অযৌক্তিক হয়রানির বিরুদ্ধে স্বপ্নের প্রতিবাদ

অযৌক্তিক হয়রানির বিরুদ্ধে স্বপ্নের প্রতিবাদঢাকা :: স্বপ্নের বনানী আউটলেটে ২০ মে ২০১৮ তারিখে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানের বিপরীতে যে তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে তার ব্যাপারে স্বপ্ন তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছে। স্বপ্ন জেনে শুনে কখনো কোন মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্য তার ক্রেতাদের কাছে বিক্রি করে না।

সোমবার বিকেলে গুলশান-১ এ স্বপ্নের আউটলেটে স্বপ্নের নির্বাহী পরিচালক জনাব সাব্বির হাসান নাসির, স্বপ্নের পণ্য সরবরাহকারী এবং অন্যান্য উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ গণমাধ্যমের উদ্দেশ্যে তাদের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন।

রোববারের অভিযান সর্ম্পকে স্বপ্নের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, যে পণ্যকে মেয়াদ উত্তীর্ণ বলা হচ্ছে তা দোকানের পেছন অংশে “Damaged & Expired, Not for Sale” লিখে আলাদা করে চিলারে রাখা ছিল। মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে গেলে কিংবা পচে গেলে সুপারস্টোরে খাবার ব্যাক অফিসে (ক্রেতা সাধারণের দৃষ্টির বাইরে) পিছনের চিলারে রাখা হয় যাকে “Damaged & Expired” হিসেবে গণ্য করে করে পরবর্তীতে ধ্বংস করে ফেলা হয়। সেসব পণ্য কখনই আবার সামনে আসে না।

এছাড়াও কর্তৃপক্ষ জানান, যে সমস্ত কোমল পানীয়র কথা বলা হয়েছে তা সরাসরি প্রস্তুতকারক বা সরকার অনুমোদিত আমদানিকারক থেকে স্বপ্নতে আসে। এ ব্যাপারে যে কোনো সময় যে কোনো কারো কাছে স্বপ্ন চাওয়া মাত্র প্রমানাদি দিতে পারে।

কর্তৃপক্ষ আরো জানান, অন্যানো সুপার শপের মতো স্বপ্নও বিভিন্ন রকমের গরুর মাংস বিক্রি করে, ৫৫০ টাকা দামের যে গরুর মাংসের কথা বলা হয়েছে তা প্রিমিয়ার কোয়ালিটির গরুর মাংস। হাড় সহ গরুর মাংস সরকার থেকে নির্ধারিত দামেই বিক্রি করা হচ্ছে।

স্বপ্ন মনে করে এ ধরণের কার্যক্রম স্বপ্নের ভাবমূর্তি সম্পূর্ণ রূপে নষ্ট করে এবং মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করার সময় আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ দেয়া না হলে স্বপ্ন তার কার্যক্রম পরিচালনা বন্ধ করে দিতে বাধ্য হবে।

স্বপ্ন এ ব্যাপারে সরাসরি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সদয় দৃষ্টি আকর্ষণ করছে।-প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মালয়েশিয়ায় ৫৫ বাংলাদেশি আটক

ডেস্ক রিপোর্ট :: মালয়েশিয়ায় ওয়ার্ক পারমিটের নিয়ম লঙ্ঘন করে কাজ করার অভিযোগে ...