খালেদা, রনি, ইমরান এবং হিরো আলমের মনোনয়নপত্র বাতিল

স্টাফ রিপোর্টার :: দণ্ডপ্রাপ্ত হওয়ায় ফেনী- ১ আসনে বেগম খালেদা জিয়ার মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে।

মনোনয়ন পত্র বাছাইয়ের প্রথম দিন আজ রোববার সকালে জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং অফিসার মো. ওয়াহিদুজ্জামান খালেদার মনোনয়নপত্রটি বাতিল ঘোষণা করেন।

মো. ওয়াহিদুজ্জামান বলেন, বিচারিক (নিম্ন) আদালতে দুই বছরের বেশি সাজাপ্রাপ্ত হলে আপিলে বিচারাধীন অবস্থায় কোনও ব্যক্তি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারবে না বলে আদেশ দেন হাইকোর্ট। এর জন্যই খালেদা জিয়ার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে।

এর আগে ফেনী-১, বগুড়া-৬ ও বগুড়া-৭ আসনে খালেদা জিয়ার মনোনয়নের চিঠি হস্তান্তরের মধ্য দিয়ে ধানের শীষের প্রার্থীদের প্রত্যয়নপত্র দেয়া শুরু করেছে বিএনপি।

বগুড়া দুটি আসনে খালেদা জিয়ার পক্ষে জেলা বিএনপির সভাপতি সাইফুল ইসলাম এবং চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের কাছ থেকে প্রত্যয়নপত্র গ্রহণ করেন।

পরে ফেনী-১ আসনে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মনোনয়নপত্র জমা দেয়া হয়। খালেদা জিয়ার পক্ষে মনোনয়নপত্র জমা দেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য রেহানা আক্তার রানু, আবদুল লতিফ জনি, মো. আবু তালেব।

উল্লেখ্য, বিএনপির চেয়ারপারসন দুটি দুর্নীতি মামলায় ১৭ বছরের কারাদণ্ড ভোগ করছেন। জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় নিম্ন আদালতের রায় স্থগিত, সাজা ভোগ বাতিল ও জামিন চেয়ে উচ্চ আদালতে আপিল করেছেন। আর জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় উচ্চ আদালত সাজা বাড়িয়ে ১০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন।

সদ্য বিএনপিতে যোগ দেয়া গোলাম মাওলা রনির হলফনামায় স্বাক্ষর না থাকায় মনোনয়নপত্র (পটুয়াখালী -৩) বাতিল করেছে রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. মতিউল ইসলাম চৌধুরী।

রোববার সকালে ঢাকা বিভাগের রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে এ তথ্য জানানো হয়।

মো. মতিউল ইসলাম চৌধুরী বলেন, মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়া প্রার্থীরা আগামী তিন দিনের মধ্যে নির্বাচন কমিশন বরাবর আপিল করতে পারবেন।

এছাড়া বিএনপি মনোনীত অপর প্রার্থী শাহজাহান খান ঋণ খেলাপি হওয়ায় তার মনোনয়নপত্রও বাতিল করা হয়েছে। তবে বিএনপি থেকে মনোনীত অপর প্রার্থী হাসান মামুনের মনোনয়ন বৈধ বলে ঘোষণা করা হয়েছে।

পটুয়াখালী-৩ (গলাচিপা ও দশমিনা) আসনে বিএনপি থেকে মোট তিনজন প্রার্থীকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছিল। এই আসনে মোট সাত প্রার্থী মনোনয়ন দাখিল করলেও তাদের মধ্যে দুইজন ছাড়া বাকি সবার মনোনয়নপত্র বৈধ গ্রহণ করা হয়েছে।

আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ২৮ নভেম্বর মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ছিল। আজ ২ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র বাছাই, প্রার্থিতা প্রত্যাহার ৯ ডিসেম্বর। আর প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হবে ১০ ডিসেম্বর।

গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ডা. ইমরান এইচ সরকারের মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করা হয়েছে। তিনি কুড়িগ্রাম-৪ আসন (রাজিবপুর,রৌমারী ও চিলমারী উপজেলা) থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনের অংশ নিতে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন।

আজ রোববার জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক মোছা. সুলতানা পারভীন তার মনোনয়নপত্র বাতিল বলে ঘোষণা করেন।

সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও রাজিবপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মেহেদী হাসান জানিয়েছেন, নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হতে হলে সংশ্লিষ্ট নির্বাচনি আসনের মোট ভোটারের ন্যূনতম ১% ভোটারের সমর্থন থাকতে হয়। কিন্তু ইমরান এইচ সরকার যে তথ্য দিয়েছেন সেখানে তথ্যে ঘাটতি রয়েছে। যে কারণে তার মনোনয়নপত্রটি বাতিল করা হয়েছে।

যুদ্ধাপরাধী আব্দুল কাদের মোল্লার ফাঁসির দাবিতে ২০১৩ সালে শাহবাগে ছাত্র-জনতার আন্দোলনের পর জনপ্রিয়তা পান ইমরান এইচ সরকার।

রংপুর মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস ডিগ্রি নেয়া ইমরান ছাত্রজীবনে ছাত্রলীগে যুক্ত ছিলেন।

তিনি নির্বাচনে দাঁড়িয়ে উত্তরের জেলা কুড়িগ্রামের রৌমারি, রাজিবপুর ও চিলমারীতে উন্নয়ন করতে চেয়েছিলেন।

বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) আসন থেকে ভোটে অংশগ্রহণেচ্ছুক হিরো আলমের মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করা হয়েছে।

রোববার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে যাচাই-বাছাই শেষে জেলা রিটার্নিং অফিসার ফয়েজ আহাম্মদ মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেন।

তিনি বলেন, বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন তিনি। মনোনয়নপত্রে সাধারণ ভোটারদের স্বাক্ষরে গড়মিল থাকার কারণে হিরো আলমের মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করা হয়।

এইচ এম এরশাদের নেতৃত্বাধীন জাতীয় পাটির লাঙল মার্কার মনোনয়ন না পেয়ে বগুড়া-৪ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন আশরাফুল ইসলাম আলম ওরফে হিরো আলম।

মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিনে নন্দীগ্রাম উপজেলার সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও ইউএনও মোছা.শারমিন আখতারের কাছে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

প্রধান নির্বাচন কমিশনার

ভোট কক্ষ থেকে লাইভ সম্প্রচার করা যাবে না: প্রধান নির্বাচন কমিশনার

স্টাফ রিপোর্টার :: ভোট কক্ষের ভেতরে ছবি তোলা যাবে। কিন্তু সেখান থেকে ...