আলোচিত ৭ রাজকীয় বিয়ে

২০১১ সালে রূপকথার রাজপুত্র উইলিয়াম আর কেট মিডলটনের স্বপ্নময় বিয়ে বিশ্বের কোটি মানুষ প্রত্যক্ষ করেছে। এ যাত্রায় আলোড়ন তুলেছেন ভুটানের রাজাও। তিনি দীর্ঘ প্রেমের পর পেমা ডাটসানকে স্ত্রীর মর্যাদা দিয়ে ঘরে তুলেছেন।

তা নিয়ে বাংলাদেশসহ এশিয়াজুড়ে ছিল নানা উন্মাদনা। এখানে ২০১১ সালের রাজকীয় বিয়েগুলো সংক্ষেপে তুলে ধরা হলো:
উইলিয়াম-কেট: বৃটেন
কল্পনার সিন্ডালোর কাহিনী যদি বাস্তবে ঘটতো, তবে কি মজাই না হতো! সেই রূপকথার গল্পকেই, বাস্তবে রূপ দেয়ার নতুন কাহিনীর নাম উইলিয়াম-কেট বিয়ে। বৃটিশ রাজপরিবারের উত্তরাধিকারী প্রিন্স উইলিয়াম ও তার স্ত্রী কেট মিডলটনের রাজকীয় বিয়ে এ বছরের সবচেয়ে আলোচিত ঘটনাগুলোর একটি। ২০১১ সালের সবচেয়ে জাঁকজমক ও আড়ম্বরপূর্ণ এ বিয়ে অনুষ্ঠিত হয় ২৯শে এপ্রিল। লন্ডনের ওয়েস্টমিনিস্টার অ্যাবেতে এজন্য নেয়া হয়েছিল সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা। সারা বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় নেতৃবৃন্দ নিমন্ত্রণ পেয়েছিলেন এ বিয়েতে। ডিউক ও ডাচেস অব ক্যামব্রিজের শুভ পরিণয় দেখতে সারা বিশ্বের ৭২ কোটি মানুষ চোখ রেখেছিলেন অনলাইনে। টেলিভিশনের সামনে বসে অনুষ্ঠান দেখা কোটি কোটি দর্শকের কথা না হয় বাদই থাকলো। একটি ঘটনা প্রত্যক্ষ করতে অনলাইনে একসঙ্গে বিশ্বের এতো দর্শক জড়ো হওয়ার ঘটনা এটাই প্রথম। গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসও সে স্বীকৃতি জানাতে ভুলে যায়নি।
অ্যালবার্ট-চার্লিন: মনাকো
এ বছরের দ্বিতীয় রাজকীয় বিয়ের অনুষ্ঠানটি আয়োজন করা হয় মনাকো রাজবংশে। গত ২রা জুলাই মনাকোর রাজকুমার প্রিন্স দ্বিতীয় অ্যালবার্ট বিয়ে করেন প্রিন্সেস চার্লিনকে। অলিম্পিক গেমসের সাবেক সাঁতারু চার্লিন। ধুমধামের কোন কমতি ছিল না এ আয়োজনে।
ফিলিপস-টিনডাল: স্কটল্যান্ড
বৃটেনের রাজবংশের রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের জ্যেষ্ঠতম নাতনী জারা ফিলিপস বিয়ে করেন ইংল্যান্ডের জাতীয় রাগবি দলের ক্যাপ্টেন মাইক টিনডালকে। ৩০শে জুলাই স্কটল্যান্ডের এডিনবার্গে এ রাজকীয় বিয়ের আয়োজন করা হয়।
ফ্রেডেরিক-সোফিয়া: জার্মানি
এ বছরের ২৭শে আগস্ট জার্মানির পোটসড্যামের স্যানসুসি রাজপ্রাসাদের গির্জায় প্রুশিয়ার জর্জ ফ্রেডেরিকের (৩৫) সঙ্গে প্রিন্সেস সোফি (৩৩) পরিণয় সূত্রে আবদ্ধ হন।
ওয়াংচুক-পেমা: ভুটান
রাজকীয় বিয়ের আয়োজনে দক্ষিণ এশিয়ার দেশ ভুটানও পিছিয়ে নেই। বরং বিশ্ব গণমাধ্যমে বেশ ঘটা করেই প্রচার করা হয়েছিল ভুটানের পঞ্চম ‘ড্রাগন রাজা’ হিসেবে অত্যন্ত জনপ্রিয় জিগমে খেসার নামগিয়েল ওয়াংচুকের সঙ্গে তার দীর্ঘ সময়ের বান্ধবী জেতসুঁ পেমার রাজকীয় বিয়ের প্রতিটি খবর। পেমা অবশ্য সাধারণ ঘরের মেয়ে। ওয়াংচুক ভুটানের ‘প্রিন্স চার্মিং’ বা আকর্ষণীয় রাজকুমার। তাদের এ বিয়েকে উইলিয়াম-কেটের বিয়ের সঙ্গে অনেকেই তুলনা করেছেন। এ যেন হিমালয় রাজবংশের রূপকথার কোন গল্প।
ইয়ুদানেগারা-বেনদারা: ইন্দোনেশিয়া
ইন্দোনেশিয়ার ঐতিহাসিক ইয়োগিয়াকার্তা সুলতানাতে রাজবংশের শাসক সুলতান হামেংকুবুয়োনোর কনিষ্ঠতম কন্যা ও রাজকুমারী গুসতি ক্যানজেং রাতু বেনদারার সঙ্গে ক্যানজেং প্যাঙ্গেরান হারিয়ো ইয়ুদানেগারার বিয়ে বিশ্বের বহু মানুষের নজর কেড়েছিল। গত ১৮ই অক্টোবর জাভার ইয়োগিয়াকার্তা রাজপ্রাসাদে এ বিয়ের আয়োজন করা হয়।
অ্যালবা-অ্যালফন্সো: স্পেন
স্পেনের রাজকুমারী ডাচেস অব অ্যালবা ৮৫ বছর বয়সে বিয়ে করেন সরকারি কর্মচারী অ্যালফন্সো ডায়াজকে। স্পেনের সেভিল্লা রাজপ্রাসাদে অনুষ্ঠিত হয় এ রাজকীয় বিয়েটি।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ইনজেকশন দেয়া গরু চিনবেন যেভাবে

ষ্টাফ রিপোর্টার ::ঈদুল আজহার আর মাত্র ক’দিন বাকি। ঈদুল আজহা মূলত মহান ...