আশা জাগিয়েও হেরে গেল বাংলাদেশ

91625494_hero_ইমরুলের শতক এবং সাকিবে দ্রুতগতির অর্ধশতকে জয়ের তীরে এসেও ১৭ রানের ব্যবধানে ৬ উইকেট হারিয়ে ২১ রানে হারে বাংলাদেশ।

ssপ্রস্তুতি ম্যাচে করেছিলেন দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি। ওয়ানডেতে ফিরে শুরুটাও দারুণ করেন ইমরুল কায়েস। বাঁহাতি ব্যাটসম্যান রানের খাতাই খোলেন ছক্কা হাঁকিয়ে। ক্রিস ওকসের করা ইনিংসের তৃতীয় বলটি দারুণ ফ্লিকে গ্যালারিতে নিয়ে ফেলেন। ওই ওভারের শেষ বলে মারেন চার। ৩১০ রান তাড়া করতে নামা বাংলাদেশ প্রথম ওভারে তোলে ১১।

বাংলাদেশ শিবিরে প্রথম আঘাত হানেন অভিষিক্ত জ্যাক বল। ইনিংসের দশম ও তার প্রথম ওভারের পঞ্চম বলে জেমস ভিন্সকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তামিম ইকবাল (৩১ বলে ১৭)। উদ্বোধনী জুটিতে আসে ৪৬ রান। ওভারের শেষ বলে চার মেরে রানের খাতা খোলেন তিন নম্বরে নামা সাব্বির রহমান।

ইমরুলকে যোগ্য সঙ্গ দিয়ে দলকে ভালোই এগিয়ে নিচ্ছিলেন সাব্বির। কিন্তু বলের ওভারে উইলির দুর্দান্ত এক ক্যাচে বিদায় নিতে হয় তাকে। আগের বলেই মিডঅন দিয়ে দর্শনীয় একটি চার মেরেছিলেন। পরের বলটি তুলে মেরেছিলেন ডিপ মিডউইকেটের ওপর দিয়ে। ছক্কাই হতে পারতো। ক্যাচ ধরে বাউন্ডারির দিকে চলে যাচ্ছিলেন ফিল্ডার উইলি। তবে শেষ মুহূর্তে বল বাতাসে ভাসিয়ে বাউন্ডারি লাইনের বাইরে এক পা ফেলে আবার ভেতরে এসে ক্যাচটি ধরেন তিনি। ১১ বলে ৩ চারে ১৮ রান করেন সাব্বির।

এরপর কায়েসের সাথে বেশ ভাল বনিবনা হয়েছিল মাহমুদুল্লাহর। ৫০ বলে ৫০ রানের জুটিটির জন্য জয়ের কক্ষপথে ছিল বাংলাদেশ। কিন্তু ২৩তম ওভারের দ্বিতীয় ওভারে আদিল রশিদের বলে উঠিয়ে সুইপ করতে গিয়ে ২৬ বলে ২৫ রান করে স্যাম বিলিংসের তালু বন্দি হন মাহমুদুল্লাহ। দলীয় ২১ রান যোগ করতে না করতেই স্লগ সুইপ খেলতে গিয়ে তিনি স্যাম বিলিংসের হাতে ক্যাচ দেন তিনি।

Untitled-2

মাহমুদুল্লাহ এবং মুশফিকের দায়িত্বহীন ব্যাটিংয়ের পর পঞ্চম উইকেটে ইমরুলের সাথে জুটি গড়ের সাকিব আল হাসান। ৪৩ বলে অর্ধশতক করা ইমরুল কায়েস আশির ঘরে গিয়ে পায়ে টান পান। তারপরেও ব্যাট চালিয়েছেন আর রান নিয়েছেন খুড়িয়ে। ১০৫ বলে উইলির ওভার থ্রোতে চার পেলে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় শতকে পৌছান তিনি।

ক্রিজের অপর প্রান্তে সময় গড়ানোর সাথে সাথে চড়া হয় সাকিবের ব্যাট। ৩৯ বলে অর্ধশতকে পৌছান সাকিব আল হাসান।

৫৫ বলে ৭৯ রান করে অভিষিক্ত জেক বলের বলে ক্যাচ আউট হন সাকিব। তারপরের বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন মোসাদ্দেক। স্কোর বোর্ডে ৩ রান যোগ করতে না করতে আদিল রশিদের বলে কট বিহাইন্ডের শিকার হন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা।

Untitled-3

মাশরাফির সাজঘরে ফেরার পর ৬ রান যোগ করতে না করতে রশিদের বলে স্টাম্পিংয়ের শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন ইমরুল। ১১৯ বলে ১১০ রানের ইনিংসটি ১১টি চার এবং ২টি ছয় সমৃদ্ধ।

স্কোর বোর্ডে ১৭ রান যোগ করতে না করতেই ৬ উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়ে বাংলাদেশ।

ইংল্যান্ডের অভিষিক্ত জ্যাক বল ৫টি এবং আদিল রশিদ ৪টি উইকেট পান।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ক্রেন থেকে ভারি মালামাল মাথায় পড়ে ২ শ্রমিক নিহত

ষ্টাফ রিপোর্টার :: রাজধানীর শ্যামপুরে বড়ইতলা এলাকায় কাজ করার সময় একটি নির্মানাধীন ...