খনিগর্ভে বিপদের আগাম সংকেত দেবে রোবট

খনিগর্ভে বিপদের আগাম সংকেত দেবে রোবটডেস্ক নিউজ :: বিষাক্ত গ্যাস, আগুন, ধস বা জল ঢুকে যাওয়া৷ কয়লাখনিতে যে কোনও সময় বিপদ ডেকে আনে এই সব বিষয়৷ দুর্ঘটনায় অঙ্গহানি থেকে মৃত্যু পর্যন্ত ঘটে থাকে খনিকর্মী-আধিকারিকদের৷ এবার খনিগর্ভে শ্রমিক-কর্মী-আধিকারিকদের সুরক্ষায় দুর্ঘটনার আগাম বার্তা দেবে রোবট৷
সেণ্ট্রাল মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং রিসার্চ ইনস্টিটিউট (সিএমইআরআই)-এর বিজ্ঞানীরা তৈরি করেছেন এই রোবট৷ পরীক্ষামূলকভাবে তা ব্যবহারও শুরু করা হয়েছে ইস্টার্ন কোলফিল্ডের বর্ধমানের শিল্পাঞ্চলের কোলিয়ারিতে৷ পাণ্ডবেশ্বরের খোট্টাডিহি কোলিয়ারিতে কয়েকদিন আগে এই রোবট তার কার্যক্ষমতা প্রদর্শন করেছে৷
খনিগর্ভে বিপদ ঘটনার আগে বার্তা পাঠিয়ে সতর্ক করেছে দূরনিয়ন্ত্রিত এই রোবট৷ কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনস্হ প্রতিষ্ঠান সিএমইআরআই সূত্রে জানা গিয়েছে, খেলনা গাড়ির আকারের এই রোবট৷ এই রোবটে ক্যামেরা লাগানো রয়েছে৷ রয়েছে বিষাক্ত গ্যাস ও আগুন বুঝতে পারার মতো যন্ত্রও৷ রিমোট কণ্ট্রোলের সাহায্যে এই রোবটকে খনিগর্ভে পাঠানো, তার চলাচল নিয়ন্ত্রণ ও তাকে খনিগর্ভের বাইরে নিয়ে আসা যায়৷ ব্যাটারিচালিত এই রোবট প্রদর্শন করা হয়েছে এই কোলিয়ারির কর্মী-আধিকারিকদের সামনে৷
এই রোবটকে পাকাপাকিভাবে খনিতে ব্যবহারের জন্য খনিকর্মী ও আধিকারিকদের রোবট চালানোর প্রশিক্ষণ দেবেন সিএমইআরআই-এর বিজ্ঞানীরা৷ আপাতত আপাতত কেন্দ্রীয় এই গবেষণা প্রতিষ্ঠানের আধিকারিকরা এই রোবট ব্যবহার করে খনিকর্মীদের সতর্কবার্তা দেওয়ার কাজ করবেন৷
কোলিয়ারির আধিকারিক জে এন হালদার বলেন, “খনিগর্ভে কর্মী ও আধিকারিকদের সুরক্ষা সবার আগে প্রয়োজন৷ ইসিএল সর্বদা সেই বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়েছে৷ কর্মীদের সুরক্ষা দিতে রোবট প্রয়োগের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে৷ পরীক্ষামূলকভাবে রোবট ব্যবহার করা হচ্ছে৷ এতে সফল হলে পাকাপাকিভাবে কোলিয়ারিতে রোবট ব্যবহার করা হবে৷”
কীভাবে কাজ করবে এই রোবট?
সিএমইআরআই ও ইস্টার্ন কোলফিল্ড সূত্রে জানা গিয়েছে, খনিগর্ভে শ্রমিক-কর্মচারী বা আধিকারিকদের নামার আগে রোবটকে পাঠানো হবে৷ রোবট সবুজ সংকেত দিলে নামানো হবে কর্মীদের৷ রোবটের মনিটরিং করা হবে কম্পিউটারের মাধ্যমে৷ খনিগর্ভে আগুন লাগার সম্ভাবনা বা বিষাক্ত গ্যাস থাকলে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে৷ রোবট খনিগর্ভে গিয়ে সেই সংক্রান্ত তথ্য সেন্সরের মাধ্যমে পাঠাবে কম্পিউটারে৷ তার মাধ্যমে বিশেষজ্ঞরা বিশ্লেষণ করে দেখবেন কতটা বিপদের সম্ভাবনা৷ তার পর তাঁরা ঠিক করবেন কর্মী-আধিকারিকদের খনিগর্ভে পাঠানো হবে কি না৷
খনিগর্ভে কর্মী-সুরক্ষায় অত্যাধুনিক হচ্ছে ইস্টার্ন কোলফিল্ড৷ পরীক্ষায় রোবট উত্তীর্ণ হলেই পাকাপাকিভাবে খনিগর্ভে কাজ করবে রোবট৷ বেতন ছাড়াই৷
Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

সংসদ নির্বাচন ঘিরে ‘সাইবার যুদ্ধের’ শঙ্কা

ষ্টাফ রিপোর্টার :: বাংলাদেশে রাজনৈতিক প্রচার-প্রচারণার ক্ষেত্রে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, বিশেষ করে ...