গাড়ি থেকে টেনে নামিয়ে গণধর্ষণ ১০ মহিলাকে!

jjজাঠ বিক্ষোভ চলাকালীন গত সোমবার রাতে মুরথাল গ্রামে জাতীয় সড়কের উপরে দিল্লির দিক থেকে আসা বেশ কিছু গাড়ি থামিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয় বিক্ষোভকারীরা। গাড়িগুলিতে আগুন ধরিয়ে দেওয়ায় গাড়ীর মহিলা যাত্রীদের পালানোরও উপায় ছিল না।

গাড়ি আটকে প্রথমে তাতে আগুন ধরিয়ে দিচ্ছে একদল যুবক। তার পরে গাড়ি থেকে নামিয়ে একের পর এক মহিলাকে হাইওয়ের ধারে ক্ষেতে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণ করা হচ্ছে।

জাঠ বিক্ষোভের নামে গত সোমবার এইভাবেই হরিয়ানার মুরথাল গ্রামে অন্তত ১০জন মহিলাকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠল। পুলিশ এই অভিযোগ অস্বীকার করলেও সংবাদপত্রের খবর দেখে স্বতঃপ্রণোদিত মামলা দায়ের করে হয়ে পঞ্জাব এবং হরিয়ানার হাইকোর্ট এই ঘটনার উচ্চপর্যায়ের তদন্তের জন্য পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছে।

বুধবার একটি ইংরেজি দৈনিকে দাবি করা হয়, জাঠ বিক্ষোভ চলাকালীন গত সোমবার রাতে মুরথাল গ্রামে জাতীয় সড়কের উপরে দিল্লির দিক থেকে আসা বেশ কিছু গাড়ি থামিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয় বিক্ষোভকারীরা। গাড়িগুলিতে আগুন ধরিয়ে দেওয়ায় মহিলা যাত্রীদের পালানোরও উপায় ছিল না। এর পরে জাতীয় সড়কের পাশের ক্ষেতে নিয়ে গিয়ে অন্তত ১০জন মহিলাকে গণধর্ষণ করে জনা তিরিশের একটি দুষ্কৃতী দল। দীর্ঘক্ষণ ক্ষেতের মধ্যে পড়ে থাকার পরে মহিলাদের চিৎকার এবং কান্না শুনে স্থানীয় বাসিন্দারা তাঁদের উদ্ধার করেন। প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া দূরে থাক, পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে সম্মানহানির ভয় দেখিয়ে আক্রান্ত মহিলাদের অভিযোগ দায়ের করতে মানা করে।

একটি ইংরেজি দৈনিকে এই খবর দেখে পঞ্জাব এবং হরিয়ানা হাইকোর্টের এক বিচারপতি ঘটনার কথা অর্ন্তবর্তী প্রধান বিচারপতির নজরে আনেন। এর পরেই স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে অভিযোগ খতিয়ে দেখার জন্য পুলিশকে উচ্চ পর্যায়ের তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।
যদিও এখনও পুলিশের দাবি, এমন কোনও ঘটনাই ঘটেনি। সোনিপতের পুলিশ সুপারও দাবি করেছেন, এই ধরনের কোনও ঘটনার অভিযোগ দায়ের হয়নি।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

শিবগঞ্জের জঙ্গি আস্তানা

শিবগঞ্জের জঙ্গি আস্তানা থেকে চারজনের মরদেহ উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার :: চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবপুর উপজেলার শিবনগর গ্রামে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে একটি ...