ব্রেকিং নিউজ

ই-এশিয়া শুরু

বৃহস্পতিবার থেকে তিন দিনব্যাপী ঢাকার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হচ্ছে এশিয়ার অন্যতম প্রধান তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক অনুষ্ঠান ই-এশিয়া। ই-এশিয়ার গুরুত্বপূর্ণ আয়োজনগুলো টেলিভিশন এবং ওয়েবসাইটে সরাসরি সম্প্রচারের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ই-এশিয়ার উদ্বোধনী ও রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমান সমাপনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন। এটি ই-এশিয়ার পঞ্চম আয়োজন।

এশিয়ার অন্যতম বৃহৎ তথ্যপ্রযুক্তি আয়োজন ই-এশিয়ার প্রচারে বিশেষ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আয়োজক সূত্র এ তথ্য জানিয়েছে।

বাংলাদেশ টেলিভিশন, অনুষ্ঠানের মিডিয়া পার্টনার এটিএন নিউজসহ বিভিন্ন বেসরকারি টিভি চ্যানেলে এ সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সরাসরি সম্প্রচার করছে। বাংলাদেশ বেতার ও অন্য সব এফএম রেডিওগুলোতে সম্মেলন স্থান থেকে সরাসরি ধারাভাষ্য দেওয়া হচ্ছে। এ উপলক্ষে বিটিভিসহ বিভিন্ন চ্যানেলে বিশেষ টক শো দেখানো হবে।

এ প্রসঙ্গে বিজ্ঞান এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) মন্ত্রণালয়ের পরামর্শক মুনির হাসান জানান, দেশ-বিদেশের সবাই যেন ই-এশিয়া আয়োজন দেখতে পারে, এ সম্পর্কে জানতে পারে এ জন্য ইন্টারনেট মাধ্যমকে ব্যবহার করা হচ্ছে।

এ ছাড়াও সেমিনারগুলোতে ভার্চুয়াল অংশগ্রহণেরও সুযোগ থাকবে। এ সম্মেলনের উদ্বোধনী ও সমাপনী অনুষ্ঠান বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলে প্রচার করা হবে।

প্রযুক্তিমেলার অন্যতম আকর্ষণ ‘মিট দ্য টেকনোলজি লিডার’ অধিবেশন এবং ফ্রিল্যান্সার সম্মেলন সরাসরি ওয়েবে দেখানো হবে। ১ থেকে ৩ ডিসেম্বর ঢাকার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এশিয়ার অন্যতম তথ্যপ্রযুক্তি প্রদর্শনী ই-এশিয়া।

প্রযুক্তিভিত্তিক উন্নয়নে এশীয় দেশগুলোর মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতার পথ সুগম করতেই ই-এশিয়া সম্মেলন আয়োজন করা হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ আন্তর্জাতিক প্রদর্শনীর উদ্বোধন করবেন। এবারের ই-এশিয়ার আয়োজক বিজ্ঞান ও আইসিটি মন্ত্রণালয়ভুক্ত বাংলাদেশ কমপিউটার কাউন্সিল (বিসিসি)।

ই-এশিয়াতে অনুষ্ঠিত ৩০টি সেমিনার (www.comjagat.com), (www.e-asia.org) এবং (www.drik.tv) এ তিনটি সাইটে সরাসরি সম্প্রচারের পরিকল্পনা করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রবেশ মূল্য ১০ টাকা রাখা হয়েছে। তবে, শিক্ষার্থীদের পরিচয়পত্র প্রদর্শন ও অন্যান্য পেশাজীবীদের ভিজিটিং কার্ড প্রদর্শন সাপেক্ষে বিনামূল্যে প্রবেশের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

ই-এশিয়াতে ভারত, চীন, মালয়েশিয়া, শ্রীলংকা, জাপান ও থাইল্যান্ডের ছয়টি প্যাভিলিয়ন এবং নেদারল্যান্ডস, ডেনমার্ক, নরডিক চেম্বার এবং অ্যানটিএফ-২-এর প্রজেক্ট স্টল থাকবে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।

ইউনাইটেড নিউজ ২৪ ডট কম/ইউএন নিউজ

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

এশিয়ার উদ্ভাবনী দেশের তালিকায় তলানিতে বাংলাদেশ

ডেষ্ক নিউজ :: এশিয়ার উদ্ভাবনী দেশের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে সিঙ্গাপুর। আর বাংলাদেশের ...