গিনেস বুকে ‘ঢাকা পরিচ্ছন্নতা অভিযান’

গিনেস বুকে ‘ঢাকা পরিচ্ছন্নতা অভিযান’

স্টাফ রিপোর্টার :: গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ডে স্থান পেয়েছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) আয়োজিত ‘ঢাকা পরিচ্ছন্নতা অভিযান।’

সোমবার এ সংক্রান্ত একটি সনদ মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকনের হাতে তুলে দেয় গিনেস বুক কর্তৃপক্ষ। ডিএসসিসির প্রধান জনসংযোগ কর্মকর্তা জাকির হোসেন এ তথ্য জানান।

পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচির মাধ্যমে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ড গড়তে প্রতীকী কর্মসূচি পালন করেছিল ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)। পরিচ্ছন্নতায় বিশ্ব রেকর্ড গড়ার লক্ষ্যে গত ১৩ এপ্রিল চৈত্র সংক্রান্তিতে ডিএসসিসি ও রেকিট বেনকিজার বাংলাদেশের যৌথ উদ্যোগে ‘ডেটল পরিচ্ছন্ন ঢাকা’ নামে কর্মসূচি পালন করা হয়। এতে প্রায় ৩০ হাজারের বেশি মানুষ অংশগ্রহণ করলেও রেজিস্ট্রেশন অনুযায়ী কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছিলেন ১৫ হাজার ৩১৩ জন। বিশ্ব রেকর্ড গড়তে এজন্য দরকার ছিল ৫ হাজার ৫৮ জনের রেজিস্ট্রেশন।

ডিএসসিসি সূত্র জানায়, ভারতের আহমেদাবাদের কাছের একটা শহরে ৫ হাজার ২৬ জনকে নিয়ে এক কিলোমিটার রাস্তা পরিষ্কার করার মাধ্যমে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে স্থান করার একটি রেকর্ড রয়েছে। সেই রেকর্ড ভাঙার চেষ্টা করার পাশাপাশি পরিচ্ছন্নতায় জনগণকে সচেতন করতে এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল। ভারতের ওই শহরে যে সংখ্যক মানুষকে নিয়ে সড়ক পরিষ্কার করে বিশ্ব রেকর্ড গড়া হয়েছে, সেই সংখ্যার চেয়ে বেশি পরিচ্ছন্নতাকর্মী তাদের রয়েছে।

এ অবস্থায় নিজেদের কর্মীদের দিয়ে অভিযান চালানো হলেও রেকর্ডটি ভাঙা সম্ভব। এর বাইরে নগরবাসীকে সম্পৃক্ত করে রেকর্ড সংখ্যক মানুষকে উপস্থিত করে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নাম লেখার পাশাপাশি সচেতনতা বৃদ্ধি করা যাবে। এজন্য বাংলা নববর্ষের বিদায়কালে উদ্যোগটি বাস্তবায়ন করে ডিএসসিসি।

কর্মসূচিতে ডিএসসিসির নিজস্ব পরিচ্ছন্নতাকর্মী, কর্মকর্তা-কর্মচারীর পাশাপাশি বিভিন্ন সেবা সংস্থা, স্কুল-কলেজ, সরকারি, বেসরকারি, আধাসরকারি প্রতিষ্ঠান, সামাজিক ও পেশাজীবী সংগঠন, রাজনৈতিক দলের কর্মীসহ সাধারণ নগরবাসী অংশগ্রহণ করেছেন। রেজিস্ট্রেশনকালে পরিচ্ছন্নতা কাজে অংশ নেওয়ার জন্য সবার হাতে একটি করে ঝাড়ু, মাথায় ক্যাপ ও মুখে মাস্ক দেওয়া হয়। ঝাড়ুর সঙ্গে একটি বারকোড ও হাতে নির্দিষ্ট যন্ত্রবিশেষ দেওয়া হয়।

গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড কর্তৃপক্ষ ড্রোন, স্যাটেলাইট ও লাইভ ভিডিওসহ তাদের নিজস্ব পদ্ধতিতে উপস্থিতি গণনা করে। সকাল ৯টায় এ পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন মেয়র সাঈদ খোকন।

কর্মসূচি পালনকালে উপস্থিতির সংখ্যা ৫ হাজার ৫৮ জন অতিক্রম করার পরপরই সাঈদ খোকন বলেছিলেন, ঢাকাবাসী, আমরা রেকর্ড ভেঙেছি। এই রেকর্ড জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে উৎসর্গ করলাম। এই রেকর্ডের মধ্য দিয়ে বিশ্বের কাছে প্রমাণ করেছি, ঢাকাবাসী পরিষ্কার নাগরিক।

রেকর্ড গড়ার ঝাড়ু সবাইকে বাসায় নিয়ে ইতিহাসের সাক্ষী হিসেবে তুলে রাখার অনুরোধ জানান তিনি।

এদিকে, গিনেজ বুকে ডিএসসিসির করা নতুন বিশ্ব রেকর্ড সম্পর্কে বিস্তারিত জানাতে আগামীকাল মঙ্গলবার বেলা ১১টায় এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেছে ডিএসসিসি।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

স্টাফ রিপোর্টার :: জামালপুরে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে ২০ হাজার কোটি টাকার ...