ঘোর বিপদে মিথিলার পরিবার

আলোচিত ও সমালোচিত মডেল-আইটেম গার্ল চট্টগ্রামের মেয়ে জ্যাকুলিন মিথিলা গত ৩ ফেব্রুয়ারি বারিক বিল্ডিং এলাকার কালীবাড়ি সড়কের ‘রণজিত ভবনে’র ভাড়া বাসায় আত্মহত্যা করেন। মিথিলার মৃত্যুতে ভেঙে পড়েছেন তার বাবা-মাসহ পরিবারের অন্য সদস্যরা। কারণ মিথিলার উপার্জনেই চলত সংসার।

মিথিলার বাবা স্বপন শীল বলেন, “একসময় সেলুনে কাজ করতাম আমি। অসুস্থতার কারণে এখন সে কাজ করতে পারি না। আমার আয়ের কোনো পথ নেই। মেয়ে আমাদের সংসার চালাত। এখন আমরা কীভাবে বাঁচব?”

এরপর তিনি আরও বলেন, “চট্টগ্রামের বারিক বিল্ডিং এলাকার কালীবাড়ি সড়কের ‘আমরা গত তিন বছর ধরে রণজিত ভবনে’র ভাড়া বাসায় থাকি। প্রতি মাসে ভাড়াসহ সব মিলিয়ে ১২ হাজার টাকার মতো ব্যয় হয়। এ ছাড়া বাজার খরচ থেকে শুরু করে প্রয়োজনীয় সব কেনাকাটার জন্য মাসের শুরুর আগেই টাকা পাঠিয়ে দিতেন মিথিলা। এখন মেয়ে নেই। কিভাবে আসবে এই খরচ? কিভাবে চলবে এই সংসার কিছুই ভাবতে পারছি না। ”

উল্লেখ্য মিথিলা আত্মহত্যার আগে তিন পৃষ্ঠার সুইসাইড নোটে লিখে গেছেন। সেখানে স্বামী এবং তার পরিবারের সদস্যদের অবহেলার কথা বলেছেন তিনি। এদিকে মেয়ে মিথিলার আত্মহত্যার পর তার বাবা স্বপন শীল বাদী হয়ে বন্দর থানায় আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেন। সেই মামলায় স্বামীসহ ৮ জনকে আসামি করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

সোহেল মেহেদী

‘তোর লাগি’ (ভিডিওসহ)

স্টাফ রিপোর্টার :: সোহেল মেহেদী মূলত: আধুনিক গানের শিল্পী। পাশাপাশি নজরুল, সেমি ক্ল্যাসিকাল, ...