ড. শামসুল আলম আরো ৩ বছরের জন্য দেশের উন্নয়ন পরিকল্পনা তৈরির দায়িত্ব পেলেন

ড. শামসুল আলমস্টাফ রিপোর্টার :: আরো তিন বছরের জন্য দেশের উন্নয়ন পরিকল্পনা তৈরির দায়িত্ব পেলেন পরিকল্পনা কমিশনের সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের সদস্য (সিনিয়র সচিব) ড. শামসুল আলম। গত ৯ বছর ধরে তিনি এই দায়িত্ব পালন করে আসছেন পরিকল্পিত অর্থনীতির রূপকারখ্যাত এই অর্থনীতিবিদ।

গত বুধবার (২০ জুন) জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে আগামী ২০২১ সালের ১ জুলাই পর্যন্ত তার চাকরির মেয়াদ বাড়িয়েছে সরকার।

পরিকল্পনা কমিশন সূত্রে জানা গেছে, ৩৫ বছরের অধ্যাপনা শেষে ২০০৯ সালের ১ জুলাই প্রেষণ ছুটিতে ড. শামসুল আলম পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য হিসেবে যোগ দেন। পরিকল্পনা কমিশন গঠনের পর সদস্য হিসেবে টানা ১২ বছর দায়িত্ব পালনের রেকর্ড গড়লেন তিনি। ২০১৬ সালে তিনি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অবসরোত্তর ছুটিতে যান। তার আগে ২০১৪ সালে রাষ্ট্রপতির ১০ শতাংশ কোটায় ক্যাডার সার্ভিসের বাইরে প্রথমবারের মতো সিনিয়র সচিব পদমর্যাদা অর্জন করেন।

ড. শামসুল আলমের হাত ধরে এরই মধ্যে তৈরি হয়েছে অনেকগুলো উন্নয়ন পরিকল্পনা, যেগুলো এখন বাস্তবায়নাধীন। সরকারের নির্বাচনি ইশতেহার অনুযায়ী তার প্রণয়ন করা দ্বিতীয় দারিদ্র্য বিমোচন কৌশলপত্র (২০০৯-১১) সংশোধন ও পুনর্বিন্যাস করে ‘দিন বদলের পদক্ষেপ’ ২০১১ সাল পর্যন্ত বাস্তবায়িত হয়েছে। রূপকল্প ২০২১-এর আলোকে বাংলাদেশের প্রথম প্রেক্ষিত পরিকল্পনা (২০১০-২১) ও ষষ্ঠ পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনাও (২০১১-১৫) প্রণয়ন করেছেন তিনি।

পরবর্তী সময়ে ড. শামসুল আলমের প্রণয়ন করা সপ্তম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনাও এখন বাস্তবায়নাধীন। এ ছাড়া, প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ টেকসই উন্নয়ন কৌশলপত্র (২০১১-২১) ও সামাজিক নিরাপত্তা কৌশলপত্র (২০১৫-২৫) প্রণয়ন করা হয়েছে তার তত্ত্বাবধানে। বর্তমানে ১০০ বছরের বদ্বীপ পরিকল্পনা প্রণয়ণের কাজ শেষের পথে। এর বাইরেও দায়িত্ব পালনকালে তার তত্ত্বাবধান ও সম্পাদনায় এমডিজি অর্জন বিষয়ক ১৫টি এবং ৬৩টি মূল্যায়ন প্রতিবেদন, অধ্যয়ন ও গবষণা গ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে।

ড. শামসুল আলম চলতি ২০১৮ সালে সাউথ এশিয়ান নেটওয়ার্ক ফর ইকনোমিক মডেলিং কর্তৃক বাংলাদেশে এই সময়ে ইকনোমিস্ট অব ইনফ্লুয়েন্স অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেছেন।

এ ছাড়া বাংলাদেশ কৃষি অর্থনীতিবিদ সমিতির ১৬তম বার্ষিক সম্মেলনে এই বছর তাকে স্বর্ণপদকে ভূষিত করা হয়। বাংলাদেশ শিক্ষা পর্যবেক্ষণ সোসাইটি তাকে বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলাম স্মৃতি পদক-২০১৮ এ ভূষিত করেছেন। তার গবেষণা গ্রন্থ, পাঠ্যপুস্তকসহ অর্থনীতি বিষয়ক প্রকাশিত গ্রন্থ সংখ্যা ১২টি। দেশে ও বিদেশে প্রকাশিত সম্পাদিত গ্রন্থ রয়েছে ১৮টি। দেশে ও বিদেশে প্রকাশিত গবেষণা নিবন্ধ ৪৮টি।

ড. শামসুল আলম ১৯৫১ সালের ১ জানুয়ারি চাঁদপুর জেলার মতলব উত্তর উপজেলার এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্ম নেন। পারিবারিক জীবনে তার স্ত্রী, দুই পুত্র ও পুত্রবধূ ও এক নাতনী রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মানুষের গড় আয়ু বেশি

ভারত, পাকিস্তানের চেয়ে বাংলাদেশের মানুষের গড় আয়ু বেশি

স্টাফ রিপোর্টার :: স্বাস্থ্যসেবার মান উন্নয়ন ও চিকিৎসার নানামুখী অগ্রগতির প্রভাবে দেশে ...