চুম্বনের পঞ্চগুণ

চুম্বনের পঞ্চগুণ ডেস্ক নিউজ :: ‘ঠোঁটে ঠোঁট ব্যারিকেড’, কাব্যে চুম্বন এমনই। তবে বিজ্ঞানের কাছে চুম্বন আসলে একটি স্বাস্থ্যকর অভ্যাস। প্রতি চুম্বনের মাহাত্ম্য খুঁজতে বিজ্ঞানীরা যে গবেষণাো চালিয়েছেন, সেখানেই বিজ্ঞানসম্মত ভাবে ‘আবিষ্কার’ হয়েছে চুম্বনের গুণ। বিশেষ করে নবীন প্রাণে চুম্বনের গুণ অপরিসীম। কৈশোর থেকে যৌবন, বয়সের বেড়ে চলায় চুম্বন একটি স্বাস্থ্যকর শারীরিক অভ্যাস, এমনটাই জানাচ্ছেন চিকিৎসকরা।

গবেষকরা বলছেন চুম্বন মানব দেহের হরমোনাল ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়াকে প্রভাবিত করে। এমনকি মানুষের প্রতি মুহূর্তে হওয়া মেজাজ পরিবর্তনের জন্যও নাকি পরোক্ষ ভূমিকা পালন করে চুম্বন। চিকিৎসকরা বলছেন চুম্বন মূলত ৫টি কারণের জন্যই অতীব গুরুত্বপূর্ণ একটি শারীরবৃত্তীয় অভ্যাস। কী সেই ৫টি কারণ? জেনে নিন চুম্বনের ৫ গুণ-

এক. চুম্বন মানব শরীরের পক্ষে ভাল। চুম্বন লালা প্রবাহকে ত্বরাণ্বিত করে। চিকিৎসকরা বলছেন চুমুতে যেভাবে লালা প্রবাহ ত্বরাণ্বিত হয় তাতে দাঁতের মাড়ি থেকে রক্তক্ষরণ প্রতিহত হয়।

দুই. চুম্বন রোগ প্রতিরোধক ক্ষমতাকে জোরদার করে।

তিন. চিকিৎসকদের দাবি চুম্বন মানব মননে উদ্বেগকে হ্রাস করে। চুম্বনের ফলে মানব শরীরে অক্সিটোসিন হরমোন নির্গত করে। এই হরমোনকে লাভ হরমোনও বলা হয়। অক্সিটোসিন হরমোন মানুষের মধ্যে এক ধরণের স্থিতাবস্থা এনে দেয়, যা মানুষকে ধ্যানমগ্ন হতে সাহায্য করে। অর্থাৎ ধ্যানের গুণ আছে চুম্বনেও।

চার. চুম্বনে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রিত হয়।

পাঁচ. চিকিৎসকরা বলছেন প্রতি চুম্বনে মানব শরীরের অনেক ক্যালোরি খরচ হয়।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

জানালার কাঁচ ভেদ করা রোদ কি ভিটামিন ডি দিতে পারে?

কে না চায়, সূর্যের নরম রোদ জানালার কাঁচ ভেদ করে আলতো করে ...