ব্রেকিং নিউজ

“এসডিজি অর্জনে পানি ও স্যানিটেশনকে পৃথকভাবে গুরুত্ব দিতে হবে”

????????????????????????????????????

ষ্টাফ রিপোর্টার :: ‘আমাদের দেশের গ্রামের ৮৭ শতাংশ মানুষ উন্নত উৎসের পানি সুবিধার আওতায় থাকলেও দেশে ১ শতাংশ পরিবার এখনও খোলা জায়গায় মলমূত্রত্যাগ করছে। স্যানিটেশন ব্যবহার ‘শূন্যে’ নামিয়ে আনাই এখন সরকারের চ্যালেঞ্জ। সংবিধানে সকল নাগরিকের জন্য সুযোগের সমতা বিধান নিশ্চিত করার পাশাপাশি এসডিজি অর্জনে পানি ও স্যানিটেশন খাতকে পৃথকভাবে গুরুত্ব দিতে হবে’।

আজ শনিবার (৩০ জুলাই) সকালে রাজধানীর শেওড়াপাড়াস’ বেসরকারী সংস্থা ‘ডরপ’ এর সভা কক্ষে ‘পানি ও স্যনিটেশন অধিকার: সহজ পাঠ’ শিরোনামের পুস্তিকাটির মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে বক্তারা এ কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে এ সময় বক্তারা আরো বলেন, শহরের জন্য পানি ও স্যানিটেশন খাতে জনপ্রতি বরাদ্দ ৯০০ টাকা। অথচ চরবাসীর জন্য জনপ্রতি ১১ এবং পাহাড়ি জনগোষ্ঠীর জন্য ২২ টাকা, উপকূলীয় জনগোষ্ঠীর জন্য ২০০ টাকা বরাদ্দ। বিদ্যমান এ বৈষম্য পানি ও স্যানিটেশন সেক্টরের উন্নয়নে সবচেয়ে বড় বাধা।

বক্তারা বলেন, পিছিয়ে পড়া পার্বত্য, চর, হাওর, উপকূল, নদী ভাঙ্গা ও চা-বাগান এলাকাগুলোতে স্যানিটেশনের উন্নয়নে আরো কাজ করতে হবে। পাশাপাশি টেকসই প্রযুক্তির স্যানিটেশন ব্যবস্থা গড়ার দিকে জোর দিতে হবে। পানি ও স্যানিটেশন খাতে বাজেট বরাদ্দ বৃদ্ধির পাশাপাশি বরাদ্দকৃত বাজেট সঠিক সময়ে মাঠপর্যায়ে পৌছানো, মানসম্মত বাস্তবায়ন ও জনগণের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে। দারিদ্র্য হ্রাস করণের পাশাপাশি জনমান উন্নয়ন ও প্রবৃদ্ধি বৃদ্ধিসহ আয় বাড়ানোর জন্য পানি ও স্যানিটেশনকে আলাদা খাত হিসেবে চিহ্নিত করে বাজেট বরাদ্দের মাধ্যমে সকলের অধিকার নিশ্চিত করার আহবান জানান বক্তারা। পাশাপাশি দারিদ্র বিমোচনকে অগ্রাধিকার দিয়ে সরকারের মাতৃত্বকালীন ভাতা ও স্বপ্ন প্যাকেজ কর্মসূচীকে আরো এগিয়ে নিয়ে যাবারও আহবান জানান বক্তারা।

ডরপ এর প্রতিষ্ঠাতা ও গুসি আন্তর্জাতিক শান্তি পুরষ্কার বিজয়ী এএইচএম নোমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী মো: ওয়ালী উল্লাহ পুস্তিকাটির মোড়ক উন্মোচন করেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক শাহনওয়াজ দিলরুবা খানম।

ডরপ এর গবেষণা প্রধান মোহাম্মদ যোবায়ের হাসানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক ড. হামিদুল হক, বাংলাদেশ ওয়াস এ্যালায়েন্সের কান্ট্রি কো-অর্ডিনেটর অলক কুমার মজুমদার, এডিডি ইন্টারন্যাশনালের কান্ট্রি কো-অর্ডিনেটর শফিকুল ইসলাম, ওয়াটার এইড এর পরিচালক (প্রোগ্রাম ও পলিসি এডভোকেসি) ড. লিয়াকত আলী, সিনিয়ার সাংবাদিক তারিক হাসান শাহরিয়ার, হ্যালভিটাস সুইস ইন্টারকোঅপারেশনের ডেপুটি কান্ট্রি ডিরেক্টর উম্মে হাবিবা, লেখক ও সাংবাদিক খায়রুল বাবুই, গবেষক রোকেয়া আক্তার, ডরপ’র ম্যানেজার প্রশাসন মো. হায়দার আলী খান, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগি অধ্যাপক এমএ বাকী, ডা. স্বর্ণা ত্রিবেদী, সংবিধান প্রচার আন্দোলন কর্মী ও সাংবাদিক নূহ আব্দুল্লাহ, লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলার সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আশ্রাফ উদ্দিন প্রমূখ।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

বরিশালে উপকূল দিবস উপলক্ষে মানববন্ধন ও আলোচনা সভা

বরিশালে উপকূল দিবস উপলক্ষে মানববন্ধন ও আলোচনা সভা

বিশেষ প্রতিনিধি :: ১৯৭০ সালের প্রলয়ঙ্করী ঘুর্ণিঝড় স্মরণে মানববন্ধন,  শোভাযাত্রা ও আলোচনা ...