“জনসমাগম স্থানে বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসম্মত পাবলিক টয়লেট নিশ্চিত করার দাবি”

pam-pic-1১৯ নভেম্বর বিশ্ব টয়লেট দিবস। প্রতিবছর  স্বাস্থ্যকর টয়লেট ব্যবহারের অনুপ্রেরণা এবং জনসচেতনতার জন্য বিশ্বব্যাপি এই দিবসটি পালিত হয়। পর্যাপ্ত পাবলিক টয়লেটের অভাব, বাড়তি খরচ, এবং বিদ্যমান পাবলিক টয়লেট ব্যবহার উপযোগী না থাকায় যেখানে সেখানে মূত্রত্যাগ করতে হচ্ছে পথচারীদের। ফুটপাথ ও ফুট ওভার ব্রিজে মলত্যাগ করছে অনেক ভাসমান মানুষ। ফলে দূষিত হচ্ছে পরিবেশ, ছড়াচ্ছে রোগ-জীবাণু। চিকিৎসকরা বলছেন, যারা নানা বাস্তবতায় প্রাকৃতিক প্রয়োজন সারতে পারেন না, তাদের শরীরে স্থায়ী বা অস্থায়ী নানা ধরনের রোগ, মূত্রথলিতে ব্যথা, ইনফেকশন এবং পরিপাকতন্ত্র ও কিডনিতে ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। সেন্টার ফর আরবান স্টাডিজ ও ওয়াটার এইড পরিচালিত এক গবেষণায় বলা হয়েছে, প্রায় ৮০০ বর্গকিলোমিটারের এ শহরে ১ কোটি ৬০ লাখের বেশি মানুষের বসবাস। এর মধ্যে পাঁচ লাখ ভাসমান, রিকশাচালক ১০ লাখ, অন্যান্য জীবিকার মানুষ ১০ লাখ, নিয়মিত পথচারী ২০ লাখ এবং ঢাকার বাইরে থেকে আসা ১৫ লাখসহ প্রতিদিন মোট প্রায় ৫৫ লাখ মানুষ ঢাকা শহরের রাসত্মায় চলাচল করেন। অথচ প্রতি সোয়া দুই লাখ মানুষের জন্য মাত্র একটি পাবলিক টয়লেট, আবার চালু থাকা পাবলিক টয়লেটের মধ্যে ৯১ শতাংশই ব্যবহার অনুপযোগী।

এমতাবস্থায় আজ ১৮ নভেম্বর ২০১৬  শুক্রবার, সকাল ১০:৩০ টায় আজিমপুর বাসষ্ট্যান্ড সংলগ্ন পাবলিক টয়লেট এর সামনে পরিবেশ আন্দোলন মঞ্চ, নিরাপদ ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন, সুবন্ধন সংগঠন ও স্বপ্নের সিড়ি সমাজ কল্যান সংস্থার যৌথ উদ্যোগে  “বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসম্মত পাবলিক টয়লেট নিশ্চিত কর” দাবিতে মানববন্ধন এর আয়োজন করা হয়েছে।

নিরাপদ ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন এর চেয়ারম্যান ইবনুল সাঈদ রানার সভাপতিত্বে উক্ত মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, পরিবেশ আন্দোলন মঞ্চের সভাপতি আমির হাসান মাসুদ, সাধারন সম্পাদক ফারুক হোসেন, সুবন্ধন সংগঠন এর সভাপতি হাবিবুর রহমান হাবিব, স্বপ্নের সিড়ি সমাজ কল্যান সংস্থার প্রধান নির্বাহী উম্মে  সালমা, পরিবেশ বাচাঁও আন্দোলন এর সহ-সম্পাদক মো: সেলিম, নাগরিক অধিকার সংরক্ষন ফোরাম এর সহ-সম্পাদক রুস্তম খান, জাগরণী জনকল্যান ফাউন্ডেশনের সহ-সভাপতি হুমায়ুন কবির, মানবাধিকার কর্মী মো: আনোয়ার হোসেন, নিরাপদ ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন এর প্রগ্রাম অফিসার ইকরা প্রমূখ

বক্তারা বলেন, মানুষ বেশি সময় ধরে প্রস্তাব, পায়খানা আটকে রেখে কিডনিজনিত রোগসহ  বিভিন্ন জটিল রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। বিশেষ করে, নারী, প্রতিবন্ধীদের শৌচাগার ব্যবহারে আলাদা ব্যবস্থা ও নিরাপত্তার ব্যবস্থা না থাকায় বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হন। অন্যদিকে নারী ও প্রতিবন্ধীদের আলাদা টয়লেট ব্যবস্থা না থাকায়্‌ তাদের সমতা ও মর্যাদার বিষযটি উপেক্ষিত থাকছে

বক্তারা বলেন, পাবলিক টয়লেট ব্যবহারে অর্থ প্রদান ব্যবস্থা সমতা, জনস্বাস্থ্যের পরিপন্থী। পাবলিক টয়লেট ব্যবহারে অর্থ প্রদান অনেক মানুষকেই টয়লেট ব্যবহারে নিরম্নৎসাহি করে। জনগন কর প্রদানের পরও যদি, পাবলিক টয়লেট ব্যবহারে অর্থ প্রদান করতে হয় তবে স্থানীয় সরকারে সেবার বিষয়টি প্রশ্নবিদ্ধ হবে। পাবলিক টয়লেট সিটি কর্পোরেশনের আয় নয় ববং সেবা ও জনস্বাস্থ্য রক্ষায় বিষয় হিসেবে ভাবতে হবে। বিদ্যমান ইজারা দেয়ার পরও অধিকাংশ পাবলিক টয়লেট অপরিচ্ছন্ন এবং ব্যবহার উপযোগী না হওয়ায় মানুষ যত্রতত্র মলমুত্র ত্যাগ করে, যা ইজারা ব্যবস্থার অকার্যকারিতা প্রমান করে। কোটি টাকা বাজেটের পর সিটি কর্পোরেশনগুলো জনগনকে এখনো বিনামূল্যে পাবলিক টয়লেট সুবিধা দিতে পারছে না। জনগণের স্বাস্থ্যের কথা বিবেচনায় নিয়ে জনসমাগমস্থলে বিনামূল্যে পাবলিক টয়লেট নিশ্চিত করতে সমাবশে থেকে দাবি জানানো হয়।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

আমার মা ফাউন্ডেশন এর চাঁদপুর সদর আহবায়ক কমিটি গঠন

আমার মা ফাউন্ডেশন এর চাঁদপুর সদর আহবায়ক কমিটি গঠন

চাঁদপুর :: আমার মা ফাউন্ডেশন এর চাঁদপুর সদর আহবায়ক কমিটির প্রথম সভা অনুষ্ঠিত ...