এটিএম কার্ড লাগবে না, স্মার্টফোনেই টাকা!

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

কথা বলা, গান শোনা, ইন্টারনেট এমনি আরও অনেক অনেক ‍প্রয়োজনে আধুনিক জীবনের অপরিহার্য অঙ্গ স্মার্টফোন। এবার স্মার্টফোন দিয়ে ব্যাংকের এটিএম থেকে টাকাও তোলা যাবে।

মানে ব্যাংকের এটিএম মেশিন থেকে টাকা তুলতে আর প্রচলিত কার্ড লাগবে না। এর বদলে স্মার্টফোনের বাটন টিপলেই বুথের মুখ থেকে বেরিয়ে আসবে টাকা।

ইতোমধ্যেই ওয়েলস ফার্গো, ব্যাংক অব আমেরিকার মত যুক্তরাষ্ট্রের বড় বড় ব্যাংকগুলো সেদেশে এই স্মার্টফোন ভিত্তিক এটিএম বুথ স্থাপন করেছে।

স্মার্টফোনের এই প্রযুক্তির মাধ্যমে বুথ থেকে টাকা তোলা আরও নিরাপদ, স্বচ্ছন্দ বলেও জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

নতুন এই প্রযুক্তিতে স্মার্টফোনের মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনের মধ্যে আছে কোডের ব্যবস্থা। এই কোড পাঠিয়ে দিলেই সংশ্লিষ্ট এটিএম থেকে টাকা তুলতে পারবেন স্মার্টফোনধারী গ্রাহক।

আর এই প্রযুক্তিতে সবচেয়ে বেশি অসুবিধায় পড়বে এটিএম কার্ডভিত্তিক জালিয়াতচক্র। এটিএম বুথ থেকে কার্ড জালিয়াতির মাধ্যমে টাকা তুলে নিতে পারবে না তারা। যেমনটা কয়েকদিন আগে ঘটেছিলো বাংলাদেশে।

সাধারণত এটিএম কার্ডের স্লটে নিজেদের ডিভাইস বসিয়ে গ্রাহকদের কার্ডের ডাটা চুরি করে থাকে জালিয়াতরা। পরে জাল কার্ডে সেই ডাটা বসিয়ে উঠিয়ে নেয় গ্রাহকের কষ্টার্জিত অর্থ।

এভাবে জালিয়াতির মাধ্যমে গ্রাহকদের পকেট মেরে নেয়ার অঙ্কটাও কিন্তু কম নয়। ২০১৫ সালে এভাবেই সারা বিশ্বে ২ বিলিয়ন ডলারেরও বেশি অর্থ মেরে নিয়ে গেছে জালিয়াত চক্র।

এছাড়া বুথে কার্ড ঢুকিয়ে টাকা তুলতে যেখানে পুরো প্রক্রিয়া সম্পন্ন হতে প্রচলিত পদ্ধতিতে সময় লাগে ৪০ সেকেন্ড থেকে এক মিনিট, সেখানে স্মার্টফোনের মাধ্যমে দশ সেকেন্ডেই পুরো হবে টাকা তোলার সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া।

গত বছর পরীক্ষামূলকভাবে শুরুর পর খুব অল্প সময়ের মধ্যেই উত্তর আমেরিকার দেশগুলোতে জনপ্রিয়তা পেয়েছে এই প্রযুক্তি। বিশ্বের এটিএম প্রস্তুতকারক সংস্থা ও সফটওয়্যার ফার্মগুলো এখন ব্যস্ত ব্যাংকগুলোর চাহিদার সামাল দিতে।

এটিএম প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান এফআইএস গ্লোবালের ডগ ব্রাউন বলেন, আমি মনে করি এই প্রযুক্তি অনেক ধরনের সমস্যার সমাধান দেবে। ইতোমধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রের ২৮টি ব্যাংক নিজেদের দুই হাজারেরও বেশি বুথে তাদের স্মার্টফোনভিত্তিক কার্ডলেস এটিএম ব্যবহার করছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

খুব দ্রুত এই প্রযুক্তির প্রসার হচ্ছে উল্লেখ করে আগামী দেড় বছরের মধ্যেই উত্তর আমেরিকায় এ ধরনের ৮০ হাজার এটিএম মেশিন বসতে যাচ্ছে বলে জানান তিনি।

মার্কিন মুলুকের পর আর হয়তো বেশিদিন নেই, যখন বাংলাদেশের মোড়ে মোড়েও দেখা যাবে এই মাথাবিহীন (মনিটর) এটিএম মেশিন। যেখান থেকে টাকা তুলতে লাগবে না কোনো এটিএম কার্ড। টাকা তুলতে যথেষ্ট হবে হাতের স্মার্টফোনটিই।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

শিবগঞ্জের জঙ্গি আস্তানা

শিবগঞ্জের জঙ্গি আস্তানা থেকে চারজনের মরদেহ উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার :: চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবপুর উপজেলার শিবনগর গ্রামে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে একটি ...