ব্রেকিং নিউজ ❯
Home / শিক্ষা ও সাহিত্য / আন্তর্জাতিক কারিগরি স্কুল প্রতিষ্ঠার ঘোষণা: পিএইচপির উদ্যোগে অ্যাম্বুলেন্স প্রদান

আন্তর্জাতিক কারিগরি স্কুল প্রতিষ্ঠার ঘোষণা: পিএইচপির উদ্যোগে অ্যাম্বুলেন্স প্রদান

আন্তর্জাতিক কারিগরি স্কুল প্রতিষ্ঠার ঘোষণা: পিএইচপি ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে অ্যাম্বুলেন্স প্রদান   এনামুল হক কাশেমী, বান্দরবান প্রতিনিধি:: পিএইচপি ফাউন্ডেশন ফ্যামিলি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সূফি মিজানুর রহমান বলেছেন, সকল ধন-সম্পদের মালিক মহান আল্লাহ, মানুষ হচ্ছেন এসব সম্পদের কেবল তত্বাবধায়ক। অর্জিত সহায়-সম্পদকে ‘আমানত’ হিসেবে দেখার ওপর গুরুত্বরোপ করে তিনি বলেন, অর্জিত সম্পদের অতিরিক্ত বা লভ্যাংশ অবশ্যই খরচ করতে হবে অসহায় মানুষের কল্যাণে। তিনি ঘোষণা দিয়ে বলেন, বান্দরবানে অচিরেই একটি আন্তর্জাতিকমানের কারিগরি স্কুল প্রতিষ্ঠা করা হবে। এই স্কুলটি পরিচালিত হবে পিএইচপি ফাউন্ডেশন ফ্যামিলির পরিচালনায়।

পিএইচপি ফাউন্ডেশন ফ্যামিলি চেয়ারম্যান কর্র্র্তৃক শুক্রবার (১৯ মে) দুপুরে রোটারী ক্লাব অব বান্দরবানের কাছে বান্দরবান জেলাবসীর স্বাস্থ্যসেবা খাতে রোগী পরিবহণ সুবিধার জন্যে একটি আধুনিক অ্যাম্বুলেন্স হস্তান্তর অনুষ্ঠানে সূফি মিজানুর রহমান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

রোটারী ক্লাব অব বান্দরবানের সভাপতি সমাজসেবক অমল কান্তি দাশের সভাপতিত্বে অনষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপি পিএইচপি ফাউন্ডেশন চেয়ারম্যান প্রদত্ত অ্যাম্বুলেন্সটি বিনাভাড়ায় গরিব ও অসহায় রোগীবহণের কাজে ব্যবহার করা হবে পার্বত্য জেলা পরিষদের মাধ্যমে।

রোটারী ক্লাব অব বান্দরবানের নেতৃবৃন্দ বলেন, পিএইচপি ফাউন্ডেশন ফ্যামিলি চেয়ারম্যান সূফি মিজানুর রহমানের বদান্যতায় প্রাপ্ত অ্যাম্বুলেন্সটি পার্বত্য জেলা পরিষদের কাছে পুনহর্স্তাতর করা হবে।

অনুষ্ঠানে পার্বত্য জেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সিংইয়ং ম্রো, জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিক, পুলিশ সুপার সন্জিত কুমার রায়, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক হারুন অর রশিদ, পার্বত্য উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আবদুল আজিজ, সদর উপজেল চেয়ারম্যান এম আবদুল কুদ্দুছ এবং রোটারী ক্লাব অব বান্দরবানের সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

http://www.unitednews24.com/wp-content/uploads/2016/08/Untitled-1-copy-1.jpg

About ahm foysal

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*