ব্রেকিং নিউজ

চতুর্থ আন্তর্জাতিক ‌‘জনগণের স্বাস্থ্য সম্মেলন’ শুরু

স্টাফ রিপোর্টার ::

চতুর্থ আন্তর্জাতিক ‌'জনগণের স্বাস্থ্য সম্মেলন' শুরু“এখনই সবার জন্য স্বাস্থ্য” প্রতিপাদ্য নিয়ে চতুর্থ আন্তর্জাতিক জনগণের স্বাস্থ্য সম্মেলন-২০১৮ আজ শুক্রবার (১৫ নভেম্বর) সকাল থেকে সাভারের ব্র্যাক সেন্টার ফর ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজমেন্ট (বিসিডিএম) এ শুরু হয়েছে।

পিপলস হেলথ মুভমেন্ট (পিএইচএম) আয়োজিত চার দিন ব্যাপি সম্মেলনে বাংলাদেশসহ বিশ্বের প্রায় ৮০টি দেশের থেকে, এনজিও প্রতিনিধি, স্বাস্থ্য সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি, চিকিৎসকসহ প্রায় ১৩শ প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করেছেন।

সকাল ১০টায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সম্মেলনের সভাপতি ও ব্র্যাকের প্রতিষ্ঠাতা স্যার ফজলে হাসান আবেদের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ এর সভাপতি জাতীয় অধ্যাপক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অবঃ) ডাঃ আব্দুল মালিক, বিশেষ অতিথি হিসেবে অস্ট্রেলিয়ার ফিলিন্ডার ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক ফারান বাউম, বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান পিপিআরসির প্রতিষ্ঠাতা এবং নির্বাহী সভাপতি হোসেন জিল্লুর রহমান।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন পিএইচএ-৪ এর জাতীয় সমন্বয়কারী ও জনগণের স্বাস্থ্য আন্দোলন, বাংলাদেশের সভাপতি জাকির হোসেন।

সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ এর সভাপতি জাতীয় অধ্যাপক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অবঃ) ডাঃ আব্দুল মালিক বলেন, একটি দেশের সমৃদ্ধি নির্ভর করে জনগণের গুণগত শিক্ষা এবং উন্নত মানসিক ও শারীরিক স্বাস্থ্যের ওপর। তবে বর্তমানে জলবায়ু পরিবর্তনসহ নানা কারণে স্বাস্থ্য ঝুঁকি বেড়ে গেছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিবেদন তুলে ধরে তিনি বলেন, বাংলাদেশে অসংক্রামক রোগে আক্রান্ত হয়ে ৬৭ ভাগ মানুষ মৃত্যুবরণ করে। এ ছাড়াও ১২ ভাগ লোক ক্যান্সার, ৩০ ভাগ লোক হৃদরোগ ও ৩ ভাগ লোক ডায়াবেটিসে মারা যায়। এসব রোগের চিকিৎসা বাংলাদেশের মতো উন্নয়নশীল দেশের জন্য ব্যয়বহুল। তাই এর সমাধানে সরকারের পাশাপাশি উন্নত দেশ ও তাদের নাগরিকদের এগিয়ে আসতে হবে।

প্রধান অতিথি হেলথ ইন্স্যুরেন্স ও উন্নত চিকিৎসাসেবার জন্য স্বল্প সুদে দীর্ঘমেয়াদি ঋণ প্রদান ও বিভিন্ন রোগের বিষয়ে জনসচেতনতা সৃষ্টির জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান। এ ছাড়াও হতদরিদ্র ও সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীকে বিনামূল্যে চিকিৎসা প্রদানে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

প্রথম সমাবেশের ঠিক ১৮ বছর পরে চতুর্থ আন্তর্জাতিক জনগণের স্বাস্থ্য সম্মেলন পুনরায় বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এর আগে ২০০০ সালে বাংলাদেশে সাভারের গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রে প্রথম স্বাস্থ্য সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছিল এবং অংশগ্রহণকারীরা পিএইচএম এর মূল দলিল পিপলস চার্টার ফর হেলথ তৈরি এবং অনুমোদন করেছিলেন।

উল্লেখ্য, ২০০০ সালে ঢাকার সাভারে আন্তর্জাতিক জনগণের স্বাস্থ্য সম্মেলন-১ এ ৯৩টি দেশের ১৪শ প্রতিনিধি, ২০০৫ সালে ৯২ দেশের ১৪৯২ প্রতিনিধির অংশগ্রহণে ইকুয়েডরের কুয়েনকাতে স্বাস্থ্য সমাবেশ-২, ২০১২ সালে ৯০টি দেশের ১ হাজার প্রতিনিধির অংশগ্রহণে দক্ষিণ আফ্রিকার কেপটাউনে স্বাস্থ্য সমাবেশ-৩ অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ফখরুলের গাড়ি বহরে হামলায় নির্বাচন কমিশন বিব্রত: সিইসি

স্টাফ রিপোর্টার ::  নির্বাচনী প্রচারণার প্রথমদিনেই সহিংসতা ও হামলার ঘটনায় বিশেষ করে ...