্সন মার্কেট, আওরঙ্গজেব সড়ক, মহিলা কলেজ রোডসহ বিভিন্ন অভিজাত মার্কেট ঘুরে দেখা গেছে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড়। পছন্দের পোশাক কিনতে এক দোকান থেকে আরেক দোকানে ক্রেতারা খুঁজে ফিরছেন।

গত ঈদ বাজারের চেয়ে এবারের বাজারে বিভিন্ন পোশাকের দাম একটু বেশিই বলে জানান ক্রেতারা। অল্প আয়ের মানুষ মার্কেটে এসে পোশাক কিনতে হিমশিম খাচ্ছেন। যারা শপিং মলে যেতে পারছেন না তারা ভীড় করছেন ফুটপাতের দোকানে। কাপড়ের দোকানের পাশাপাশি সেন্ডেল, প্রসাধনী ও টেইলার্সের দোকানে ভীড় বাড়ছে।

গত বছরের ঈদ বাজারগুলোতে ভারতীয় টিভি সিরিয়ালের নায়িকার নামানুসারে বিভিন্ন পোশাকের জন্য ক্রেতারা হুমড়ী খেয়ে পড়লেও পাবনার ক্রেতারা এবার ঝুঁকেছেন দেশী পোশাকের দিকে। সাধ্যের মধ্যে সমন্বয় করে ক্রেতারা পোশাক কিনছেন। গৃহিণীদের পছন্দ দেশি তৈরি সুতির শাড়ি। তবে সবচেয়ে বেশি চলছে দেশীয় তৈরি সুতির শাড়ি। অপরদিকে রেডিমেড পোশাক কিনতে সাধারণের আগ্রহ থাকলেও গজ কাপড়ের দোকানও বেশ চলছে।

বিক্রেতারা জানান, গতবারের চেয়ে এবার কেনাবেচা বেশ ভালো। অনেক সুন্দর সুন্দর ড্রেস উঠেছে ঈদের বাজারে। দামও খুব বেশি না, অনেক চলছে। প্রতিদিনই বাড়ছে ভিড়। তারা চান বেশি বিক্রি বেশি খরিদ্দার। আর তাই খুব বেশি দামও নিচ্ছেন না বলে দাবি তাদের।

About ahm foysal

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

“আমরা চাষাবাদ করতে চাই, আমরা পানির ন্যায্য হিস্যা চাই”

“আমরা চাষাবাদ করতে চাই, আমরা পানির ন্যায্য হিস্যা চাই”

মিলন কর্মকার রাজু, কলাপাড়া(পটুয়াখালী) প্রতিনিধি :: “আমরা চাষাবাদ করতে চাই, আমরা পানির ন্যায্য ...