আসন্ন বাজেটে কালো টাকাকে বৈধতা না দিতে সরকারের প্রতি টিআইবি’র আহ্বান

টিআইবিস্টাফ রিপোর্টার :: আসন্ন ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরের জাতীয় বাজেটে আবাসনসহ বিবিধ খাতে লগ্নীকৃত অর্থের উৎস না জানানোর সুযোগ প্রদানের জন্য খাত সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) – এর কাছে দাবি উত্থাপনের সংবাদে উদ্বেগ প্রকাশ করে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ এই অসাংবিধানিক, অনৈতিক এবং বৈষম্য সৃষ্টিকারী সুযোগ প্রদান থেকে বিরত থাকতে সরকারের প্রতি জোরালো আহ্বান জানিয়েছে।
 
মঙ্গলবার (৪ মার্চ) এক বিবৃতিতে টিআইবি’র নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, “কালো টাকাকে বৈধতা প্রদান সংবিধানের ২০ (২) ধারার সাথে সাংঘর্ষিক। এই চর্চা সরকারের নির্বাচনী অঙ্গীকারেরও পরিপন্থী এবং দুর্নীতি প্রসারে সহায়ক ও সুরক্ষা প্রদানের সমার্থক। কালো টাকা উপার্জনকে বৈধতা দেওয়া শুধু অনৈতিক নয়, দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞতায় এটিও প্রমাণিত যে, এই জাতীয় অসাধু সুযোগ ধারাবাহিকভাবে প্রদান দেশের অর্থনীতিতে মোটেও ইতিবাচক অবদান রাখে না, রাজস্ব আদায়ের ক্ষেত্রেও কোন সহায়ক ভূমিকা পালন করে না। অন্যদিকে কালো টাকাকে বৈধতা প্রদান অব্যাহত রাখা দুর্নীতি সহায়ক মহল কর্তৃক সরকারের নীতি কাঠামোর উপর অযাচিত প্রভাব বিস্তারের বিব্রতকর দৃষ্টান্ত।’’
 
এ ধরনের অনৈতিক দাবির কাছে নতি স্বীকার করে আসন্ন বাজেটে উল্লিখিত সুবিধা প্রদান করা হলে বর্তমান সরকারের দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা ভিশন ২০২১, সপ্তম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা ও জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশলে বিধৃত নিজস্ব প্রতিশ্রুতির ব্যত্যয় ঘটবে বলে মনে করে টিআইবি। কালো টাকা বৈধতা দেয়ার সুযোগ চিরতরে বন্ধ করার সুস্পষ্ট ঘোষণা প্রদানের জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানায় টিআইবি। 
Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

‘আমাকে এখনও কেন হাসপাতালে নেওয়া হচ্ছে না’

ষ্টাফ রিপোর্টার :: বিএনপি চেয়ারপারসন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া ৮ মাস ...